For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ধোসা প্রেমীদের জন্য রইল চিজ মাশালা ধোসা, দেখুন রেসিপি

Posted By:
|

যদিও ধোসা দক্ষিণী খাবার, কিন্তু তাহলেও কলকাতার স্ট্রিট ফুডের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় খাবার এটি। ব্রেকফাস্ট হোক কিংবা লাঞ্চ অফিস পাড়ায় এটিই হল বেশ পছন্দের খাবার। কেউ কেউ আবার সন্ধ্যার টিফিন হিসেবেও পছন্দ করেন ধোসা খেতে। তাই ছুটির দিনগুলোতে এই খাবারটিকে খুব মিস করে থাকেন খাদ্যপ্রেমী মানুষেরা। কারণ, খেতে হলে যে ছুটে যেতে হবে কোনও না কোনও এক দোকানে। তবে করোনার দৌলতে এখন তাও আর হয়ে ওঠে না। তবে চিন্তা নেই, বাড়ি থেকে না বেরিয়েই খেতে পারেন আপনার পছেন্দের ধোসা। চিরাচরিত সেই প্লেন ধোসা, ওনিয়ন ধোসা কিংবা মাশালা ধোসা থেকে বেরিয়ে আজ বানিয়ে ফেলুন চিজ মাশালা ধোসা। কীভাবে বানাবেন দেখে নিন।

উপকরণ

ধোসার ব্যাটারের জন্যে

তিন কাপ আতপ চাল

দেড় কাপ বিউলির ডাল

হাফ কাপ রান্নার চাল

স্বাদমতো নুন

আলুর পুরের জন্য

২টো বড় আলু সেদ্ধ

এক কাপ পেঁয়াজ কুচি

হাফ কাপ নারকেল কুচি

হাফ কাপ টমেটো কুচি

এক টেবিল চামচ কাঁচা লঙ্কা কুচি

এক টেবিল চামচ কারিপাতা

দুই চা চামচ মটর সেদ্ধ

এক চা চামচ বাদাম

হাফ চা চামচ গোটা সর্ষে

হাফ চা চামচ বিউলির ডাল

হাফ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো

স্বাদমতো নুন

সাম্বার ডালের জন্য

এক কাপ মটর ডাল

এক টেবিল চামচ আদা বাটা

২-৩টে লম্বা করে চেরা কাঁচা লঙ্কা

পরিমাণমতো গোটা সর্ষে

৩টে তেজপাতা

২টো গোটা শুকনো লঙ্কা

কয়েকটা কারিপাতা

পরিমাণমতো রাঁধুনি

এক কাপ বরবটি

দুই কাপ লাউ টুকরো

এক কাপ গাজর (ছোট করে টুকরো)

স্বাদ অনুযায়ী নুন

দুই চা চামচ সাদা তেল

প্রয়োজনমতো জল

চাটনির উপকরণ

একটি গোটা নারকেল বাটা

এক কাপ রোস্টেড বাদাম

পরিমাণমতো গোটা কালো সর্ষে

শুকনো লঙ্কা

কারিপাতা

সাদা তেল

স্বাদমতো নুন ও চিনি

প্রয়োজনমতো জল

এছাড়াও

চিজ

১০০ গ্রাম পনির

আরও পড়ুন : কীভাবে বানাবেন দক্ষিণ ভারতীয় খাবার রসম

তৈরির পদ্ধতি

ধোসার ব্যাটার

আগের দিন বা ১২ ঘণ্টা আগে চাল আর ডাল ভালো করে ধুয়ে আলাদা আলাদা করে ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন এগুলো থেকে জল ছেঁকে নিয়ে আলাদা করে চাল ও ডাল মিহি করে পেস্ট করে নিন। এবার চাল ও ডাল পেস্ট একসঙ্গে মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন।

আলুর পুর

কড়াইতে অল্প সাদা তেল বা ১ চা চামচ বাটার দিয়ে হাফ চা চামচ গোটা সর্ষে, হাফ চা চামচ বিউলির ডাল, হাফ কাপ নারকেল কুচি দিয়ে একটু ভেজে নিন। এবার পেঁয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা কুচি, টমেটো কুচি, কারিপাতা, মটর সেদ্ধ, বাদাম, হলুদ গুঁড়ো, স্বাদমতো নুন দিয়ে একটু ভেজে নিন। ভাজা হয়ে গেলে সেদ্ধ আলু ছোট ছোট কুচি করে কেটে কড়াইতে দিয়ে দিন। সমস্তটা ভালো করে নেড়ে শুকনো একটা তরকারি তৈরি করতে হবে।

সাম্বার

মটর ডাল ভালো করে ধুয়ে নিন। এবার প্রেসার কুকারে পরিমাণমতো তেল গরম করে তাতে চেরা কাঁচা লঙ্কা, গোটা সর্ষে, শুকনো লঙ্কা, তেজপাতা, রাঁধুনি ফোড়ন দিতে হবে। ফোড়ন দেওয়া হলে তাতে ডাল, কারিপাতা, বরবটি, কুচি করা লাউ, গাজর, নুন, হলুদ, আদা বাটা দিয়ে ভালো করে নেড়ে পরিমাণমতো জল দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। সমস্তটা সেদ্ধ হলে নুন টেস্ট করে নামিয়ে নিন।

চাটনি

প্রথমে নারকেলের শাঁস ও বাদাম পেস্ট করে নিন। এবার কড়াইতে সাদা তেল গরম করে উপরে উল্লিখিত মশলা দিয়ে ফোড়ন দিয়ে নিন। ফোড়ন থেকে সুন্দর ভাজা ভাজা গন্ধ ছাড়লে এতে নারকেল, বাদাম পেস্ট এবং সামান্য জল দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে। একটু ফুটতে শুরু করলেই তাতে পরিমাণমতো নুন ও চিনি দিতে হবে। বার বার নাড়বেন, যাতে পুড়ে না যায়। ঘন হয়ে গেলে নামিয়ে নিতে হবে।

তৈরি করুন ধোসা

প্রথমেই ব্যাটারটি নুন নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন যাতে খুব ঘন না হয়ে যায়। এবার ধোসা তৈরির তাওয়া গরম হয়ে এলে পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুছে একটু জল ছিটিয়ে দিন। এরপর একচামচ ব্যাটার নিয়ে তাওয়াতে দিয়ে চামচের পেছন দিক দিয়ে গোল করে ঘুরিয়ে তাওয়ার ধার পর্যন্ত ছড়িয়ে দিন। এবার তার উপর এক চা চামচ সাদা তেল ছড়িয়ে দিন। হালকা লাল হয়ে ভেজে এলে ধোসার মাঝখান করে আলুর পুর লম্বা করে সাজিয়ে দিতে হবে। তারপর আলুর উপর গ্রেটেড চিজ আপনার চাহিদা মতো দিয়ে দিন। হয়ে এলে বার পাতলা খুন্তির সাহায্যে পাটিসাপ্টার মত পাট করে তুলে নিতে হবে। ব্যস তৈরী আপনার চিজ মাশালা ধোসা। সাম্বার ডাল ও নারকেলের চাটনি দিয়ে পরিবেশন করুন।

[ of 5 - Users]
Story first published: Saturday, September 12, 2020, 18:08 [IST]
X