অক্ষয় তৃতীয়ার দিন কোন দেবতাদের পুজো করলে দুঃখ-কষ্ট দূর হয় এবং বড়লোক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হয়?

Subscribe to Boldsky

মনের মতো চাকরি চান, চান অনেক অনেক টাকার মালিক হতে? তাহলে বন্ধু আজকের দিনে এই মন্ত্রগুলি জপ করে এই প্রবন্ধে আলোচিত দেব-দেবীদের আরাধনা করতে ভুলবেন না যেন! এমনটা যদি করতে পারেন, তাহলে যে শুধু পকেট ভর্তি টাকার মালিক হয়ে উঠবেন, এমন নয়। সেই সঙ্গে আরও কিছু সুফলও মিলবে, যে সম্পর্কে এই লেখায় বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

বৈশাখ মাসের শুক্লা পক্ষের তৃতীয় দিনটিকে অক্ষয় তৃতীয়া হিসেবে বিবেচিত করা হয়ে থাকে। আজকের দিনে বিশেষ পুজোর মাধ্যমে দিন শুরু করে থাকেন হিন্দু ধর্মাবলম্বিরা। প্রসঙ্গত, "অক্ষয়" শব্দটির অর্থ হল অমর। অর্থাৎ যাকে কোনও সময় ধ্বংস করা সম্ভব নয়। তাই তো আজকের দিনে দান, পুজো বা জপ করলে ব্যাপক সুফল মেলে। এই কারণেই তো অক্ষয় তৃতীয়ার দিনে ভগবান বিষ্ণু, মা লক্ষী, শ্রী গণেশ এবং ধন দেবতা কুবেরের আরাধনা করার পরামর্শ দেওয়া হয়। কারণ এমনটা করলে সারা জীবন এই দেবতাদের আশীর্বাদ থেকে বঞ্চিত হতে হয় না। ফলে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির ছোঁয়া তো লাগেই। তার পাশাপাশি গৃহস্থের অন্দরে সুখ-শান্তির পরিবেশ কখনও বিগ্নিত হয় না। তাই তো বিল বন্ধু, সারা জীবন যদি সুখে-শান্তিতে থাকতে চান, তাহলে আজকের দিনে বিশেষ কিছু মন্ত্রচ্চারণ করার মধ্যে দিয়ে সর্বশক্তিমানেদের আরাধনা করতে ভুলবেন না যেন! প্রসঙ্গত, অনেকে বিশ্বাস করেন এই দেবতাদের পাশাপাশি যদি দেবাদিদেবেরও আরাধন করা যায়, তাহলেও সুফল মেলে।

১. শ্রী গণেশের পুজো করলে কী কী সুফল মিলবে?

১. শ্রী গণেশের পুজো করলে কী কী সুফল মিলবে?

"ওম গাম গানাপাতায়া নমহ..." এই মন্ত্রটি জপ করার মধ্যে দিয়ে যদি বাপ্পার আরাধনা করতে পারেন, তাহলে যে শুধু অনেক অনেক টাকার সন্ধান মেলে তা নয়, সেই সঙ্গে জ্ঞান এবং বুদ্ধিরও বিকাশ ঘটে। শুধু তাই নয়, কর্মক্ষেত্রে চরম সফলতা লাভের সম্ভাবনাও যায় বেড়ে। প্রসঙ্গত, এমনটাও বিশ্বাস করা হয় যে আজকের দিনে ভগবান গণেশের আশীর্বাদ লাভ করলে গৃহস্থের অন্দরে সুখের ঝাঁপি কখনই খালি হয় না।

২. ধন দেবতা কুবেরের আশীর্বাদ পেতে...

২. ধন দেবতা কুবেরের আশীর্বাদ পেতে...

শাস্ত্র মতে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন ধন দেবতার আরাধনা করলে গৃহস্থের অন্দরে দেবের প্রবেশ ঘটে। আর এমনটা হলে খালি পকেট ভরে যেতে যে সময় লাগে না, তা বলাই বাহুল্য। তবে এক্ষেত্রে একটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। তা হল ধন দেবতা বাড়িতে প্রবেশ করেন উত্তর দিক থেকে। তাই ওদিকে কোনও ভারি আসবাব পত্র রাখবেন না। কারণ কুবের দেবতার আসার পথে যদি কোনও বাঁধা সৃষ্টি হয়, তাহলে মারাত্মক অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। প্রসঙ্গত, আজকের দিনে যে মন্ত্রটি পাঠ করার মধ্যে দিয়ে লর্ড কুবেরের আরাধনা করতে হবে, তা হল-"কুবেরা তোয়াম ধনদিসাম গুরুহা তে কমলা সিথাত তাম ধেবাম প্রিহায়াসু তুয়াম মাদগ্রজে তে নমো নামাহঃ।"

৩. মহালক্ষী মন্ত্র:

৩. মহালক্ষী মন্ত্র:

"ওম শ্রিম মহা লক্ষী চা ভিদমাহে বিষ্ণু পাতনায়া চা ধিমাহি তানো লাক্ষী প্রচাদায়াত ওম", এই মহা লক্ষী মন্ত্রটি আজকের দিনে জপ করতে করতে যদি দেবীর আরাধনা করতে পারেন, তাহলে অল্প সময়ে বড়লোক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ তো হয়ই, সেই সঙ্গে নানাবিধ সমৃদ্ধি লাভের পথও প্রশস্ত হয়। ফলে জীবন সুন্দর হয়ে উঠতে সময় লাগে না।

৪. ভগবান শিবের মাহাত্ম্য:

৪. ভগবান শিবের মাহাত্ম্য:

দেবদিদেব হলেন সর্বশক্তির আধার। তাই তো তাঁর আরাধনা করলে যে কোনও ধরনের কষ্ট দূর হতে সময় লাগে না। ফলে হারিয়ে যাওয়া মানসিক শান্তি ফিরে আসে। সেই সঙ্গে খারাপ শক্তির কোনও প্রভাব পরার আশঙ্কাও হ্রাস পায়। এখানেই শেষ নয়, শাস্ত্র মতে আজ "ওম নম শিবায়", এই মবন্ত্রটি জপ করতে করতে শিবের পুজো করলে গৃহস্থের অন্দরে পজেটিভ শক্তির প্রভাব এতটা বেড়ে যায় যে কোনও খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা কমে। সেই সঙ্গে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার সম্পর্কেরও উন্নতি ঘটে।

৫. মহা বিষ্ণুর মহা আশীর্বাদ:

৫. মহা বিষ্ণুর মহা আশীর্বাদ:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে অক্ষয় তৃতীয়ার দিন ভগবান বিষ্ণুর পুজো করলে তাঁর ভক্তদের উপর দেবের নেক দৃষ্টি পরে। ফলে জীবন পথে চলতে চলতে মাথা চাড়া দিয়ে ওঠা যে কোনও সমস্যার পাহাড় সরে যেতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে মনের ছোট থেকে ছোটতর ইচ্ছাও পূরণ হয়। ফলে জীবন সুখ-শান্তিতে ভরে ওঠে। প্রসঙ্গত, সর্বশক্তিমানের পুজো করার সময় বিষ্ণু মূল মন্ত্র জপ করতে হবে। এই মন্ত্রটি হল: "ওম নামো নারায়াণা"

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: ধর্ম
    English summary

    Akshaya Tritiya Pooja Vidhi And Mantras

    Akshaya Tritiya is one of the most holy and auspicious occasions for the Hindus all over the world. Akshaya Tritiya is also called Akha Teej and it is celebrated during the Tritiya (the third day) of the Shukla Paksha in the month of Vishakha.
    Story first published: Wednesday, April 18, 2018, 11:08 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more