For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

গর্ভাবস্থায় সুস্থ থাকতে খান জাফরান! জেনে নিন এর বিভিন্ন উপকারিতা

|

বিশ্বের সবচেয়ে দামি মশলা হল, জাফরান বা কেশর। এক চিমটে জাফরান শুধু যে খাবারের স্বাদ বাড়ায়, তা নয়। জাফরানে বিভিন্ন ঔষধি গুণও বর্তমান। এটি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্যও উপকারি, বিশেষ করে গর্ভবতী মহিলাদের জন্য। এটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ।

বিশ্বাস করা হয় যে, গর্ভাবস্থায় জাফরান সেবন শিশুকে সুন্দর বর্ণ ধারণ করতে সহায়তা করে। তাহলে জেনে নিন গর্ভাবস্থায় জাফরান সেবনের বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে।

১) মুড সুইং নিয়ন্ত্রণ করে

১) মুড সুইং নিয়ন্ত্রণ করে

গর্ভাবস্থায় শরীরে বিভিন্ন হরমোনাল পরিবর্তন হয়, যার ফলে মুড সুইং হতে লক্ষ্য করা যায়। হঠাৎ করে রেগে যায়, আবার পরক্ষণেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ে। জাফরান বা কেশর অ্যান্টি-ডিপ্রেশ্যান্ট হিসেবে কাজ করে, যা মস্তিষ্কে রক্ত প্রবাহ বাড়িয়ে দেয়। কেশর খেলে সেরোটোনিন হরমোন উৎপাদন হয়, যা মেজাজ ভাল রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে। এটি স্ট্রেস হরমোন, কর্টিসল কমাতে পারে।

২) রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে

২) রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে

গর্ভাবস্থায় মহিলাদের হৃদস্পন্দনের মাত্রা ২৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায় ফলে, রক্তচাপে ওঠানামা লক্ষ্য করা যায়। জাফরানে পটাসিয়াম এবং ক্রোসেটিন বর্তমান, যা রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করতে বিশেষভাবে সহায়তা করে।

৩) মর্নিং সিকনেস দূর করে

৩) মর্নিং সিকনেস দূর করে

গর্ভাবস্থায় প্রায়শই মর্নিং সিকনেস-এর সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। স্যাফরন-ইনফিউসড টি, বমি ভাব এবং মাথা ঘোরা দূর করতে সহায়তা করে।

৪) হজম ঠিক রাখে

৪) হজম ঠিক রাখে

গর্ভাবস্থায় বেশিরভাগ মহিলারই হজম ক্ষমতা হ্রাস পায়। জাফরানের সেবন পাচনতন্ত্রের রক্ত প্রবাহ বাড়িয়ে তোলে এবং মেটাবলিজম উন্নত করতে সহায়তা করে। এর ফলে হজমে উন্নতি হয়। এছাড়াও, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল অ্যাসিডিটি প্রশমিত করে, পেটের ফোলাভাব কমাতেও সহায়তা করে।

৫) খিল ধরা থেকে মুক্তি দেয়

৫) খিল ধরা থেকে মুক্তি দেয়

গর্ভবতী মহিলাদের প্রসবের আগে, ক্র্যাম্পস বা খিল ধরা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। গর্ভাবস্থার সময়কালে হাড় ও পেশীগুলি ক্রমবর্ধমান শিশুকে উপস্থাপনের জন্য, প্রসারিত এবং স্থানান্তরিত হয়। যার ফলেই পেট এবং পেলভিক জয়েন্টে যন্ত্রণা ও খিঁচুনি হতে পারে। জাফরান হল প্রাকৃতিক ব্যথানাশক। এটি পেশী রিল্যাক্স করে, যা পেটের ব্যথা এবং খিঁচুনি থেকে স্বস্তি দিতে পারে।

৬) হৃদরোগের সমস্যা থেকে রক্ষা করে

৬) হৃদরোগের সমস্যা থেকে রক্ষা করে

জাফরান বা কেশর হার্টের রোগ থেকেও রক্ষা করতে পারে। গর্ভাবস্থায় অনেক মহিলাই প্রচুর পরিমাণে ফ্যাটজাতীয় খাদ্য গ্রহণ করেন, যা কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের উপর ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলে। জাফরানে উপস্থিত অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ক্রোসেটিন এবং পটাশিয়াম দেহের ট্রাইগ্লিসারাইড ও কোলেস্টেরলের মাত্রা হ্রাস করতে সহায়তা করে।

৭) শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতা নিরাময় করে

৭) শ্বাসযন্ত্রের অসুস্থতা নিরাময় করে

জাফরানে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য বর্তমান, যা ন্যাসাল এয়ারওয়ে প্রসারিত করতে সাহায্য করে। এটি ফুসফুসের ফোলাভাব এবং প্রদাহ হ্রাস করে। ফলে স্বাভাবিকভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নেওয়া যায়। জাফরান গর্ভবতী মহিলাদের মধ্যে হাঁপানিতে আক্রান্ত রোগীদের ফুসফুস এবং শ্বাসনালীতে উপস্থিত যেকোনও প্রতিবন্ধকতা দূর করতে অত্যন্ত সহায়ক।

৮) চুল ও ত্বকের সমস্যা দূর করে

৮) চুল ও ত্বকের সমস্যা দূর করে

গর্ভাবস্থায় হরমোনের ওঠানামার কারণে প্রচুর চুল পড়তে শুরু করে। এই সময় ত্বকেও নানান সমস্যা দেখা দেয়। চুল ওঠা কমাতে এবং ত্বকের এই সমস্যাগুলি দূর করতে, জাফরান ব্যবহার করতে পারেন। জাফরানে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট চুলে পুষ্টি যোগায় এবং শক্তিশালী করে তোলে। জাফরান হল ব্লাড পিউরিফায়ার, তাই ত্বকের বিভিন্ন সমস্যার থেকে মুক্তি দিতে পারে।

English summary

Benefits of Saffron During Pregnancy

Role of saffron during pregnancy has always been at the top in the list of its various health benefits on the body. Read on.
X