সুস্থ থাকার পাঁচ সিক্রেট!

By: Swaity das
Subscribe to Boldsky

সুস্থ থাকতে কে না চান। কিন্তু থাকতে পারেন কজন? ফলে শরীরে নানা রোগ এবং সমস্যা দেখা দেয়। ধীরে ধীরে শরীরের রোগ বাসা বাঁধে মনেও। আমরা অসুস্থ হই মূলত খাদ্যাভ্যাসের সমস্যায় এবং অসময়ে ঘুম এবং শরীর চর্চা না করার কারণে। তাই সুস্থ থাকতে আমাদের সঠিক ভাবে জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া উচিত। আর তার জন্য মেনে চলতে হবে কতগুলি নিয়ম। যেমন...

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন

শরীরের ওজন সঠিক থাকলে অনেক রকম রোগই বাসা বাঁধতে পারে না। এই কারণে শরীরের ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখা খুবই জরুরি। প্রতিদিন নিয়ম করে ব্যায়াম বা জিম করলে একটু একটু করে অনেকটাই ওজন কমিয়ে ফেলা যায়। তাছাড়া ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকলে হার্ট ভাল থাকে। তাই তো ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে সবার আগে আমাদের খাদ্যাভ্যাসে অনেক পরিবর্তন আনা উচিত, যেমন- প্রতিদিন বেশি করে ফল, সবজি, শস্যদানা খেতে হবে।

শরীরকে আদ্র রাখুন

শরীরকে আদ্র রাখুন

মানুষের শরীরের ৬০ শতাংশ তৈরি হয় জল দিয়ে। এই কারণে পরিমিত হারে জল পান করলে শরীর সুস্থ এবং আদ্র থাকতে পারে। পরিমিত জল পান করলে শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান বেড়িয়ে যায়। ফলে শরীরে সহজে কোনও রোগ বাসা বাঁধতে পারে না। কারণ যে খাবার হজম হয় না সেই খাবারই আমাদের শরীরে ফ্যাট, বিষাক্ত উপাদান জমা করতে সাহায্য করে। ফলে দিনে দিনে নানারকমের রোগ আমাদের শরীরে দেখা দেয়। তাই নিজেকে সুস্থ রাখতে জল পান করা একান্ত জরুরি।

যোগব্যায়াম

যোগব্যায়াম

বহু প্রাচীনকাল থেকেই ভারতবর্ষে যোগ চর্চা করা হয়। বর্তমানে শুধু ভারতবর্ষ নয়, সারা পৃথিবীতেই যোগ ব্যায়াম অতি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। যারা নিয়মিত যোগ চর্চা করেন, তারা শরীর এবং মনের দিক থেকে ভীষণভাবেই সুস্থ থাকেন। এর কারণ যোগ ব্যায়ামের মাধ্যমে শরীরে শক্তি বৃদ্ধি হয়, সেই সঙ্গে ভাল অভ্যাস গঠন করতে সাহায্য করে। এছাড়াও, নিয়মিত যোগ করলে শরীর সুস্থ এবং ফুরফুরে থাকে। অন্যদিকে শরীরের স্থিতিস্থাপকতা বৃদ্ধি করতে, মাংসপেশি সচল রাখতে এবং ওজন কমাতেও যোগ ব্যায়াম ভীষণভাবে সাহায্য করে।

প্রাতরাশ করুন

প্রাতরাশ করুন

সুস্থ থাকতে প্রাতরাশ মিস করা কোনও মতেই চলবে না। কারণ এটি সারাদিনের জন্য শরীরের কাজকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করে। প্রাতরাশ না করলে পিত্ত দোষ হতে পারে, যা মন এবং শরীরের ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। আর এমনটা হলে শরীর যে সুস্থ থাকতে না, তা কী আর বলে দিতে হবে। প্রসঙ্গত, প্রাতরাশ করার সময় নিয়ম মেনে ফল, সবজি ইত্যাদি খাওয়া উচিত। এতে হজম প্রক্রিয়ার উন্নতি ঘটবে এবং শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান বেরিয়ে যাবে। এছাড়াও, প্রাতরাশ করলে শরীরে এনার্জি বৃদ্ধি পাবে।

পর্যাপ্ত ঘুম:

পর্যাপ্ত ঘুম:

শরীর সুস্থ রাখতে একটি নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমানো এবং নির্দিষ্ট সময়ে ঘুম থেকে ওঠা উচিত। সময় ধরে ঘুমালে শরীর ভাল থাকে। সবথেকে বড় কথা আমাদের স্নায়ুবিক নানা রোগ প্রতিরোধ করার জন্য নির্দিষ্ট পরিমাণে ঘুমানো খুবই দরকার। এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, হার্টের সমস্যা হতে পারে না। এছাড়াও ভাল ঘুম হলে আমাদের চিন্তাশক্তির উন্নতি ঘটে।

এগুলি নিয়মগুলি মেনে চললে শরীর সুস্থ তো থাকবেই, সেই সঙ্গে মনও চাঙ্গা হয়ে উঠবে। তাই তো আজ থেকেই নিজেকে ভাল রাখতে জীবনযাপন করুন নিয়ম মেনে।

Read more about: রোগ, শরীর
English summary
Maintaining your health in a good state is one most precious gifts you can give to yourself. Staying healthy is a choice that most people should make if they wish to live a life without complications and worries. Most people correlate healthy living with eating habits, which is true, but at the same time staying impractically thin is not healthy. Several things can be a part of you which can aid in healthy living. Remember, even the slightest change in your lifestyle habits will have a profound impact on your health.
Story first published: Friday, November 10, 2017, 17:25 [IST]
Please Wait while comments are loading...