খালি পেটে গরম জল পান জরুরি কেন জানেন?

Subscribe to Boldsky

সকাল ঘুম থেকে উঠেই ফেসবুক চেক করা, নৈব নৈব চ! নয় গান শোনা বা বই পড়া। তাহলে কী করা মাস্ট? প্রথম কাজ হবে অবশ্যই গরম গরম জল পান করা। কিন্তু কেন?

পৃথিবীর সবথেকে প্রচীন দুই চিকিৎসা শাস্ত্র, আয়ুর্বেদ এবং চিনা চিকিৎসা বিদ্যা অনুসারে আমাদের শরীরের ভাল-মন্দ অনেকাংশেই নির্ভর করে কী ধরনের জল খাওয়া হচ্ছে এবং কতটা পরিমাণে খাওয়া হচ্ছে তার উপর। কারণ খেয়াল করে যদি দেখেন, তাহলে বুধতে পারবেন আমাদের শরীরের সিংহভাগই জল দিয়ে তৈরি। তাই তো পর্যাপ্ত জল পান করা জরুরি। তবে বিষয়টা এখানেই থেকে থাকে না। প্রচীন এবং আধুনিক, উভয় চিকিৎসা বিজ্ঞানই মেনে নিয়েছে ঠান্ডা জলের পরিবর্তে গরম জল পান করলে শরীরের অনেক উপকার হয়, বিশেষত সকাল বেলা খালি পেটে। এক্ষেত্রে যে যে উপকারগুলি পাওয়া যায়, সেগুলি হল...

১. কনস্টিপেশনের প্রকোপ কমে:

১. কনস্টিপেশনের প্রকোপ কমে:

আপনার কাছে সকাল মানেই কি যন্ত্রণা এবং কষ্ট? তোহলে তো খালি পেটে গরম পানি পান করা মাস্ট! কারণ এমনটা করলে বাওয়েল মুভমেন্টের উন্নতি ঘটে। সেই সঙ্গে শরীরের অন্দরে জমে থাকা ময়লা সব বেরিয়ে যাওয়া। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমে যেতে বাধ্য হয়। সেই সঙ্গে তলপেটে যন্ত্রণা, বদ-হজম এবং অন্যান্য পেটের রোগের প্রকোপও হ্রাস পায়।

২. ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়:

২. ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায়:

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে সক্কাল সক্কাল গরম জল খেলে শরীরের তাপমাত্রা বেড়ে যায়। ফলে রক্তের সঙ্গে মিশে থাকা বিষাক্ত টক্সিক উপদান ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে যেতে শুরু করে। এমনটা হওয়া মাত্র ত্বকের ঔজ্জ্বল্য যেমন বৃদ্ধি পায়, তেমনি শরীরও রোগমুক্তির পথে কয়েক ধাপ সামনের দিকে এগিয়ে যায়।

৩. হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:

৩. হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:

যেমনটা আগেও আলোচনা করা হয়েছে যে খালি পেটে গরম জল পান করলে দেহের তাপমাত্র বেড়ে যায়। ফলে শরীরকে অতিরিক্ত মাত্রায় কাজ করে তাপমাত্রকে স্বাভাবিক পর্যায়ে নিয়ে আসতে হয়। এমনটা হওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটে। সেই কারণেই তো আয়ুর্বেদ চিকিৎসকেরা বেশি ঝাল-মশলা দেওয়া খাবার খাওয়ার পর এক কাপ গরম জল খাওয়া পরামর্শ দিয়ে থাকেন। কারণ এমনটা করলে খাবার হজম হতে কোনও সমস্যা হয় না।

৪.লিভার এবং কিডনি ফাংশনের উন্নতি ঘটে:

৪.লিভার এবং কিডনি ফাংশনের উন্নতি ঘটে:

বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গেছে এমটি স্টমাকে গরম জল খেলে লিভার এবং কডনির কর্মক্ষমতা বাড়তে শুরু করে। ফলে একদিকে যেমন মেটাবলিজম সিস্টেমের উন্নতি ঘটে, তেমনি সার্বিকভাবে শরীরও চাঙ্গা হয়ে ওঠে। আসলে হার্টের পর কিডনি এবং লিভারই হল শরীরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। তাই লিভার এবং কিডনি যদি ঠিক থাকে, তাহলে শরীর বাবাজিকে নিয়ে আর কোনও চিন্তাই থাকে না।

৫. পিরিয়োডের কষ্ট কমায়:

৫. পিরিয়োডের কষ্ট কমায়:

একথা তথ্য ভিত্তিক গবেষাণায় ইতিমধ্যেই প্রমাণিত হয়ে গেছে যে মাসের বিশেষ সময়ে যদি নিয়মিত খালি পেটে গরম জল পান করা যায়, তাহলে দারুন উপকার মেলে। আসলে গরম জল খাওয়া মাত্র সারা শরীরে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তের সরবরাহ বেড়ে যায়। ফলে স্বাভাবিকভাবেই পিরিয়োডের কষ্ট কমতে শুরু করে।

৬. ত্বকের বয়স কমায়:

৬. ত্বকের বয়স কমায়:

বয়স বাড়লেও ত্বকে থাকবে যৌবনের ছোঁয়া, এমনটাই কি আপনার স্বপ্ন? তাহলে কাল সকাল থেকেই খালি পেটে গরম জল খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন স্বপ্ন পূরণ হতে সময় লাগবে না। কারণ এমনটা করলে নানাভাবে শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিক উপাদান বেরিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ত্বক সুন্দর এবং তরতাজা হয়ে ওঠে।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: রোগ শরীর
    English summary

    সকাল ঘুম থেকে উঠেই ফেসবুক চেক করা, নৈব নৈব চ! নয় গান শোনা বা বই পড়া। তাহলে কী করা মাস্ট? প্রথম কাজ হবে অবশ্যই গরম গরম জল পান করা। কিন্তু কেন? সে উত্তরই পাবেন এই প্রবন্ধে!

    The world is made up of two types of people, simplistically speaking. Those who like their water warm and those who like to throw in plenty of ice cubes. Water plays an essential role in our well-being, from skin care to good digestion and even avoiding migraines, there is a lot that merely the consumption of water can fix. However, according to science, both ancient and modern, the temperature of water when it is consumed is critical as well.
    Story first published: Wednesday, October 4, 2017, 10:28 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more