For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

দীপাবলি স্পেশাল কিছু মিষ্টির রেসিপি

Posted By:
|

উৎসবে মেতে ভারতবর্ষ, যাকে বলে বারো মাসে তেরো পার্বণ। একের পর এক উৎসবের ডিঙি পার করে এবার আসছে আলোর উৎসব দিওয়ালি। চারিদিকে সাজো সাজো রব। ইতিমধ্যেই ভারতবর্ষের আপামর জনগণ আলোর রোশনায় সেজে উঠতে প্রস্তুত। আর ভারতীয় উৎসব মানেই নানান রকম খাবারের মেলা। আর, অবশ্যই সবরকমের খাবারের মাঝে মিষ্টি তো চাই ই চাই। কারণ, ভারতীয় উৎসবে মিষ্টির ছোঁয়া ছাড়া প্রায় অসম্পূর্ণ থেকে যায়। তাই, এই দিওয়ালিকে আরও উৎসবমুখি করে তুলতে চাই নানান ধরনের মিষ্টি।

এই দিওয়ালিতে রঙবেরঙের আলোর পাশাপাশি নানান ধরনের মিষ্টির বিনিময়ে উৎসবকে করে তুলুন আরও মিষ্টিমুখর। পুজো থেকে খাওয়ার পাত, জমে উঠুক রকমারি মিষ্টির বাহারে। আনুন নতুনত্বের ছোঁয়া। লাড্ডু, বরফি, মালপোয়া এবং হালুয়া ছাড়াও তৈরি করুন রকমারি মিষ্টি। কী কী তৈরি করবেন এবং কীভাবে করবেন রইল তার কিছু টিপস্ -

special sweet recipes for this diwali

রসমালাই

এবারের দিওয়ালি জমে উঠুক রসমালাই দিয়ে।

উপকরণ

ক) ছানা (তৈরি করে নিতে পারেন)

খ) বেকিং পাউডার

গ) ময়দা

ঘ) সুজি

ঙ) চিনি

চ) লেবুর রস বা ভিনেগার

ছ) জল

জ) দুধ

ঝ) এলাচ গুঁড়ো

কীভাবে বানাবেন?

ক) প্রথমে ছানা তৈরির জন্য দুধ জ্বাল দিয়ে, তাতে লেবুর রস বা ভিনেগার দিয়ে একটু কিছুক্ষণ রেখে একটা পাতলা কাপড়ে ভালো করে চেপে জল ঝরিয়ে নিন।

খ) তারপর একটি পাত্রে ছানার সঙ্গে ময়দা, সুজি, বেকিং পাউডার ও চিনি দিয়ে ভাল করে মেখে নিতে হবে।

গ) এবার দু'হাতের তালু দিয়ে গোল করে ছোট ছোট আকারের মিষ্টি বানান।

ঘ) একটি পাত্রে সিরার জন্য জল ও চিনি ফোটাতে থাকুন। জল ফুটে উঠলে তৈরি মিষ্টিগুলো হাঁড়িতে দিয়ে ঢেকে দিন।

ঙ) এলাচ দিয়ে সময় মাফিক ফুটিয়ে নিন। খেয়াল রাখবেন যেন বেশি সিদ্ধ হয়ে ভেঙে না যায়।

চ) একটি পাত্রে দুধে জ্বাল দিয়ে ভাল করে দুধ ঘন করে নিন। খেয়াল রাখবেন, দুধ যেন নিচে লেগে না যায় এবং সর হয়ে না যায়।

ছ) এরপর পরিমাণ মতো চিনি ও অল্প এলাচ গুঁড়ো দিয়ে দিন।

জ) মিশ্রণযুক্ত ঘন দুধ ঠাণ্ডা হলে মিষ্টিগুলো সিরা থেকে তুলে দুধে মেশান। এর পর ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করুন।

ঝ) পরিবেশনের আগে রসমালাইয়ের ওপরে পেস্তা ও বাদামকুচি ছড়িয়ে দিন।

special sweet recipes for this diwali

কেশর সন্দেশ

কেশর সন্দেশ হল জাফরান এবং পনির দিয়ে তৈরি অসাধারণ একটি মিষ্টি। এটি দিওয়ালির বিশেষ সন্দেশ মিষ্টি। তাহলে দেখে নেওয়া যাক, কী ভাবে বানাবেন এটি।

উপকরণ

ক) পনির

খ) কনডেন্সড মিল্ক

গ) পরিমাণ মতো ময়দা

ঘ) গুঁড়ো দুধ

জ) চিনি

ঝ) কেশর

ঞ) জল

কীভাবে বানাবেন?

ক) কেশর বাদ দিয়ে বাকি উপকরণগুলি একসঙ্গে গ্রাইন্ডারে মিশ্রিত করে নিন।

খ) তারপর, গরম করে ঘন করে নিন মিশ্রণটিকে।

গ) জল, কেশর ও কনডেন্সড মিল্ক-এর মিশ্রণ তৈরি করুন

ঘ) এরপর বানিয়ে রাখা মিষ্টির মিশ্রণটির উপর কেশর ও কনডেন্সড মিল্ক-এর মিশ্রণটি ঢেলে দিন।

ঘ) ফ্রিজে রেখে দিন। ২-৩ ঘণ্টার পর বার করে পরিবেশন করুন।

পাটিসাপ্টা

এটি বাংলা ও বাঙালীর একটি ঐতিহ্যবাহী মিষ্টি। উৎসবের দিনে ঘরে ঘরে এই মিষ্টির প্রচলন আজও রয়েছে। মূলত, ময়দা, সুজি, ঘি, নারিকেল ও গুড় দিয়ে এই মিষ্টি তৈরি হয়। এটি তৈরির প্রণালী অনলাইন বিভিন্ন টিউটোরিয়াল থেকে পেয়ে যাবেন।

special sweet recipes for this diwali

রাভা কেশরি

এটি একটি সমৃদ্ধ এবং সুস্বাদু ভারতীয় মিষ্টি। রাভা কেশরি দক্ষিণ ভারতের বিখ্যাত মিষ্টি। কেবল বাড়ির বিশেষ অনুষ্ঠানে এই মিষ্টি তৈরি করা হয়।

উপকরণ

ক) সুজি

খ) ঘি

গ) কিশমিশ

ঘ) কাজু বাদাম,

ঙ) এলাচ গুঁড়ো

চ) চিনি

ছ) কেশর

জ) ফুড কালার

কীভাবে বানাবেন?

ক) প্রথমে কড়াই গরম করে তাতে ঘি দিন

খ) তারপর কাজু বাদাম ও কিশমিশ দিয়ে একটু রোস্ট করে নিন

গ) সুজি ঘি দিয়ে ভেজে নিন

ঘ) কড়াইতে গরম জল করে সুজি দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে ঘন করে নেবেন

ঙ) এরপর এলাচের গুঁড়ো, পরিমাণ মতো চিনি ও ফুড কালার দিয়ে ভাল করে মিশ্রিত করুন

চ) মিশ্রণটিতে রোস্ট কাজু, কিশমিশ ও ঘি দিয়ে নেড়ে নিন।

ছ) ওপরে কেশর দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

চালের পায়েস

চালের পায়েস যেকোনও উৎসব উদযাপনের খাবার হিসেবে খুবই জনপ্রিয়। আপনি বাড়িতে আসা অতিথিদেরও অনায়াসে এটি পরিবেশন করতে পারেন। পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে উপভোগ করার জন্য এটি উপযুক্ত ভারতীয় ডেজার্ট।

উপকরণ

ক) গোবিন্দভোগ চাল

খ) দুধ

গ) চিনি

ঘ) এলাচ

ঙ) কেশর

চ) স্লাইভার্ড বাদাম

চ) পেস্তা বাদাম

কীভাবে বানাবেন?

ক) গোবিন্দভোগ চাল, দুধ, চিনি একসঙ্গে ভালো করে ফুটিয়ে নিন

খ) এরপর, এলাচের গুঁড়ো, কেশর ও স্বাদযুক্ত স্লাইভার্ড বাদাম এবং পেস্তা বাদাম দিয়ে পরিবেশন করুন।

special sweet recipes for this diwali

আপেল রাবড়ি

দিওয়ালির জন্য স্পেশাল আপেল রাবড়ি নতুনত্বের ছোঁয়া আনে। এই মিষ্টির রেসিপির উপাদানগুলি খুবই সহজ।

উপকরণ

ক) আপেল

খ) দুধ

গ) চিনি

ঘ) ছোটো এলাচ

ঙ) আলমন্ড

চ) পেস্তা

কীভাবে বানাবেন?

ক) প্রথমে, দুধের সাথে পরিমাণ মতো চিনি দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নেবেন এবং ঘন করে নেবেন।

খ) আপেলের খোসা ছাড়িয়ে মিহি করে গ্রেট করে নিন ও তা দুধের মধ্যে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

গ) চার-পাঁচ মিনিট নাড়ার পর এলাচ গুঁড়ো, আলমন্ড ও পেস্তা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

ঘ) পরিবেশনের আগে ছোটো আপেলের টুকরো দিয়ে সাজিয়ে নিন।

special sweet recipes for this diwali

জিলিপি

উৎসব মানেই জিলিপি। আর, দিওয়ালির মেনুতে যদি জিলিপি না থাকে তাহলে তো খাওয়াই অসম্পূর্ণ থেকে যায়। এই ধরনের মিষ্টিগুলি শুধুমাত্র ভারতেই নয়, বাংলাদেশ, নেপাল এবং পাকিস্তানেও বিখ্যাত। এগুলি ময়দা এবং আটা দিয়ে তৈরি করা হয়। এবং তারপরে চিনির সিরাপে ভিজানো হয়। এটি তৈরির প্রণালী অনলাইনে বিভিন্ন টিউটোরিয়াল থেকে পেয়ে যাবেন আপনারা।

[ of 5 - Users]
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more