এই ঘরোয়া ওষুধটি খেলে কোনও দিন বদহজম হবে না

Posted By:
Subscribe to Boldsky

এই ঘরোয়া ওষুধটি খেলে কোনও দিন বদহজম হবে না

সব সময় কেমন যেন মনে হয় বুকের কাছে কিছু আটকে আছে। সেই সঙ্গে পেট ভার আর গুরুম গুরুম ঢেকুর। আজকাল সবাই এত বেনিয়মে চলেন যে দশ জনের মধ্য়ে ৮ জনেরই এমন সমস্যা হয়, মানে বদ হজমে কাবু হয়ে পরেন। শুধু কী তাই এমন রোগে তলপেটে যন্ত্রণা এবং অ্যাসিডিটির মতো লক্ষণও দেখা যায়। তাই তো এই প্রবন্ধে এত বিপুল সংখ্যক বদ হজম রোগীর কথা ভেবে এমন একটি ওষুধের প্রসঙ্গে লেখা হল, যা খেলে কোনও দিন আর ইনডাইজেশনে ভুগবেন না। তাই তো বদহজম সংক্রান্ত শারীরিক অস্বস্তি থেকে বাঁচতে এক্ষুনি পড়ে পেলুন এই প্রবন্ধিটি। তবে তার আগে জেনে নিন বদ হজম কেন হয়।

home-remedy-for-indigestion

সাধারণত অস্বাস্থ্যকর খাবার খেলে, অতিরিক্ত ওজন, স্টমাক আলসার, কনস্টিপেশন, আন্ডারলাইন ডিজিজ এবং কিছু ওষুধের পার্শপ্রতিক্রিয়া প্রভৃতি নানা কারণে এই রোগ হতে পারে। আর যখন এমন সমস্যা দেখা দেয় তখন পেট গোলানো, তলপেটে যন্ত্রণা, বারং বার উইন্ড পাস, মাথা ঘোরা, বমি প্রভৃতি লক্ষণের বহিঃপ্রকাশ ঘটে থাকে।

home-remedy-for-indigestion

ওষুধটি বানাতে যে যে উপকরণগুলি লাগবে:

১. আদা-মিশ্রিত পানীয়বিশেষ (যে কোনও দোকানে পেয়ে যাবেন)- হাফ কাপ

২. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার- হাফ কাপ

প্রতিদিন এই ওষুধটি খাওয়ার পাশাপাশি যদি কেউ পুষ্টিকর খাবার খান, জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলেন এবং নিয়মিত শরীরচর্চা করেন তাহলে বদ হজমের সমস্যা একেবারে সেরে যায়। শুধু তাই নয় আর পুনরায় এমন রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও কমে।

প্রসঙ্গত, আদার মধ্য়ে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান রয়েছে, যা পেটকে ঠান্ডা করে, সেই সঙ্গে নানাবিধ অ্যাসিডের কর্মক্ষমতা কমিয়ে বদহজমকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে চলে আসে। অপরদিকে, অ্যাপেল সিডার ভিনিগার স্টমাক দ্বারা উৎপন্ন অতিরিক্ত অ্যাসিডের প্রভাবকে কমিয়ে বদহজম হওয়ার আশঙ্কা কমায়।

home-remedy-for-indigestion

ওষুধটি বানানোর পদ্ধতি:

১. একটা কাপে পরিমাণ মতো দুটি উপকরণ মেশান।

২. ভাল করে মেশান দুটি উপকরণ।

৩. টানা দুমাস খাওয়ার পরে দিনে দুবার এই ওষুধটি খেলে দেখবেন আর বদ হজমের সমস্যা আপনাকে বিব্রত করবে না।

Read more about: গ্য়াস, আদা
English summary
Here is one of the easiest, yet effective home remedies to treat indigestion!
Story first published: Monday, March 6, 2017, 11:15 [IST]
Please Wait while comments are loading...