For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বনবাসের সময় মাতা সীতা শিউলি ফুল দিয়ে সাজতেন, জানুন এই ফুলের ধর্মীয় তাৎপর্য

|

বাঙালীর জীবনের সঙ্গে শিউলি ফুলের এক আলাদাই সম্পর্ক। শিউলি ফুল ফোটার সাথে সাথে বাঙালীরাও মেতে ওঠে উৎসবের আনন্দে। শিউলির আগমন, তার সুগন্ধই বলে দেয় খুশির সময় আগত। তবে সম্প্রতি এই গাছ নিয়ে ভারতীয়দের মনে কৌতুহল বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অযোধ্যায় শ্রী রামের জন্মভূমির পূজার পাশাপাশি সেখানে তিনি একটি শিউলি গাছ লাগিয়েছেন। তারপর থেকেই শিউলি গাছ নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতূহল তৈরি হয়েছে। শিউলি গাছ ও পাতার মধ্যে আছে বহু ঔষধি গুণাগুণ, যা আমাদের শারীরিক উপকারে লাগে। পাশাপাশি ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকেও এটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আজ এই আর্টিকেলের মাধ্যমে জেনে নিন এই উদ্ভিদ এবং এর ফুলের ধর্মীয় তাৎপর্য কী।

দূর্গাপুজোর সাথে শিউলি ফুলের সংযোগ

দূর্গাপুজোর সাথে শিউলি ফুলের সংযোগ

শিউলি ফুল প্রত্যেক মানুষের কাছে খুব প্রিয়। বিশেষত, বাঙালির কাছে তো খুবই প্রিয়। কারণ, এই ফুল ফুটলে বোঝা যায় শরৎ এসেছে। আর শরৎকাল আসা মানেই দুর্গা পুজো আসা। ছোটো আকারের কমলা সাদার মিশ্রণে এই ফুলের মিষ্টি গন্ধে চারিদিক ম ম করে ওঠে। আর তার সাথে দুর্গা পুজোর আনন্দে প্রত্যেক বাঙালির মন নেচে ওঠে।

মাতা সীতা এই ফুল দিয়ে সাজতেন

মাতা সীতা এই ফুল দিয়ে সাজতেন

বিশ্বাস করা হয় যে, ১৪ বছরের বনবাসের সময় মাতা সীতা শিউলি ফুল দিয়েই নিজেকে সজ্জিত করতেন। এছাড়াও কথিত আছে যে, দেবী লক্ষ্মীরও এই ফুল খুব পছন্দের এবং তাঁর পুজোর সময় এই ফুল অর্পণ করলে তিনি প্রসন্ন হন।

শিউলি গাছকে কল্পবৃক্ষ বলা হয়

শিউলি গাছকে কল্পবৃক্ষ বলা হয়

হরিবংশ পুরাণ অনুসারে, শিউলি গাছকেই কল্পবৃক্ষ হিসেবে বর্ণিত করা হয়েছে। এটাও বিশ্বাস করা হয় যে, স্বর্গলোকে এই গাছটিকে স্পর্শ করার অধিকার কেবল উর্বশী, অপ্সরার ছিল। উর্বশী এই গাছটিকে স্পর্শ করে তৎক্ষণাৎ তাঁর ক্লান্তি দূর করতেন।

ভগবান বিষ্ণুর পূজায় ব্যবহার হয়

ভগবান বিষ্ণুর পূজায় ব্যবহার হয়

শিউলি ফুল ভগবান বিষ্ণু বা শ্রীহরি-এর পূজায় ব্যবহৃত হয়। এই কারণে এই ফুলকে হারসিঙ্গারও বলা হয়। শিউলি গাছকে হিন্দু ধর্মে বিশেষ স্থান দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় বিশ্বাস অনুসারে, এই বৃক্ষের স্পর্শে বেদনা, দুঃখ ও ক্লান্তির উপশম ঘটে।

রাম মন্দিরের ভূমি পূজা : কেন করা হয় ভূমি পূজা? জানুন এই পূজার গুরুত্ব এবং আচার-অনুষ্ঠান সম্পর্কে

শিউলি গাছের উদ্ভব সমুদ্র মন্থন থেকে

শিউলি গাছের উদ্ভব সমুদ্র মন্থন থেকে

অমৃত পেতে দেবতা এবং অসুররা যখন ক্ষীর সাগরে সমুদ্র মন্থন করেছিলেন, তখন সেখান থেকে অনেক রত্ন বেরিয়েছিল। শিউলি গাছও মন্থনের সময় বেরিয়ে এসেছিল এবং ইন্দ্র এটি স্বর্গে তাঁর বাগানে রোপণ করেছিলেন।

গাছ থেকে পড়ে যাওয়া ফুলের ব্যবহার

গাছ থেকে পড়ে যাওয়া ফুলের ব্যবহার

পুজো-পাঠের জন্য সেই শিউলি ফুলগুলিকেই ব্যবহার করা হয়, যেগুলি গাছ থেকে পড়ে যায়। পুজোর জন্য শিউলি গাছ থেকে ফুল তোলা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।

এই কারণেই একে রাতের রানী বলা হয়

এই কারণেই একে রাতের রানী বলা হয়

শিউলি গাছে রাত্রিবেলায় প্রচুর ফুল ফোটে। দিনের বেলা এই গাছ থেকে যতই ফুল তোলা হোক না কেন, পরের দিন আবার গাছটিতে প্রচুর পরিমাণে ফুল দেখা যায়। এই ফুলগুলি রাতে ফোটে, তাই একে রাতের রানীও বলা হয়।

English summary

Parijat Tree : History, Importance And Religious Significance in Bengali

Here we talking about parijat tree history, importance and religious significance in Bengali.
X