হাঁটুর অস্ত্রোপচার সম্পর্কে আপনার যেসব কথা জেনে রাখা প্রয়োজন

By: ANINDITA SINHA
Subscribe to Boldsky

বয়স বাড়ার সাথে সাথে আপনার হাঁটুতে আর্থরাইটিস হয়ে যেতে পারে, যা শেষমেশ হাঁটুর কাঠামোর ক্ষতি করে ও অস্ত্রোপচারের প্রয়োজনকেও ডেকে আনতে পারে। বা হতে পারে, আপনি খেলাধুলায় খুব সক্রিয় এবং হাঁটুর কাঠামো বা কার্টিলেজে আঘাতে পেয়েছেন যার জন্য একটি অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন হতে পারে।

আপনার হাঁটুর কি ধরণের অস্ত্রোপচারের প্রয়োজন তার ওপরেই ভিত্তি করে আপনার রিকোভারির সময়। এবং উন্নত প্রযুক্তির সাহায্য আজকাল রিকোভারিও অনেক দ্রুত হয়, আর আপনি নিজের পায়ে উঠে দাঁড়াতে পারবেন ও নুন্যতম ব্যথা নিয়েও আবার চলাফেরা শুরু করে দিতে পারবেন। আপনাকে যদি হাঁটুর অস্ত্রোপচারের মধ্য দিয়ে যেতে হয় তবে অনেকগুলি বিষয় রয়েছে যা আপনার জেনে রাখা প্রয়োজন।

 হাঁটুর অস্ত্রোপচার সম্পর্কে আপনার যেসব কথা জেনে রাখা প্রয়োজ

প্রাথমিকভাবে, হাঁটুর সমস্যাকে চিহ্নিত করতে অথবা কাঠামোটিকে মেরামত করতে বা ভেঙে যাওয়া কার্টিলেজ বা হাড় সরিয়ে ফেলার জন্য অর্থোস্কোপি (Arthroscopy) করা হয়ে থাকে। হাঁটুর ভেতরে দৃশ্যটি পাওয়ার জন্য সাধারণত হাঁটুর চারপাশে কয়েকটি কাঁটাছেড়া করা হয়। এটি হাসপাতালের বহির্বিভাগীয় একটি প্রক্রিয়া এবং এর সম্পূর্ণ রিকোভারির সময় ৬-৮ সপ্তাহ।

অর্থোপ্লাস্টি আরেক ধরণের প্রক্রিয়া যাতে জয়েন্ট প্রতিস্থাপিত বা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তাকে পুনর্নির্মিত করা হয়। এই অস্ত্রোপচারের পর বাড়ি ফেরার আগে, নিজের পায়ে দাঁড়াতে সক্ষম হওয়ার জন্য ও হাঁটুর ওপর নিজের ওজন দিতে আর ক্র্যাচের সাহায্য কিভাবে হাটতে হবে তা শেখার জন্য আপনাকে প্রতিদিন ফিজিক্যাল থেরাপি চিকিৎসার সাহায্য নিতে হবে।

 হাঁটুর অস্ত্রোপচার সম্পর্কে আপনার যেসব কথা জেনে রাখা প্রয়োজ

এই কৃত্রিম জয়েন্টের ওপর পুরোপুরি ভর দিতে প্রায় ৩ সপ্তাহ সময়ের প্রয়োজন হয়। এই প্রক্রিয়াটিতে সাধারণত, হাঁটুকে তার নতুন সিন্থেটিক অংশটির সাথে নড়াচড়া করানোকে নতুন করে রপ্ত করা শেখার জন্য, রোগীদের একটা ফিজিও থেরাপির কোর্সের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়।

হাঁটুর প্রতিস্থাপন একটি সময়সাপেক্ষ হাঁটুর অস্ত্রোপচার যাতে মূলত, সমগ্র হাঁটুটিই বা তার একটি বড় অংশ কৃত্রিম উপাদান দ্বারা প্রতিস্থাপিত হয়।

উপরে উল্লেখিত পদ্ধতির মধ্য দিয়ে যাওয়ার পর, সবসময় রোগীকে অস্ত্রোপচার পরবর্তী কাজকর্ম, চিকিৎসা ও অস্ত্রোপচার পরবর্তী হাঁটুর যত্ন সম্পর্কে অবশ্যই তার চিকিৎসকের পরামর্শ অনুসরণ করে চলতে হবে। এমন অনেকগুলিই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে যেগুলি করে আপনি, বিদ্যমান পেশী, কার্টিলেজ ও কাঠামোর পুনর্গঠন ও শক্তি বৃদ্ধি কে সহায়তা করার মধ্য দিয়ে নিজের হাঁটুকে সারিয়ে তুলতে সাহায্য করতে পারেন।

নিজের খাদ্য তালিকায় প্রোটিন অন্তর্ভুক্ত করুন। প্রোটিন পেশীর পুনর্নির্মাণে সাহায্য করে ও সাথে কোলাজেন তৈরি করতেও সাহায্য করে; এটি সেই উপাদান যার থেকে, লিগামেন্ট ও কার্টিলেজের মতো কানেক্টিভ টিস্যুগুলি তৈরি হয়।

English summary
With more and more people suffering from problems related to the knees, knee surgery has become very common nowadays. Read on to know about the different types of knee surgeries.
Story first published: Monday, November 28, 2016, 16:15 [IST]
Please Wait while comments are loading...