For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

পুদিনা লস্যি খান, গরমে আরাম পান

|

শীত শেষ, গ্রীষ্ম একদম দোড়গড়ায়। একটু একটু করে গরম পড়তেও শুরু করেছে। সকলের কাছে শীতকালটা অতি প্রিয় হলেও গরমটা যে অতীব খারাপ তা কিন্তু একদমই না। পেটুক বাঙালি ও খাবার প্রিয় মানুষদের কাছে শীতকালের মতো গরমকালটাও পছন্দের। কারণ, এই সময় এমন কিছু ফল পাওয়া যায়, যার জন্য সারা বছর অপেক্ষা করতে হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের হালকা খাবার, ফলের রস ইত্যাদি খেতে মানুষ বেশি পছন্দ করেন এই গ্রীষ্মকালে।

mint lassi recipe

ইতিমধ্যেই গরমের আভাস জানান দিচ্ছে গ্রীষ্মের আগমনের। তাই এই গরমে নিজের শরীরকে ঠান্ডা রাখতে এবং সুস্থ রাখতে আজ আমরা পুদিনা লস্যির রেসিপি তুলে ধরছি, দেখে নিন বানানোর পদ্ধতি -

উপকরণ

১ কাপ টকদই

১ টেবিল চামচ গুঁড়ো দুধ

আধা কাপ পুদিনা পাতা বাটা / গোটা

পরিমাণ মতো বরফ

বিটনুন

চিনি

এক চিমটি গোলমরিচ গুঁড়ো

প্রণালী

গ্রাইন্ডারে টক দই, ১ টেবিল চামচ গুঁড়ো দুধ, পুদিনা পাতা বাটা (গোটাও দিতে পারেন), বরফ কুচি, পরিমাণমতো নুন, চিনি ও এক চিমটি গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে গ্রাইন্ডারে মিশ্রিত করুন। প্রয়োজন হলে অল্প একটু জল মিশিয়ে দিন। মিশ্রণটি ভালো করে তৈরি হয়ে গেলে কাঁচের গ্লাসে পরিবেশন করুন। পরিবেশনের আগে লস্যির উপরে একটি করে পুদিনা পাতা ও চেরি দিয়ে পরিবেশন করতে পারেন।

পুদিনা পাতা আমাদের শরীরে নানান উপকারে লাগে। কিন্তু, আমরা অনেকেই হয়তো এর উপকারিতা সম্পর্কে অবগত নই। আপনিও যদি না জেনে থাকেন তবে দেখে নিন -

mint lassi recipe

১) পুদিনা পাতায় থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট পেটের যেকোনও সমস্যার সমাধান করতে সাহায্য করে।

২) গরমকালে শরীরকে ঠান্ডা রাখতে পুদিনার রস খুব ভাল। তাই দই মিশ্রিত এই রেসিপিটি অনায়াসেই খেতে পারেন।

৩) পুদিনা পাতার রস ত্বকের যেকোনও সংক্রমণকে ঠেকাতে অ্যান্টিবায়োটিক হিসেবে কাজ করে।

৪) বহু বিজ্ঞানীদের মতে, পুদিনা পাতার পেরিনিয়াল অ্যালকোহল ফাইটোনিউট্রিয়েন্টের একটি উপাদান, যা দেহে ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধিতে বাধা সৃষ্টি করে।

৫) হজম শক্তি বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করে।

৬) টাইফয়েড, নিউমোনিয়া প্রতিরোধ করে।

English summary

Mint Lassi Recipe

Take a look at how to prepare mint lassi recipe.
Story first published: Friday, March 27, 2020, 19:28 [IST]
X