For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

মর্নিং সেক্সের মধ্যেই রয়েছে সুস্থ থাকার চাবিকাঠি! দেখুন এর নানান স্বাস্থ্য উপকারিতা

|

যৌনতা মানবজীবনের এমন এক গুরুত্বপূর্ণ চাহিদা যা মানুষের শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যকে ঠিক রাখার পাশাপাশি নিজেদের সম্পর্কের মাধুর্যতাকে আরও দৃঢ় করতে সাহায্য করে। সঙ্গীর সঙ্গে একটু ঘনিষ্ঠতা এবং হাসিখুশির মুহূর্ত সারাদিনটা সতেজতায় ভরিয়ে তোলে। কিন্তু আমরা এমন এক সময়ে বাস করছি যেখানে দু'দণ্ড দাঁড়ানোর সময় নেই কারও। লক্ষ্যের পেছনে দৌড়াতে গিয়ে দিন দিন থিতিয়ে পড়ছে নিজেদের সুন্দর সম্পর্কগুলো। বিশেষজ্ঞদের মতে, যেকোনও সম্পর্ককে মধুর করে তুলতে একে অপরের প্রতি ভালোবাসা, যত্ন ও বিশ্বাসের পাশাপাশি যৌন সুখও কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। কিন্তু সারাদিনের অক্লান্ত পরিশ্রমের পর তা আর হয়ে ওঠে না স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে।

তবে কেউ কেউ আবার ক্লান্তির মধ্যেও রাতে যৌনতায় লিপ্ত হন। সেক্ষেত্রে কখনও কখনও যৌনতৃপ্তি মেটেনা দুজনেরই, দেখা দেয় মানসিক অশান্তি। কিন্তু যৌন মিলনের জন্য শুধু রাত কেন, সকালেও তো হতেই পারে। যদিও অনেকের মতে সকালের থেকে রাতের মিলন অনেকটাই মধুর। তাই বেশিরভাগ লোকেরাই যৌন জীবন উপভোগ করেন রাত্তিরে।

যৌন মিলনের আদর্শ সময় কখন, এ প্রশ্নের উত্তর ঘিরে আজও নানা মুনির নানা মত প্রচলিত রয়েছে। তবে আধুনিক বিজ্ঞানের মতে, সম্পর্ককে সুখী করে তুলতে এবং নিজেদের সুস্থ রাখতে মর্নিং সেক্স দারুন টনিক হিসেবে কাজ করে। আর মর্নিং সেক্সের কিন্তু অনেকগুলো স্বাস্থ্য উপকারিতাও রয়েছে। চলুন তবে দেখে নিন এই উপকারিতাগুলি কী কী -

১) স্বাস্থ্যবান করে তোলে

১) স্বাস্থ্যবান করে তোলে

চিকিৎসকদের মতে, সকালের যৌনতা প্রায় ৩০ মিনিটের জগিং এর সমান ক্যালোরি পুড়িয়ে দেয়। যার কারণে, মর্নিং সেক্স শারীরিক জটিলতা কমিয়ে আমাদের স্বাস্থ্যবান করে তোলে। গবেষকরা বলছেন, সকালে যেহেতু কোনও শারীরিক ক্লান্তি থাকে না, তাই মর্নিং সেক্স খুব ন্যাচারাল হয়। যার ফলে ত্বকে জেল্লা আসে, চুলের বৃদ্ধি ভালো হয়। অল্প বয়সে বৃদ্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে না। পাশাপাশি রক্তচাপ কমায় এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমিয়ে দেয়।

২) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

২) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

সুস্থ থাকার ক্ষেত্রে মর্নিং সেক্স অতুলনীয়, এমনটাই দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁদের মতে, ভোরে মিলন হলে শরীরে ইমিউনোগ্লোবুলিন-A এর মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়। ইমিউনোগ্লোবুলিন শরীরের সবচেয়ে সাধারণ অ্যান্টিবডিগুলির মধ্যে একটি।

৩) মুড বুস্টার হিসেবে কাজ করে

৩) মুড বুস্টার হিসেবে কাজ করে

বিশেষজ্ঞদের মতে, চনমনে ভালো দিন শুরু করতে মর্নিং সেক্স ভীষণভাবে সাহায্য করে। কারণ, ভোরে পুরুষ ও নারী উভয়ের মধ্যেই টেস্টোস্টেরন হরমোনের ক্ষরণ বেশি মাত্রায় বৃদ্ধি পায়। ওই সময় মিলন হলে এন্ডোরফিনস হরমোনের ক্ষরণও বাড়ে, যা ইনস্ট্যান্ট মুড বুস্টার হিসেবে কাজ করে। এতে সারাদিন মন-মেজাজ ভালো থাকে। তাই সারাদিন ধরে অ্যাক্টিভ থাকতে মর্নিং সেক্স ইজ মাস্ট।

৪) মাইগ্রেনের সমস্যা দূর করতে

৪) মাইগ্রেনের সমস্যা দূর করতে

চিকিৎসকদের মতে, সেক্স ন্যাচারাল পেইনকিলার হিসেবে কাজ করে। তাই সঙ্গীর সাথে ভোর বেলায় যৌন মিলনে লিপ্ত হলে মাইগ্রেনের সমস্যা দূর হতে পারে। পাশাপাশি শরীরের অন্যান্য ব্যথাও কমবে নিমেষের মধ্যে।

৫) মিলনের তৃপ্তি ও সম্পর্ক দৃঢ় করতে

৫) মিলনের তৃপ্তি ও সম্পর্ক দৃঢ় করতে

স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্ক দৃঢ় করতে মর্নিং সেক্স এর ভূমিকা অসাধারণ। সকালের সতেজ মনে সঙ্গীর কপালে চুমুর স্পর্শ অন্যদের তুলনায় তাদের সম্পর্ককে অনেক বেশি মজবুত করে। এই সময়ের যৌনমিলনে শরীর নির্ভেজালভাবে সাড়া দেয়। কারণ, ভোরেই সবচেয়ে বেশি যৌন আকাঙ্খা বাড়ে পুরুষের। যার কারণে উভয়ই মিলনের ক্ষেত্রে তৃপ্তি অনুভব করেন।

দেরি করে ঘুম থেকে উঠলে কমতে পারে আয়ু, ফিট থাকতে অবশ্যই মানুন এই নিয়মগুলি

English summary

Science-Backed Reasons Why Morning Sex Is Best

Here's a list for the health benefits of morning sex...
X