For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

(ছবি) এই খাবারগুলি স্বাস্থ্যকর মনে হলেও আসলে তা নয়

|

আজকালকার ব্যস্ততার বাজারে কাটাকুটি, বাটাবুটির সময় কার আছে বলুন তো। সবাই তাই ধীরে ধীরে প্যাকেটের খাবারেই ঝুঁকছে। রসুন ছাড়ানো পাওয়া যাচ্ছে। সবজি ছোট টুকরো আকারে পাওয়া যাচ্ছে। ফলের জুসও বোতলে পাওয়া যাচ্ছে। তার উপর চাইলে ফ্যাট ফ্রি, সুগার ফ্রি (স্বাদে কিন্তু মিষ্টি একটুও কম নয়) কতধরণেরই না খাবার পাওয়া যায়।

তবে ঝঞ্ঝাট কমানোর জন্য এইসব খাবার দিনের পর দিন শরীরের ঝঞ্ঝাট কিন্তু আমরা ক্রমশই বাড়িয়ে চলেছি। এই ধরণের খাবারের প্যাকেটে ফ্য়াট ফ্রি বা সুগার ফ্রি লেখা থাকায় আমরা ভাবতে শুরু করু এগুলি শরীরের পক্ষে ভাল। তবে তা একেবারেই নয়।

আসুন দেখে নেওয়া যাক কোন কোন খাবারগুলি আমরা স্বাস্থ্যকর ভেবে ভুল করি

সুগার ফ্রি কিউব

সুগার ফ্রি কিউব

ডায়বেটিস রোগীদের চা বানানোর সময় চিনির বদলে আমরা অধিকাংশই সুগার ফ্রি কিউব, ট্যাবলেট, পাউডার বা লিকুইড ব্যবহার করি। কিন্তু এই সুগার ফ্রি শরীরের পক্ষে মোটেই ভাল না। বিশেষজ্ঞদের মতে অতিরিক্ত সুগার ফ্রি ট্যাবলেট খেলে ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

স্যালাড ড্রেসিং

স্যালাড ড্রেসিং

স্যালাড শরীরের পক্ষে অত্যন্ত উপকারি। কিন্তু স্যালাড খাওয়ার জন্য আমরা বাজার থেকে রেডিমেড স্যালাড ড্রেসিং কিনে আনি। যা শরীরের পক্ষে মোটেই ভাল না। কারণ এর মধ্যে ট্রান্স ফ্যাট, কেমিক্যাল প্রিজারভেটিভ থাকে। যা স্যালাডকে সুস্বাদু করলেও আপনার শরীরকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এর থেকে বাড়িতেই বানিয়ে নিন স্যালাড ড্রেসিং।

লো ফ্যাট পিনাট বাটার

লো ফ্যাট পিনাট বাটার

বাদামের মধ্যে বিভিন্ন রকমের স্বাস্থ্যকর ফ্যাট থাকে। বাদাম থেকে যদি সেই উপকারী ফ্যাটই বের করে দেওয়া হয় তাহলে কোনও কাজেই লাগে না পিনাট বাটার।

প্যাকেটের ফ্রুট জুস

প্যাকেটের ফ্রুট জুস

যতই সংস্থা গুলি দাবি করুক না কেন তাদের কোম্পানির ফ্রুট জুস আসল ফল দিয়ে তৈরি হয়েছে, তা আসলে মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি ছাড়া আর কিছুই না। আসলে এই প্যাকেেটজাত ফলের রসে প্রচুর পরিমাণে সুগার সিরাপ, কৃত্রিম রং এবং কেমিক্যাল প্রিজারভেটিভ থাকে যা শরীরের পক্ষে খারাপ।

ফ্রোজেন সবজি

ফ্রোজেন সবজি

ফ্রোজেন সুইট কর্ন, কড়াইশুটির চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। কারন খোসা ছাড়ানো সিদ্ধ করতে অলস বোধ করেন অনেকে। কিন্তু এই ধরনের ফ্রোজেন সবজির প্রক্রিয়াকরণের সময়ই যাবতীয় পুষ্টিগত গুনাগুন বেরিয়ে যায়। ফলে এই ধরণের খাবার শরীরের ক্ষতি বই উপকার করে না।

ফ্লেভারড দই

ফ্লেভারড দই

দই শরীরের পক্ষে ভাল আমরা সবাই জানি। কিন্তু আজকাল যে আম দই, স্ট্রবেরি দইয়ের মতো ফ্লেভারড দই পাওয়া যায় তা মোটেই শরীরের পক্ষে ভাল না। কারণ এতে কৃত্রিম স্বাদ যোগ করা হয়। এই ধরণের ফ্লেভারড খাবার মোটেই শরীরের পক্ষে উপযোগী নয়।

লো ফ্যাট মাখন

লো ফ্যাট মাখন

ফ্যাট থেকেই মূলত মাখন তৈরি হয়। মাখন থেকে ফ্যাট বাদ দেওয়ার অর্থ হল, প্রচুর পরিমানে রাসায়নিক পদার্থের ব্যবহার করা। ফলে যেমন এর মধ্যে থেকে পুষ্টিগত গুনাগুন নষ্ট হয়ে যায় তেমনই এই ধরণের দ্রব্য দামিও হয়।

ফ্যাট ফ্রি দই

ফ্যাট ফ্রি দই

ফ্যাট ফ্রি মাখন ও পিনাট বাটারের মতো ফ্যাট ফ্রি দইও শরীরের পক্ষে ভাল নয়।

স্লিমিং ট্যাবলেট

স্লিমিং ট্যাবলেট

রোগা হওয়া বা শরীরে মাংস লাগানোর জন্য একাধিক ওষুধ পাওয়া যায় বাজারে। কিন্তু এই ধরনের ওষুধ শরীরের পক্ষে হানিকর হয়। কারণ এই ধরণের ওষুধের প্রচুর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে।

English summary

Foods That Seem To Be Healthy But Are Not

Foods That Seem To Be Healthy But Are Not
Story first published: Tuesday, June 23, 2015, 11:32 [IST]
X