For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সরস্বতী পূজা ২০২০ : দিন,ক্ষণ ও তাৎপর্য

|

ফেব্রুয়ারি ১৪ নয়, বাঙালির ভ্যালেন্টাইন এবার জানুয়ারির ২৯- এ। কারণ, রাত পোহালেই সরস্বতী পুজো, এই পুজো বসন্ত পঞ্চমী নামেও পরিচিত। দূর্গা পূজার প্যান্ডেল হপিং এর মতই বাসন্তী রংয়ের শাড়ি, পাঞ্জাবি পরে সরস্বতী পুজোতে চলে এক নিদারুণ হপিং পর্ব। স্কুল থেকে কলেজ, রেস্টুরেন্ট থেকে সরোবরের লেক কিংবা ভিক্টোরিয়া, সবেতেই আনাগোনা থাকে কপোত-কপোতীর। এই দিন চারিদিকভরে ওঠে শুধু হলুদ রঙে।

পুজো তো উপলক্ষ মাত্র। পুজোকে কেন্দ্র করেই চলে রশিয়ে খাওয়া-দাওয়া, আড্ডা ও প্রেম। কিন্তু, এর মাঝে কখনোই হারিয়ে যায় না দেবীর আরাধনা। সকালে স্নান সেরে নতুন জামা, শাড়ি পরে ছোট থেকে বুড়ো প্রত্যেকেই তৈরি থাকে মায়ের চরণে অঞ্জলি দেওয়ার জন্য।

saraswati puja

মা সরস্বতী শুধুমাত্র বিদ্যার দেবী হলেও, বর্তমান প্রজন্মের কাছে তিনি বিদ্যার পাশাপাশি প্রেমেরও দেবী। কারণ, সরস্বতী পুজোর দিনেই অনেকের প্রেম শুরু হয়, আবার অনেক ভাঙা সম্পর্কও রাগ, অভিমান ভুলে পূর্ণতা পায়। সে যাই হোক না কেন, টিনেজারের কাছে পুজো মানেই এক আনন্দ উৎসবের দিন।

সরস্বতী পূজা ২০২০ : বসন্ত পঞ্চমীতে কেন হলুদ রঙের পোশাক পরা হয়? জেনে নিন এর কারণ

স্কুল কলেজ, কোচিং সেন্টার, পাড়া ও অফিস, সব জায়গাতেই সরস্বতী পুজো হয়ে থাকে। প্রত্যেকেই এইদিন আসার অপেক্ষায় থাকে। তবে, এ বছর কবে সরস্বতী পুজো পড়েছে তা নিয়ে চিন্তিত অনেকেই। কারণ, পঞ্চমী তিথি থাকছে দু'দিন ধরে। সরস্বতী পুজোর দিনটি ৩০ জানুয়ারি পড়লেও বসন্ত পঞ্চমী পড়েছে ২৯ জানুয়ারি। গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা ও বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে, দু'দিনই অর্থাৎ ২৯ এবং ৩০ জানুয়ারি সরস্বতী পুজো হবে।

আসুন জেনে নেওয়া যাক ইংরেজি ২০২০ ও বাংলা ১৪২৬ সনের সরস্বতী পুজোর দিন, ক্ষণ ও তারিখ -

গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে পূজা আরম্ভ

তারিখ: ২৯ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার।

সময়: সকাল ৯ টা ১৫ মিনিট থেকে।

পূজা শেষ

তারিখ: ৩০ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার।

সময়: সকাল ১০টা ৫৫ মিনিট পর্যন্ত।

saraswati puja

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে পূজা আরম্ভ

তারিখ: ২৯ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার।

সময়: সকাল ১০টা ৪৬ মিনিট থেকে।

পূজা শেষ

তারিখ: ৩০ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার।

সময়: দুপুর ১টা ২০ মিনিট পর্যন্ত।

অঞ্জলির সময়

এবছর যেহেতু দুই দিন ব্যাপী চলবে সরস্বতী পুজো তাই, অঞ্জলির সময়ও নির্ভর করছে দুই দিনের এই বসন্ত পঞ্চমীর ওপর। এবারে অঞ্জলির সময় পড়েছে -

গুপ্তপ্রেস পঞ্জিকা মতে

২৯ তারিখ, বুধবার সকাল ৯ টা ১৫ মিনিট থেকে শুরু করে ৩০ তারিখ, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটের মধ্যে থাকছে অঞ্জলির সময়।

সরস্বতী পূজা ২০২০ : জেনে নিন পূজা বিধি এবং কী করবেন

বিশুদ্ধ সিদ্ধান্ত পঞ্জিকা মতে

২৯ তারিখ, বুধবার সকাল ১০টা ৪৬ মিনিট থেকে শুরু করে ৩০ তারিখ, বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা ২০ মিনিটের মধ্যে থাকছে অঞ্জলির সময়।

saraswati puja

সরস্বতী পূজার তাৎপর্য

সরস্বতী পুজো, গোটা ভারতে বসন্ত পঞ্চমী নামে পরিচিত। হিন্দু ধর্মমতে বিদ্যা ও সঙ্গীতের অধিষ্ঠাত্রী দেবী হলেন সরস্বতী। প্রতি বছর মাঘ মাসের শুক্লাপঞ্চমী তিথিতে হয়ে থাকে এই পুজো। বিদ্যার্থীরা দেবীর পুণ্য দৃষ্টি লাভের জন্য এই পুজো করে থাকে। কথিত আছে, এদিনই মূর্খ কালিদাস দেবীর আরাধনা করে তাঁর দর্শন পেয়েছিলেন এবং দেবীর বরলাভেই হয়ে উঠেছিলেন মহাকবি কালিদাস। তাই বসন্ত পঞ্চমীর দিন দেবী সরস্বতীর পুজো করাটা বিদ্যার্থীদের জন্য শুভ বলে মানেন সকলে।

তবে শাস্ত্রীয় মতে, সরস্বতী মূলত বৈদিক দেবী। বেদ অনুসারে, সরস্বতী হলেন প্রধানত নদীর অধিষ্ঠাত্রী দেবী। কারণ, সরস্বতী শব্দের দুই অর্থ - একটি ত্রিলোক্য ব্যাপিনী সূর্যাগ্নি, অন্যটি নদী। আর সরস শব্দের অর্থ হল জল। আবার সরস্বতী শব্দটির বুৎপত্তিগত অর্থে সরস+বতু আর স্ত্রী লিঙ্গে 'ঈ' প্রত্যয় যুক্ত হয়ে সরস্বতী।

কেন মহেশ্বরকে হলুদ দিয়ে পুজো করবেন না? জেনে নিন এর আসল কারণ

সরস্বতীকে আমরা বিদ্যার দেবী হিসেবে পূজা করে থাকি। তাই, ধর্মপ্রাণ হিন্দু পরিবারে এই দিন শিশুদের হাতেখড়ি দেওয়ার প্রথাও প্রচলিত রয়েছে। শিশুদের হাতেখড়ি দিয়েই পাঠ্যজীবন শুরু হয়। তিনি বিদ্যাদেবী, জ্ঞানদায়িনী, বীণাপাণি প্রভৃতি নামে অভিহিতা। ছাত্র-ছাত্রীদের এক মাত্র আশাভরসা তিনিই। কারণ প্রত্যেকের বিশ্বাস, তিনি তুষ্ট থাকলেই ছাত্র-ছাত্রীরা ভালোভাবে পড়াশোনা করে পরীক্ষায় ভালো ফল করবে। তাই বর্তমান দিনে সমস্ত স্কুল-কলেজ থেকে নিজেদের বাড়িতেও সবাই ধূমধাম করে সরস্বতী পূজা করে থাকে সকলে।

English summary

saraswati puja 2020 : date time and significance

This year, Basant Panchami or Saraswati Puja will be celebrated on 29 and 30 January. Continue reading to know about the date, time and significance of this Saraswati Puja.
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more
X