For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

শ্রাবণ মাসে রাশি অনুযায়ী কেমন ভাবে শিবের পুজো করলে মিলবে বেশি মাত্রায় ফল?

|

আজ, ২৮ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে শ্রাবণ মাস। শিবপুরাণ অনুসারে এই মাসে একাগ্রতার সঙ্গে শিবের পুজো করলে একাধিক সুফল মিলতে পারে। এমনকী যে কোনও সমস্যা মিটে যেতেও সময় লাগে না। শুধু কী তাই! শাস্ত্র মতে এই বিশেষ সময়ে দেবাদিদেবের অরাধনা করলে গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। ফলে জীবনের ছবিটা বদলে যেতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে কর্মক্ষেত্রে থেকে সামাজিক জীবন, সবক্ষেত্রেই সম্মানবৃদ্ধির সম্ভাবনা যায় বেড়ে। মেলে আরও অনেক উপকার। যেমন ধরুন, অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটে, পরিবারে সুখ এবং সমৃদ্ধির ছোঁয়া লাগে এবং যে কোনও ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কা যায় কমে।

তবে এক্ষেত্রে একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। তা হল প্রতিটি রাশির জাতক-জাতিকাকে আলাদা আলাদা নিয়ম মেনে দেবের পুজো করতে হবে, না হলে কিন্তু কোনও ফলই মিলবে না। আসলে গতকাল চন্দ্র গ্রহণ হওয়ার পর থেকে প্রত্যেকেরই জন্মকুষ্টিতে গ্রহ-নক্ষত্রের অবস্থানে পরিবর্তন এসেছে। তাই তো রাশি অনুযায়ী আলাদা আলাদা নিয়ম মেনে এই শ্রাবণ মাসে শিবের পুজো করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা। এখন প্রশ্ন হল, কোন রাশিকে কেমনভাবে ভাবে পুজো করতে হবে দেবাদিদেবের?

১. মেষরাশি:

১. মেষরাশি:

এই রাশিকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে মঙ্গলগ্রহ। তাই তো এই রাশির জাতক-জাতিকাকে শ্রাবণ মাসে শিব ঠাকুরের পুজো করার সময় মধু নিবেদন করতেই হবে। সেই সঙ্গে আখের রস থাকা মাস্ট! আসলে এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে মেষরাশির অধিকারীরা যদি এই দুটি জিনিস দিয়ে দেবের আরাধনা করতে পারেন, তাহলে তাদের মনের ছোট থেকে ছোটতর ইচ্ছা পূরণ হতে সময় লাগে না।

২. বৃষরাশি:

২. বৃষরাশি:

এই রাশির অধিপতি হল শুক্র গ্রাহ। আর যে রাশির উপর শুক্রের প্রভাব জোরদার হয়, তাদের শিব ঠাকুরের পুজো করার সময় ঠান্ডা দুধ এবং দই নিবেদন করা উচিত। এইভাবে প্রতি সোমবার দেবের পুজো করলে জীবন পথে চলতে চলতে কোনও ধরনের সমস্যার সম্মুখিন হওয়ার আশঙ্কা যেমন কমে, তেমনি শরীর চাঙ্গা হয়ে উঠতেও সময় লাগে না। ফলে আয়ু বাড়ে চোখে পরার মতো।

৩. মিথুনরাশি:

৩. মিথুনরাশি:

বুধ গ্রহ এই রাশিকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। তাই তো মিথুনরাশির জাতক-জাতিকারা যদি "ওম নমঃ শিবায়" মন্ত্রটি এক মনে উচ্চারণ করতে করতে দেবাদিদেবকে লাল ফুল এবং বেল পাতা নিবেদন করেন, তাহলে শিব ঠাকুর বেজায় প্রসন্ন হন। আর দেবাদিদেব প্রসন্ন হলে জীবনের ছবিটা বদলে যেতে যে সময় লাগে না, তা কি আর বলার অপেক্ষা রাখে। প্রসঙ্গত, এমনটাও বিশ্বাস করা হয় যে মিথুনরাশির জাতক-জাতিকারা ফলের রস দিয়ে শিব ঠাকুরের পুজো করলেও দারুন ফল পাওয়া যায়।

৪. কর্কটরাশি:

৪. কর্কটরাশি:

এই রাশিকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে চাঁদ। তাই তো এদের শিব ঠাকুরের পুজো করার সময় খেয়াল করে কাঁচা দুধ এব মাখন পরিবেশন করা উচিত। কারণ এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে কর্কটরাশির অধিকারীরা যদি এই দুটি জিনিস দিয়ে সর্বশক্তিমানের অরাধনা করেন, তাদলে চোখ ধাঁধানো সব ফল মেলে।

৫. সিংহরাশি:

৫. সিংহরাশি:

শ্রাবণ মাসে শিব ঠাকুরকে যদি নিমেষে প্রসন্ন করতে হয়, তাহলে দেবের পুজো করার সময় খেয়াল করে মধু এবং গুড় পরিবেশন করবেন। কারণ এই দুটি জিনিস শিব ঠাকুরের বেজায় প্রছন্দের। তাই তো পুরো শ্রাবণ মাসটা যদি সিংহরাশির জাতকেরা এই নিয়ম মেনে পুজো করেন, তাহলে দারুন ফল পাওয়া যায়।

৬. কন্যারাশি:

৬. কন্যারাশি:

এই রাশির অধিপতি হল বুধ গ্রহ। তাই তো বিশেষজ্ঞদের মতে এই রাশির জাতক-জাতিকারা যদি নিয়মিত গঙ্গা জল দিয়ে দেবাদিদেবের অরাধনা করেন, তাহলে দারুন উপকার মলে। এক্ষেত্রে মনের সব ইচ্ছা পূরণ তো হয়ই, সেই সঙ্গে কর্মক্ষেত্রে সফলতার পথও প্রশস্ত হয়। শুধু তাই নয়, যে কোনও ধরনের বিপদ ঘঠার আশঙ্কাও হ্রাস পায়।

৭. তুলারাশি:

৭. তুলারাশি:

এই রাশিকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে শুক্র গ্রহ। তাই তো এই রাশির অধিকারীদের দুধ, দই এবং আখের রস দিয়ে দেবের অরাধনা করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন বিশেষজ্ঞরা। সেই সঙ্গে প্রতিদিন ১০৮ বার পাঠ করতে হবে "ওম নমঃ শিবায়" মন্ত্রটি। প্রসঙ্গত, এই নিয়মগুলি মেনে যদি প্রতি সোমবার শিব ঠাকুরের পুজো করা যায়, তাহলে জীবনে কখনও দুঃখের সম্মুখিন হতে হয় না। শুধু তাই নয়, মেলে আরও অনেক উপকার।

৮. বৃশ্চিকরাশি:

৮. বৃশ্চিকরাশি:

বিশেষজ্ঞদের মতে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের লাল ফুল এবং মধু নিবেদন করে শিব ঠাকুরের পুজো করতে হবে। তবেই কিন্তু মিলবে কাঙ্খিত ফল!

৯. ধনুরাশি:

৯. ধনুরাশি:

এই রাশিকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে বৃহস্পতিগ্রহ। আর যাদের কুষ্টিতে বৃহষ্পতির প্রভাব বেশি থাকে, তাদের দেবের অরাধনা করার সময় সব সময় ঘি, হলুদ ফুল এবং চন্দন পরিবেশন করা উচিত।

১০. মকররাশি:

১০. মকররাশি:

শনিদেব এই রাশির অধিপতি হওয়ার কারণে মকররাশির জাতক-জাতিকাদের সব সময় তিল এবং সরষের তেল দিয়ে শিব ঠাকুরের পুজো করা উচিত। আসলে এমনটা করলে দেবাদিদেব যেমন প্রসন্ন হন, তেমনি শনি দেবও খুশি হন। ফলে নানাবিধ সমস্যায় জীবন দুর্বিসহ হয়ে ওঠার আশঙ্কা কমে।

১১. কুম্ভরাশি:

১১. কুম্ভরাশি:

শ্রাবণ মাসে এই রাশির জাতক-জাতিকাদের যদি শিব ঠাকুরের পুজো করতেই হয়, তাহলে ঠান্ডা দুধ এবং দই দিয়ে দেবের অরাধনা করতে হবে। কারণ এমনটা করলে তবেই দেব প্রসন্ন হবেন। আর এমনটা হলে কী কী সুফল মিলতে পারে, তা নিশ্চয় আর বলে দিতে হবে না।

১২. মীনরাশি:

১২. মীনরাশি:

দেবাদিদেবের আশীর্বাদ লাভ করতে এই রাশির অধিকারীদের আখের রস, মধু, বাদাম, বেল পাতা এবং হলুদ ফুল সহকারে শিব ঠাকুরের পুজো করতে হবে, তবেই কিন্তু মিলবে নানাবিধ উপকার।

Read more about: ধর্ম
English summary

sawan somvar worship lord shiva as per zodiac

It is said that worshipping Lord Shiva brings good luck, name as well as fame. Besides these, it ensures the happiness of the family, long life to one's husband, and a good husband for the unmarried girls. And more so, when he is worshipped as per the zodiac signs. Because the position of the planets at the time of a person's birth plays a vital role in the pujas we perform.
Story first published: Saturday, July 28, 2018, 11:13 [IST]
X