সুস্থ থাকতে প্রতিদিন ১ বাটি ডালিয়া খেতেই হবে! না হলে...

Subscribe to Boldsky

বয়সকালে রোগ কষ্টে ভুগতে আজকাল কেউই চান না। তাই তো সিংহভাগই যথাযথ ডায়েট চার্ট মেনে পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার চেষ্টা করেন। আর এই করতে গিয়ে সহজ কিছু খাবারের কথা একেবারেই ভুলে যান, যেগুলি আমাদের শরীরে গঠনে দারুনভাবে কাজে আসতে পারে। যেমন ডালিয়ার কথাই ধরুন। এটি বানানো যেমন সোজা, তেমনি খেতেও মন্দ নয়। শুধু কী তাই! ডালিয়া হল নানাবিধ পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি খাবার। তাই তো প্রতিদিন এটি খেলে ডাক্তার এবং ওষুধের দোকানে যাওয়ার আর কোনও প্রয়োজনই পারে না।

মানে! ডালিয়ায় রয়েচে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, যা একাধির রোগকে দূরে রাখে। সেই আরও নানা কাজে আসে। যেমন...

১. পেশির গঠনে সাহায্য করে:

১. পেশির গঠনে সাহায্য করে:

ডালিয়ায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন এবং ভিটামিন, যা পেশির গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই আপনি যদি শরীরকে সুস্থ-সবল বানাতে চান, তাহলে প্রতিদিনের ডায়েটে ডালিয়ার থাকা মাস্ট!

২. ওজন হ্রাসে সাহায্য করে:

২. ওজন হ্রাসে সাহায্য করে:

আপনি কি অতিরিক্ত ওজনের কারণে চিন্তায় রয়েছেন? ভাবছেন কীভাবে অতিরিক্ত মেদ ঝড়াবেন? চিন্তা নেই। আজ থেকেই এক বাটি করে ডালিয়া খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন ওজন কমতে শুরু করে দিয়েছে। আসলে ডালিয়ায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণ ফাইবার, যা বহুক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখে। ফলে একদিকে যেমন অতিরিক্ত খাবার খাওয়ার প্রবণতা কমে, তেমনি অন্যদিকে কাজের ফাঁকে চিপস বা ভাজাভুজির খাওয়ারও ইচ্ছাও চলে যায়। আর একথা তো সকলেই জানেন যে পরিমিত আহারের পাশাপাশি ভাজা জাতীয় খাবার যত কম খাবেন, তত ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে।

৩. এনার্জির ঘটতি দূর করে:

৩. এনার্জির ঘটতি দূর করে:

অনেকই আমরা দিনের মাঝে এতটাই ক্লান্ত হয়ে পরি যে দৈনন্দিন কাজ করতেও মন চায় না। এমনটা কেন হয় জানেন? যখন শরীরে পুষ্টির ঘাটতি হওয়ার কারণে এনার্জি লেভেল কমতে শুরু করে, তখনই এমন ধরনের সমস্যা মাথা চারা দিয়ে ওঠে। তাই তো শরীরে যাতে পুষ্টির ঘাটতি দেখা না দেয়, সেদিকে প্রতিনিয়ত খেয়াল রাখতে হবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে ডালিয়া। কারণ এতে উপস্থিত এসেনশিয়াল নিউট্রিয়েন্টস পুষ্টির ঘাটতি দূর করার পাশপাশি শরীরকে সারাদিন কর্মচঞ্চল রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

৪. রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে:

৪. রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে:

ডালিয়ায় রয়েছে কমপ্লেক্স কার্বোহাইড্রেট, যা শরীরে প্রবেশ করা মাত্র রক্তে যাতে শর্করার মাত্রা লাগামহীন ভাবে বৃদ্ধি না পায়, সেদিকে খেয়াল রাখে। তাই তো ডায়বেটিকদের এই খাবারটি খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা।

৫. কনস্টিপেশনের প্রকোপ কমায়:

৫. কনস্টিপেশনের প্রকোপ কমায়:

ছোট বেলায় শক্ত পটি হলেই মা বাটি বাটি ডালিয়া খাওয়াতেন? আপনিও নিশ্চয় এমন অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে গেছেন? কিন্তু কখনও ভেবে দেখেছেন কনস্টিপেশনের সঙ্গে ডালিয়ার কী সম্পর্ক? এই বিশেষ খাবারটিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ডায়াটারি ফাইবার, যা হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি পটি নরম করতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোষ্ঠকাঠিন্যের প্রকোপ কমে যায়।

৬. বিপাকক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়:

৬. বিপাকক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়:

ডালিয়া যে যে উপাদান দিয়ে তৈরি, সেগুলি শরীরে প্রবেশ করা মাত্র বিপাকক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়। ফলে খাবার হজম করার ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। এই কারণেই তো অসুস্থদের ডালিয়া খাওয়ানোর পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা।

৭. পুষ্টির ঘাটতি দূর করে:

৭. পুষ্টির ঘাটতি দূর করে:

আমাদের প্রতিটি অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সচল রাখতে বিশেষ কিছু উপাদানের প্রয়োজন পরে। এইসব উপাদানগুলির ঘাটতি দেখা দিলে শরীর প্রথম দুর্বল হয়ে পরে। তারপর একে একে নানা রোগ এসে বাসা বাঁধে। এমনটা যাতে আপনার সঙ্গে না ঘটে তার জন্য নিয়ম করে প্রতিদিন ডালিয়া খেতে হবে। কারণ এই খাবারটিতে শরীরের প্রয়োজনীয় সব পুষ্টিকর উপাদান মজুত রয়েছে, যা একাধিক রোগের হাত থেকে রক্ষা করার পাশাপাশি শরীরকে অ্যাকটিভ রাখতে সাহায্য করে।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: ডালিয়া শরীর
    English summary

    সুস্থ থাকতে প্রতিদিন ১ বাটি ডালিয়া খেতেই হবে! না হলে...

    With the trend inclining towards healthy living, we proactively choose to have a nutritious meal. Consider it a healthy trait or increasing passion to look great, something as basic as a bowl of dalia looks tempting to health enthusiasts. And why not? When this wholesome food is loaded with benefits of high fibre and aids in weight loss. Let's find out some more reasons to eat this fibre enriched food.
    Story first published: Tuesday, May 23, 2017, 14:01 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more