অল্প সময়ে ফর্সা ত্বক পেতে চান নাকি? তাহলে কাজে লাগাতে ভুলবেন না এই ঘরোয়া পদ্ধতিগুলিকে!

Posted By:
Subscribe to Boldsky

প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে। তবু গরমের মাত্রা কমছে কই! তাই তো ঘামের প্যাচপ্যাচেনির চোটে সৌন্দর্যের দফারফা হতে সময় লাগছে না। তার উপর ঘাম ডেকে আনছে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াদের। ফলে নানাবিধ স্কিন ডিজিজের আক্রমণ তো রয়েছেই! তাই তো এই প্রবন্ধে এমন কিছু ফেস মাস্ক সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যাদেরকে কাজে লাগালে ফর্সা ত্বকে পাওয়ার স্বপ্ন পূরণ হতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে গরমের কারণে ত্বকের কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যায় কমে।

এই সব ঘরোয়া ফেস প্যাকগুলি বানাতে কী কী উপাদানের প্রয়োজন পরবে?

১. কলা এবং বাদাম তেলের মিশ্রন:

১. কলা এবং বাদাম তেলের মিশ্রন:

চটজলদি যদি ত্বককে ফর্সা করে তুলতে হয়, তাহলে এই ফেস প্যাকটির কোনও বিকল্প নেই বললেই চলে। আসলে এই দুই প্রকৃতিক উপাদানে উপস্থিত ভিটামিন সি, বি৬ এবং আরও সব উপকারি উপাদান ত্বকের অন্দরে প্রবেশ করার পর এমন খেল দেখায় যে কোলাজেনের মাত্রা বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। ফলে স্কিন টোনের উন্নতি ঘটতে সময় লাগে না। প্রসঙ্গত, এই ফেস প্যাকটি বানাতে প্রয়োজন পরবে ১ টা কলা এবং ১ চামচ বাদাম তেলের। এই দুটি উপাদান এক সঙ্গে মিশিয়ে বানানো পেস্টটা মুখে লাগিয়ে কম করে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। সময় হয়ে গেলে ধুয়ে ফেলতে হবে মুখটা। এইভাবে সপ্তাহে ২-৩ দিন ত্বকের পরিচর্যা করলেই দেখবেন কেল্লা ফতে!

২. টুথপেস্ট আর নুনের স্কার্ব:

২. টুথপেস্ট আর নুনের স্কার্ব:

অল্প করে টুথপেস্ট নিয়ে তার সঙ্গে পরিমাণ মতো নুন মিশিয়ে নিন। ইচ্ছা হলে এতে এক টিমটে হলুদ গুঁড়োও মেশাতে পারেন। সবকটি উপকরণ ভাল করে মিশে যাওযার পর সেটি মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই ফেস স্কার্বটি ত্বককে উজ্জ্বল করে। সেই সঙ্গে ব্রণরও প্রকোপও কমায়। প্রসঙ্গত, ত্বকের দাগ কমিয়ে ফেলতেও এই ঘরোয়া ফেস প্যাকটি দারুন কাজে আসে।

৩. নারকেল তেল এবং চিনির স্কার্ব:

৩. নারকেল তেল এবং চিনির স্কার্ব:

অল্প করে চিনি নিয়ে তাতে ১ চামচ নারকেল তেল আর ১ চামচ অলিভ অয়েল মেশান। ভাল করে সবকটি উপকরণ মিশিয়ে নিয়ে সারা মুখে লাগিয়ে কম করে ১০ মিনিট মাসাজ করুন। তারপর হালকা গরম জল দিয়ে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। প্রসঙ্গত, এই ফেস স্কার্বটি ত্বকের উপরিঅংশে জমে থাকা ময়লা পরিষ্কার করে দেয়। ফলে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওটে। আর নারকেল তেল এক্ষেত্রে ত্বকের উপরে ব্যাকটেরিয়া যাতে ঘর বানাতে না পারে, সেদিকে খেয়াল রাখে। সেই সঙ্গে ত্বককে প্রাণবন্তও করে তোলে।

৪. অ্যালো ভেরা মাস্ক:

৪. অ্যালো ভেরা মাস্ক:

ব্রণ এবং শুষ্ক ত্বকের সমস্যা কমাতে এই ফেস প্যাকটি দারুন কাজে আসে। আসলে অ্যালো ভেরাতে রয়েছে অ্যান্টি-ব্য়াকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি প্রপাটিজ, যা ত্বকের অন্দরের প্রদাহ এবং সংক্রমণ কমিয়ে স্কিনকে সুন্দর কোরে তোলে। সেই সঙ্গে তৌলাক্ত ত্বকের সমস্যাও কমায়। এক্ষেত্রে পরিমাণ মতো অ্যালো ভেরা জেল নিয়ে তাতে ১ চামচ যে কোনও একটা এসেনশিয়াল তেল এবং ১ চামচ চিনি মিশিয়ে নিন। যখন দেখবেন উপকরণগুলি ভাল করে মিশে গেছে, তখন সেটি মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে দুবার এই প্যাকটি মুকে লাগালে ভাল ফল পাবেন।

৫. ওটমিল এবং দই:

৫. ওটমিল এবং দই:

এক কাপ ওটমিলের সঙ্গে হাফ কাপ দই মেশান। তারপর তাতে ১ চামচ হলুদ গুঁড়ো এবং ১ চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। এবার সবকটি উপকরণ ভাল করে মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। সারা মুখে এই পেস্টটা কিছুক্ষণ লাগিয়ে রেখে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। প্রসঙ্গত, ওটমিল এবং দই ত্বককে উজ্জ্বল করে। শুধু তাই নয়, ত্বকের উপরে জমে থাকা মৃত কোষের আবরণ সরিয়ে দিয়ে মুখের সৌন্দর্যও বাড়ায়।

৬. পেঁপে এবং চিনির স্কার্ব:

৬. পেঁপে এবং চিনির স্কার্ব:

পেঁপেতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় অ্যাকটিভ এনজাইম, যা কোলাজেনের মাত্র বৃদ্ধি করে ত্বককে সুন্দর করে তোলে। কীভাবে বানাতে হবে এই ফেস স্কার্বটি? খুব সহজ! অল্প করে পেঁপে নিয়ে সেটি চটকে নিন। তারপর তাতে অল্প করে চিনি এবং অলিভ অয়েল মিশিয়ে ভাল করে মেখে নিন সবকটি উপকরণ। তাহলেই আপনার ফেস স্কার্ব রেডি হয়ে যাবে। এবার ফেস প্যাকটা সারা মুখে লাগিয়ে মাসাজ করুন। দিনে ২-৩ বার এই স্কার্বটি মুখে লাগালে দেখবেন অল্প দিনেই আপানরা ত্বক উজ্জ্বল এবং সুন্দর হয়ে উঠবে।

৭. কফি আর নারকেল তেলের স্কার্ব:

৭. কফি আর নারকেল তেলের স্কার্ব:

পরিমাণ মতো কফি বিন নিয়ে ব্লেন্ডারে ফেলে পাউডার বানিয়ে ফেলুন। তারপর সেই পাউডারের সঙ্গে ১-২ চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে নিন। দুটি উপকরণ ভাল করে মিশে যাওয়ার পর সেটি মুখে লাগিয়ে ভাল করে মাসাজ করুন। কফিতে উপস্থিত ক্যাফিন ডার্ক সারকেল কমায়। সেই সঙ্গে ত্বককে প্রাণবন্ত করে তোলে। আর নারকেল তেল ত্বকের শুষ্কতা দূর করতে সাহায্য করে।

৮. মেয়োনিজ আর হলুদ গুঁড়ো:

৮. মেয়োনিজ আর হলুদ গুঁড়ো:

মেয়োনিজে প্রচুর মাত্রায় ফ্যাটি অ্যাসিড থাকার কারণে এটি ত্বককে উজ্জ্বল এবং প্রাণবন্ত করে তুলতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কয়েক চামচ ময়োনিজের সঙ্গে ১ চামচ হলুদ গুঁড়ো এবং অ্যালো ভেরা জেল মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এটি মুখে লাগিয়ে ভাল করে মাসাজ করার পর ঠান্ডা জল দিয়ে সারা মুখটা ধুয়ে ফেলুন। দিনে কম করে দুবার এই ফেস প্যাকটি মুখে লাগালে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে।

৯. ভাত এবং মধুর মিশ্রন:

৯. ভাত এবং মধুর মিশ্রন:

অল্প করে ভাত নিয়ে ব্লেন্ডারে ফেলে পাউডার বানিয়ে ফেলুন। তারপর তাতে ১ চামচ মধু দিয়ে ভাল করে দুটি উপকরণ মেশান। এবার এই স্কার্বটি সারা মুখে লাগিয়ে কম করে ১০ মিনিট মাসাজ করুন। সময় হয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখটা ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। এই ফেস স্কার্বটি মৃত কোষেদের ধুয়ে ফেলে ত্বককে উজ্জ্বল করে। সেই সঙ্গে মধুতে উপস্থিত অ্যান্টিভাইরাল এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: শরীর রোগ
    English summary

    Top 9 Natural Face Packs for Skin Whitening

    Every woman dreams of having picture perfect, flawless skin and in an endeavour to turn this dream into reality, we try out almost all the beauty and skincare products available in the market, hardly knowing that in this process we are doing more harm than good to our skin. The harsh chemicals and bleach present in these products might provide an instant glow to the skin, but they cause far-reaching negative effects on the skin in the long run. Therefore, nourishing natural remedies is the best solution to the question of how to protect your face from the sun. In this article, we have listed the best face packs for glowing skin that aid in improving skin health and lightening skin tone.
    Story first published: Wednesday, July 4, 2018, 10:00 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more