For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন এক রুপান্তরকামী জুটি, পশ্চিমবঙ্গে এমন বিয়ে এই প্রথম

|

তারা জন্মেছিলেন নারী ও পুরুষ হয়ে। কিন্তু, বড়ো হওয়ার পর দুজনেই বুঝতে পারেন তারা শরীরে যা, মনে তা নয়। তখনই তারা নিজেদেরকে পাল্টে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন। আর সেইমতো পাল্টেও ফেলেন। বছর ১৫ আগে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে জন্মসূত্রে বেড়ে ওঠা 'সুশান্ত' হয়ে ওঠেন 'তিস্তা'। কলকাতার আগরপাড়ার বাসিন্দা তিস্তা দাস-এর বয়স এখন চল্লিশের কাছাকাছি। ইতিমধ্যেই তিস্তা একজন কবি, বুটিকশিল্পী আর সমাজকর্মী হিসেবে যথেষ্ট প্রতিষ্ঠিত।

transgender

ছবি সৌজন্য:Youtube

অন্যদিকে, অসমের লামডিংয়ে বেড়ে ওঠা দীপন চক্রবর্তী জন্মসূত্রে ছিলেন নারী। নাম ছিল দীপান্বিতা। তবে তাঁর শরীরে ছিল পুরুষের উপসর্গ। তিনিও কয়েক বছর আগে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে পুরুষে রুপান্তরিত হন। নিজের নাম রাখেন দীপন চক্রবর্তী। তাঁর বয়সও চল্লিশের কোঠায়।

দু'জন আলাদা আলাদা জায়গায় বেড়ে উঠলেও দুজনের জীবনের গল্প প্রায় অভিন্ন। তাঁদের জীবনে চলার পথ খুব একটা মসৃণ ছিল না। সমাজে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করতে দু'জনেই অনেক লড়াই করেছেন। আর দু'জনের গল্পের এই মিলই তাদের এক করেছে। অবশেষে তাদের লড়াই সফল পরিণতি পেয়েছে। ৫ ই অগাষ্ট, সোমবার তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। এমন বিয়ে পশ্চিমবঙ্গে এই প্রথম।

বছর তিনেক আগে দু'জনের দেখা হয় আগরপাড়ার একটি লিঙ্গান্তর সংক্রান্ত সংস্থায়। তিস্তা দাস এই সংস্থাটি চালান। প্রথম দেখাতেই দীপনের ভালে লেগে যায় তিস্তাকে। দুজনেই লিঙ্গান্তরিত নারী-পুরুষ। বয়সও প্রায় দু'জনের কাছাকাছি। কিন্তু, কেউ কাউকে নিজেদের মনের কথা বলতে পারছিলেন না। অবশেষে তিস্তার এক বান্ধবীর ভরসায় মনের কথাটি আগে বলে ফেলেন দীপন।

বিয়ে কলকাতাতেই সম্পন্ন হয়েছে হিন্দুশাস্ত্র মতে। বিয়েতে তিস্তার অভিভাবকরা উপস্থিত থাকলেও, দীপনের বাবা-মা উপস্থিত ছিলেন না। তবে, গড়িয়ায় দীপনের ভাড়ার ফ্ল্যাটের মালকিন বর পক্ষের অভিভাবকের ভূমিকায় ছিলেন। বর্তমানে কলকাতার একটি ওষুধ কোম্পানিতে কাজ করেন দীপন।

এ ব্যাপারে তিস্তা বলেন, "দীপনকে দেখে ভেবেছি, এক জন হয়ে ওঠা নারী হিসেবে আমিই বা কেন এক জন হয়ে ওঠা পুরুষকে গ্রহণ করতে পারব না!" "ভালোবাসা দুটি মনের ব্যাপার," - একই মত তিস্তা ও দীপনের।

দীপন বলেন, "আমার কাছে পৌরুষ মানে জেদাজেদি নয়, একটা মেয়েকে বোঝা। তাই এত দিন অপেক্ষা করেছি।"

২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্ট রূপান্তরকামীদের মৌলিক অধিকারকে স্বীকৃতি দিয়েছে। কয়েক মাস আগে কেরলে এক রূপান্তরিত জুটির বিয়ে হয়েছে। তবে, এ রাজ্যে এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে হল এই রূপান্তরকামী জুটির।

Read more about: transgender marriage
English summary

Transgender couple tie the knot in West Bengal’s first rainbow wedding

Tista and Dipan tied the knot to become the first wedded trans-couple in West Bengal.
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more