For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

Poila Baisakh Special : এই পয়লা বৈশাখে জমিয়ে ভুরিভোজ করতে দেখে নিন কিছু স্পেশাল রেসিপি

Posted By:
|

নববর্ষই মানে বাঙালির ঘরে ঘরে চলে দেদার ভুরিভোজ। সম্পূর্ণ বাঙালিয়ানা ধাঁচে হেঁসেলে তৈরি হয় কচি পাঁঠা কিংবা মুরগি। এর পাশাপাশি চলে ইলিশ-চিংড়ির লড়াইও। সঙ্গে থাকে হইহুল্লোড়, আড্ডা ও নতুন পোশাক। সব মিলিয়ে নববর্ষ বাঙালির এক চরম আনন্দের অনুষ্ঠান।

এ বছর ইংরেজি তারিখ অনুযায়ী ১৫ এপ্রিল বাংলা নববর্ষের দিন। বাংলা বছর ১৪২৮ সন থেকে ১৪২৯-এ পড়ল। এবার পয়লা বৈশাখে বাড়িতেই কব্জি ডুবিয়ে খাওয়া দাওয়া করতে বানিয়ে ফেলুন বোল্ডস্কাই বাংলার দেওয়া এই রেসিপিগুলো। জমে উঠবে নববর্ষের ভুরিভোজ।

১) নারকেল চিংড়ি

১) নারকেল চিংড়ি

উপকরণ

বড়ো চিংড়ি ৫০০ গ্রাম

এক কাপ নারকেল বাটা

পেঁয়াজ বাটা

টমেটো কুচি

কাঁচা লঙ্কা বাটা ১ টেবিল চামচ

আদা, রসুন বাটা পরিমাণমতো

হলুদ

কাশ্মীরি লঙ্কা গুঁড়ো

গরম মশলা গুঁড়ো

চিনি ১ টেবিল চামচ

নুন

সর্ষের তেল

রান্নার পদ্ধতি

চিংড়ি মাছ ভালো করে ধুয়ে পরিমাণমতো নুন হলুদ মাখিয়ে নিন। কড়াইতে তেল গরম করে চিংড়ি মাছটি অল্প একটু ভেজে নিন। এরপর তেল গরম করে গরম তেলে ১ টেবিল চামচ চিনি দিয়ে দিন। চিনিটি অল্প একটু লাল হয়ে এলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন। এরপর পরিমাণমতো আদা বাটা, রসুন বাটা, লঙ্কা বাটা ও টমেটো কুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন। এবার এক চিমটি নুন, পরিমাণমতো হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে মশলা কষিয়ে নিন। একটু কোষে এলে নারিকেল বাটা দিয়ে দিন। ভালো করে মিশ্রণটি কষতে থাকুন। তারপর চিংড়ি মাছগুলো দিয়ে দিন। পরিমানমতো অল্প একটু জল দিয়ে ১৫ মিনিট চাপা দিয়ে দিন। রান্নাটি হয়ে এলে নুন ও চিনির পরিমাণ দেখে নিয়ে নামিয়ে নিন। এরপর গরম মশলা ছড়িয়ে দিন। ব্যস তৈরি আপনার নারকেল চিংড়ি।

২) পোস্ত মটন

২) পোস্ত মটন

উপকরণ

১ কেজি মটন

চা কাপের এক কাপ নারকেলের দুধ

৩৫০ গ্রাম পেঁয়াজ কুচি

৬ চা চামচ পোস্ত বাটা

কাঁচা লঙ্কা বাটা

গোটা এলাচ ৬টা

লবঙ্গ ৫টা

দারুচিনি ১টি

আদা বাটা

রসুন বাটা

জিরে গুঁড়ো ১ চা চামচ

হলুদ

লঙ্কা গুঁড়ো ১ চা চামচ

গরম মশলা গুঁড়ো

সর্ষের তেল

লবণ

রান্নার পদ্ধতি

প্রথমেই খাসির মাংস ভাল করে গরম জলে ধুয়ে নিন। এবার একটি প্রেসার কুকারে মাংসের সঙ্গে সামান্য লবণ ও পরিমাণ মতো হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। স্টক আলাদা করে রাখুন। এবার কড়াইতে তেল গরম করে গোটা এলাচ, লবঙ্গ এবং দারচিনি দিয়ে দিন। ২০ সেকেন্ড পর পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে দু'মিনিট নাড়তে থাকুন। এরপর আদা বাটা রসুন বাটা লঙ্কা বাটা দিয়ে কষিয়ে নিন। একটু কষিয়ে নেওয়ার পর পোস্ত বাটা, ১ টেবিল চামচ জিরে গুঁড়ো, পরিমাণমতো হলুদ ও লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে কষিয়ে নিন। কষানো মশলা থেকে যখন তেল বেরিয়ে আসবে তখন সেদ্ধ করা মাংসটি তাতে দিয়ে নাড়তে থাকুন। এবার জলের পরিবর্তে মাংসের স্টকটি দিন। ৫ মিনিট রান্না করার পর নারিকেলের দুধ দিয়ে ভালো করে নেড়ে ২০ মিনিট চাপা দিয়ে দিন। এরপর নুনের পরিমাণ দেখে নিয়ে এক চিমটি গরম মশলা ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে নিন। তৈরি আপনার পোস্ত মটন।

৩) চিকেন দো-পেঁয়াজা

৩) চিকেন দো-পেঁয়াজা

উপকরণ

১ কেজি চিকেন (মাঝারি সাইজের টুকরো করা)

পেঁয়াজ ৩ টি (বড়ো টুকরো করে কাটা)

পেঁয়াজ কুচি ৩০০ গ্রাম

১টি ক্যাপসিকামের কুচি

টকদই ৩ টেবিল চামচ

রসুন বাটা, আদা বাটা

লঙ্কা গুঁড়ো ২ চা চামচ

হলুদ গুঁড়ো পরিমাণমতো

ধনে গুঁড়ো ২ চা চামচ

গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ

৪টি গোটা এলাচ

২ টি তেজপাতা

১ টুকরো দারচিনি

১ চা চামচ জিরে গুঁড়ো

ধনেপাতা কুচি ১/২ কাপ

নুন স্বাদমতো

সাদা তেল / সর্ষের তেল

রান্নার পদ্ধতি

চিকেন ধুয়ে নুন, হলুদ, টক দই মাখিয়ে ম্যারিনেট করে নিন। এবার কড়াইয়ে সরষের তেল গরম করে এলাচ,দারচিনি, তেজপাতা ফোড়ন দিন, গন্ধ বেরোলে পেঁয়াজকুচি দিয়ে লাল করে ভেজে নিন। এবার ভাজা পেঁয়াজে ক্যাপসিকামের কুচি, টমাটো কুচি দিয়ে নেড়ে নিন। এরপর আদা রসুন বাটা, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, পরিমাণমতো লঙ্কা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, এই সমস্ত মশলা দিয়ে ভালো করে কষে নিন। মশলা কোষে এলে ম্যারিনেট করা চিকেনটি দিয়ে কম আঁচে কষে নিন। ঢাকা দিয়ে চিকেনটি সেদ্ধ করে নিন। এবার চিকেনে অল্প পরিমান ফেটানো টকদই ও মোটা করে কাটা পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে দিন। ভালো করে নাড়াচাড়া করে ১৫ মিনিট কষিয়ে চাপা দিয়ে দিন। ১৫ মিনিট পর রান্নাটি হয়ে এলে নুনের স্বাদ দেখে নামিয়ে নিন। তৈরী আপনার চিকেন দো পেঁয়াজা। সার্ভ করার আগে কাঁচা পেঁয়াজ ও গরম মশলা ছড়িয়ে দিন।

৪) ইলিশ মাছের পাতুরি

৪) ইলিশ মাছের পাতুরি

উপকরণ

কলা পাতা

১০ পিস মাছ

হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ

সাদা সর্ষে বা কালো সরষে বাটা পরিমাণমতো

কাঁচা লঙ্কা বাটা ১ চা চামচ

পোস্ত বাটা ২ চা চামচ

টক দই ২ চা চামচ

নারকেল বাটা ২ চা চামচ

সরষের তেল ৩-৪ চা চামচ

স্বাদ মতো নুন

রান্নার পদ্ধতি

প্রথমেই একটা পাত্রে টক দই, পোস্ত বাটা, সর্ষে বাটা, পরিমাণমতো নুন, হলুদ, কাঁচা লঙ্কা বাটা, নারকেল বাটা আর সর্ষের তেল ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার ইলিশ মাছের পিসগুলিতে এই মিশ্রণটা ভাল করে মাখিয়ে ম্যারিনেট করে ২৫ মিনিট রেখে দিন। কলাপাতা যাতে সহজে ছিঁড়ে না যায় তাই আগুনের হালকা আঁচ লাগিয়ে নিতে হবে। এবার কলাপাতার নিচের দিকে সরষের তেল মাখিয়ে নিতে হবে। এরপর ম্যারিনেট করা মাছ এক একটি পাতায় রেখে পাতাটি মুড়ে সুতো দিয়ে ভালো করে বেঁধে দিতে হবে। হাড়িতে অল্প জল নিয়ে একটি সুতির কাপড়ের সুতো দিয়ে হাড়ির সঙ্গে ভালো করে বেঁধে দিতে হবে। হাড়িতে থাকা জল ফুটে এলে বেঁধে রাখা মাছগুলিকে কাপড়ের উপর ২০ মিনিট চাপা দিয়ে রেখে দিন। মাছ সেদ্ধ হয়ে গেলে পাতায় বাঁধা মাছগুলোকে পাত্রে তুলে রাখুন। তৈরি আপনার ইলিশ পাতুরি।

[ of 5 - Users]
English summary

Poila Baisakh Special Recipes

On the occasion of Pohela Boishakh, try out some of these Bengali recipes.
X