For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

শুধু স্বাদেই ভালো নয়, পেয়ারায় রয়েছে একাধিক স্বাস্থ্যগুণ!

|

সবুজ মিষ্টি এই ফলটি খেতে সবাই পছন্দ করে। একটু চাট মশলা বা নুন ছড়িয়ে এক বাটি পেয়ারা চোখের নিমেষে শেষ হয়ে যাবে। শুধু স্বাদেই নয়, পেয়ারার স্বাস্থ্যগুণও একাধিক। পেয়ারাকে পুষ্টির পাওয়ার হাউস বলা হয়। এতে রয়েছে ভিটামিন সি, লাইকোপিন এবং ভিটামিন এ, এই উপাদানগুলি ত্বকের জন্য খুব উপকারি। এছাড়াও এতে রয়েছে ফাইবার, পটাশিয়াম এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, যা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারি। পেয়ারা ম্যাঙ্গানিজ সমৃদ্ধ, যা দেহকে খাবার থেকে পুষ্টি সংগ্রহ করতে সাহায্য করে।

এছাড়া পেয়ারায় আছে ফোলেট নামে খনিজ যা প্রজনন ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এতে থাকা পটাশিয়াম ব্লাড প্রেসার ঠিক রাখতে সাহায্য করে। পেয়ারাতে প্রায় ৮০ শতাংশ জল থাকে, যা স্কিনকে হাইড্রেট রাখতে সহায়তা করে। তাহলে জেনে নিন পেয়ারার উপকারিতা সম্পর্কে -

১) ইমিউনিটি বৃদ্ধি করে

১) ইমিউনিটি বৃদ্ধি করে

ভিটামিন সি-এর উৎস হল পেয়ারা। আমরা জানি, ভিটামিন সি ইমিউনিটি বাড়াতে সাহায্য করে। পেয়ারা বাজে ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস মেরে ফেলতে সাহায্য করে।

২) হার্ট-এর স্বাস্থ্য ভালো রাখে

২) হার্ট-এর স্বাস্থ্য ভালো রাখে

কোলেস্টেরল দুই রকমের হয়, ভালো ও খারাপ। পেয়ারা ভালো কোলেস্টেরল বাড়াতে এবং খারাপ কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে। এই ফলে থাকা ভিটামিন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হার্টকে রক্ষা করে।

৩) ডায়াবেটিস হতে দেয় না

৩) ডায়াবেটিস হতে দেয় না

পেয়ারায় থাকে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং গ্লাইসেমিক ইনডেক্স, যা ডায়াবেটিস রোধ করে। ফাইবার ব্লাড সুগার লেভেল ঠিক রাখে। পেয়ারা পাতাও সমান উপকারি। পেয়ারা পাতার চা খেলে ব্লাড সুগার লেভেল কম থাকে।

৪) প্রেগন্যান্সির ক্ষেত্রে উপকারি

৪) প্রেগন্যান্সির ক্ষেত্রে উপকারি

পেয়ারায় থাকে ফলিক অ্যাসিড এবং ভিটামিন বি-৯, যা অন্তঃসত্ত্বাদের জন্য উপকারি। গর্ভস্থ শিশুর নার্ভ সিস্টেম ঠিক রাখে এবং স্নায়বিক রোগ থেকে ভ্রূণকে রক্ষা করে। এছাড়াও, এই ফলের মধ্যে উপস্থিত বি-ভিটামিন কোষগুলিকে বিভক্ত হতে দেয় এবং ভ্রূণের জন্য DNA এবং জিনগত উপাদান তৈরি করে।

৫) হজমে সাহায্য করে

৫) হজমে সাহায্য করে

পেয়ারা ডায়েটরি ফাইবারের দুর্দান্ত উৎস। একটি পেয়ারা আমাদের দেহে প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ফাইবারের ১২ শতাংশ পূরণ করে। যা হজম স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারি। পেটের সমস্যায় সাহায্য করে পেয়ারা পাতা। গবেষণায় দেখা গেছে, পেয়ারা পাতার নির্যাস হল অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল, যা আপনার অন্ত্রে ক্ষতিকারক জীবাণুগুলি মারতে সাহায্য করবে।

আরও পড়ুন :আপনার সন্তান কি ডিহাইড্রেশনের শিকার? জেনে নিন এই উপায়ে এবং রইল এর চিকিৎসা

৬) দৃষ্টিশক্তি ভালো করে

৬) দৃষ্টিশক্তি ভালো করে

চোখের সমস্যা অনেকেরই হয়। এতে ভিটামিন এ রয়েছে, তাই পেয়ারা দৃষ্টিশক্তি উন্নত করতে সহায়তা করে। এটি চোখের স্বাস্থ্যের অবনতি রোধ করে এবং ছানি ও ম্যাকুলার ক্ষয়কেও কমিয়ে দেয়। চোখের স্বাস্থ্য, দৃষ্টি শক্তি ভালো রাখতে সাহায্য করে পেয়ারা।

৭) কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় করে

৭) কোষ্ঠকাঠিন্য নিরাময় করে

অন্যান্য ফলের তুলনায় এটি ডায়েটরি ফাইবারের দুর্দান্ত উৎস এবং মাত্র একটা পেয়ারা আপনার প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ফাইবারের ১২ শতাংশ পূরণ করে, যা আপনার হজম স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারি। পেয়ারার বীজগুলি যদি পুরো খাওয়া হয় বা চিবানো হয় তবে অন্ত্র ভাল থাকবে।

৮) কাশি-সর্দি

৮) কাশি-সর্দি

পেয়ারাতে সর্বাধিক পরিমাণে ভিটামিন-সি এবং আয়রন থাকে, এবং উভয়ই ঠান্ডা লাগা এবং ভাইরাল সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। পেয়ারার জুস বা পেয়ারা পাতার পাচন কাশি-সর্দি উপশম করতে খুব সহায়ক।

English summary

Health Benefits Of The Humble Guava

Guava, known as amrood in Hindi, is a tropical fruit produced in Central America. It is known as a powerhouse of nutrients.
X