ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইলে খেতেই হবে এই খাবারগুলি!

Written By:
Subscribe to Boldsky

পশ্চিমি দেশগুলির পাশপাশি এশিয়া মহাদেশেও গত কয়েক বছরে রক্তচাপ সংক্রান্ত রোগের প্রসার চোখে পরার মতো বৃদ্ধি পয়েছে। একদলের মতে এশিয়ানদের শারীরিক গঠনের কারণে নাকি তাদের জন্ম থেকেই নানাবিধ লাইফস্টাইল ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাকি উপমহাদেশের বাসিন্দাদের থেকে বেশি থাকে। তথ্যটি নির্ভুল। কিন্তু একথা মানতে একটু কষ্ট হয় যে শুধুমাত্র শারীরিক গঠনের কারণেই এমন একটা ভয়ঙ্কর রোগের বাড়বাড়ন্ত হতে পারে না। এক্ষেত্রে নিশ্চয় আরও কিছু কারণ দায়ি।

একেবারে ঠিক! শারীরিক গঠন তো আছেই সেই সঙ্গে মদ্যপান, ধূমপান সহ অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপনের কারণে বাড়ছে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। সেই কারণেই তো এই রোগের চিকিৎসায় প্রথমে জীবনযাত্রা পরিবর্তনের পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা। সেই সঙ্গে প্রয়োজনে ওষুধ খেতেও বলেন। এই নিয়মগুলি মানলে কাজ হয় ঠিকই। কিন্তু একবার প্রেসারের ওষুধ খাওয়া শুরু করলে সারা জীবন সেই ওষুধ খেয়ে যেতে হয়। তাই তো এই প্রবন্ধে এমন কিছু খাবারের প্রসঙ্গে আলোচনা করা হল, যা নিয়মিত খেলে রক্তচাপ একেবারে নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। তাই আপনিও যদি এই রোগের শিকার হয়ে থাকেন, তাহলে এই ঘরোয়া চিকিৎসা পদ্ধতিটিকে একবার কাজে লাগিয়ে দেখতে পারেন। উপকার যে মিলবে, তা বলাই বাহুল্য।

এক্ষেত্রে যে যে খাবরগুলি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে, সেগুলি হল...

১. ওটস:

১. ওটস:

উচ্চ এবং নিম্ন, দুই ধরনের রক্তচাপকে স্বাভাবিক করতে এই খাবারটির কোনও বিরল্প হয় না বললেই চলে। এখানেই শেষ নয়, হজম ক্ষমতার উন্নতিতেও ওটস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

২. আদা:

২. আদা:

এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট প্রপাটিজ, যা রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে নানাভাবে সাহায্য করে। তাই তো যাদের এমন সমস্যা রয়েছে, তারা দিনে ১-২ বার আদা চা খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন অল্প দিনেই শরীর চাঙ্গা হয়ে উঠবে।

৩. ডার্ক চকোলেট:

৩. ডার্ক চকোলেট:

এতে রয়েছে কোকো, যা রক্ত চাপ কমানোর পাশপাশি নানাবিধ হার্টের রোগ আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও কমায়। তাই যারা অল্প বয়স থেকেই নানা ধরনের লাইফ স্টাইল ডিজিজে আক্রান্ত, তারা এই খাবারটি খাওয়ার অভ্যাস করুন। উপকার পাবেন।

৪. তিল:

৪. তিল:

তিল তেল বিশেষ কিছু অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। সেই সঙ্গে রয়েছে ভিটামিন-ই। এই সবকটি উপাদানই রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে দারুন কাজে আসে।

৫. মূলা:

৫. মূলা:

শুধু মূলা নয়, পাতা সমেত এই সবজিটি খেলে তবেই ব্লাড প্রেসার একেবারে হাতের মুঠোয় চলে আসে। আসলে মূলায় রয়েছে পটাশিয়াম, যা শরীরে নুনের পরিমাণকে নিয়ন্ত্রণে রাখার মধ্যে দিয়ে রক্তচাপকে স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।

৬. বেদানা:

৬. বেদানা:

এতে উপস্থিত পলিফেনোলিক অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, শিরা-উপশিরাকে প্রসারিত করে। ফলে রক্ত সরবরাহ বেড়ে যায়। আর এমনটা হলেই স্বাভাবিক হতে শুরু করে রক্তচাপ।

৭. তুলসি:

৭. তুলসি:

তুলসি পাতায় রয়েছে ইউজেনল নামে একটি উপাদান, যা অল্প দিনেই ব্লাড প্রেসারকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।

৮. সজনে:

৮. সজনে:

এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় পটাশিয়াম। কী কাজে আসে এই খনিজটি? এটি শরীরে সোডিয়ামের মাত্রা কমিয়ে ব্লাড প্রেসারকে স্বাভাবিক লেভেল নিসে। তাই তো প্রেসারের রোগীদের নিয়মিত সজনে খাওয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকেরা।

৯. টমাটো:

৯. টমাটো:

এই সবজিটিতে রয়েছে লাইকোপেন নামে একটি উপাদান, যা শরীরে বাজে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর পাশপাশি রক্ত চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

১০. রসুন:

১০. রসুন:

অপনি কি উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছেন? তাহলে আজ থেকেই রসুন খাওয়া শুরু করুন। কারণ এটি দ্রুত রক্তচাপ কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। আসলে রসুনে উপস্থিত অ্যালিসিন নামে একটি উপাদান ব্লাড প্রসার স্বাভাবিক করতে নানাভাবে সাহায্য করে।

Read more about: শরীর, রোগ
English summary
The world went woke up to a shocker when on Thursday, the American College of Cardiology and the American Heart Association announced the fresh guidelines on Hypertension and said that anything over 130/80 should be classed as treatable high blood pressure. Up until now, hypertension was defined as a condition that triggered a pressure of over 140 millimetres of mercury (mmHg) when the heart pumps, known as systolic pressure, and 90 mmHg when the heart is between beats. But according to the latest evidence, the experts noted that with each 20 mmHg increase in systolic pressure, the risk of death from heart attacks and strokes doubles. Hence, the association said that anything over 130/80 should be classed as treatable high blood pressure. According to the new guidelines, over seven million more people in England would be now be classed as having high blood pressure. If left untreated, High blood pressure can cause countless problems like diabetes, stroke, heart disease, kidne yfailure and even death!
Story first published: Saturday, November 25, 2017, 16:10 [IST]
Please Wait while comments are loading...