For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

নতুন কাজে জয়েন করেছেন? কাজের জায়গায় এই সব বিষয় নিয়ে ভুলেও আলোচনা করবেন না!

|

আপনি যেখানেই কাজ করুন না কেন, গসিপ সব জায়গাতেই হয়, যেমন - অফিসের বস বা কলিগের নামে নিন্দা করা, কিংবা পারিবারিক, রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে সমালোচনা, ইত্যাদি। আর এই ধরনের গসিপ থেকে নিজেদের দূরে রাখা খুবই কষ্টকর। কখন যে আপনি গসিপের অংশ হয়ে উঠবেন, তা হয়তো নিজেও বুঝতে পারবেন না। অনেক সময় এই গসিপের জন্য অফিসে নিজের ইমেজ নষ্ট, এমনকি চাকরি নিয়েও টানাটানি পড়ে যায়। তাই কাজের ক্ষেত্রে কাকে, কীভাবে, কী বলা উচিত বা কোন কোন বিষয় নিয়ে কর্মক্ষেত্রে আলোচনা করা উচিত নয়, তা প্রত্যেকেরই জানা প্রয়োজন।

কর্মক্ষেত্রে আমাদের কিছু নির্দিষ্ট সীমা মাথায় রাখা খুবই জরুরি। তাহলে জেনে নিন অফিসে কোন কোন বিষয় নিয়ে একেবারেই আলোচনা করা উচিত নয়।

১) ধর্ম

১) ধর্ম

আমরা প্রায় প্রত্যেকেই ঈশ্বরে বিশ্বাস করি। তবে অনেকেই এক্ষেত্রে অত্যন্ত সেনসিটিভ। তাই আপনার কাজের জায়গায় বা অন্য কোথাও ধর্ম নিয়ে আলোচনা করা একদমই উচিত নয়, বিশেষ করে অন্য কারুর ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে নেতিবাচক মতামত প্রকাশ করবেন না। ধর্ম সংক্রান্ত কোনও বিষয়ে আপনার মতামত, আপনার সহকর্মীদের নাও পছন্দ হতে পারে। হয়তো আপনি অজান্তেই তাদের ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত করতে পারেন।

২) রাজনীতি

২) রাজনীতি

রাজনীতি নিতে প্রত্যেকেরই নিজস্ব মতামত থাকতে পারে। সবার নিজের পছন্দের রাজনৈতিক দল থাকতে পারে এবং তারা সেই রাজনৈতিক দলের অন্ধ সমর্থকও হতে পারে। আবার অনেক ক্ষেত্রেই কোনও ব্যক্তি নির্দিষ্ট কোনও রাজনৈতিক দলের ঘোর বিরোধীও হতে পারে। তাই রাজনৈতিক মতাদর্শ যে সবার এক হবে তা নয়। আর এই বিষয়ে কাজের জায়গায় আলোচনা না করাই শ্রেয়।

৩) সেক্স

৩) সেক্স

নিজের সেক্স লাইফ সম্পর্কে কখনোই কারুর সঙ্গে আলোচনা করা উচিত নয়। আপনার ও আপনার পার্টনারের মধ্যে কেমন সম্পর্ক তা একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়। সেটা অন্য কাউকে জানানোর কোনও প্রয়োজন নেই। সেক্স নিয়ে আলোচনা অনেকের ক্ষেত্রেই অস্বস্তির কারণ হতে পারে। আবার অনেক ক্ষেত্রে, আপনার সহকর্মীরা আপনার সম্পর্কে অশ্লীল মন্তব্য করতে পারে।

৪) পারিবারিক সমস্যা

৪) পারিবারিক সমস্যা

আপনার পারিবারিক যদি কোনও সমস্যা থাকে, তা নিয়ে কাজের জায়গায় আলোচনা করবেন না। অনেক ক্ষেত্রেই আপনার বস ও সহকর্মীরা ভাবতে পারে যে, পারিবারিক সমস্যার জন্য আপনি আপনার কাজে মন বসাতে পারছেন না। আবার অনেক সময়, আপনি আপনার পারিবারিক সমস্যাগুলির জন্য কাজের জায়গায় গসিপের পাত্রও হয়ে যেতে পারেন।

৫) অর্থনৈতিক সমস্যা

৫) অর্থনৈতিক সমস্যা

আপনি আপনার অর্থনৈতিক সমস্যাগুলি নিয়ে যদি কাজের জায়গায় আলোচনা করেন, তাহলে অনেক ক্ষেত্রেই আপনার যোগ্যতার উপর প্রশ্ন উঠতে পারে, যা আপনার কাজের ক্ষেত্রে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। এমনিতেও আর্থিক সমস্যা নিয়ে সহকর্মীদের সঙ্গে আলোচনা করলে, তারা ভাবতে পারে যে, আপনি অর্থ পরিচালনার ক্ষেত্রে অযোগ্য।

৬) প্রতিবাদ

৬) প্রতিবাদ

ভোটাধিকার, রাজনৈতিক অসন্তোষ এবং জাতিগত বা ধর্মীয় বিভাজন এর জন্য বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন প্রতিবাদ চলছে। আর এগুলো সবই সেনসিটিভ এবং ইমোশনাল টপিক। তাই এগুলির ক্ষেত্রে আপনার মতামত, কাজের জায়গায় আপনাকে খারাপ পারফরম্যান্সের দিকে নিয়ে যেতে পারে। এছাড়াও এই বিষয়গুলি সহকর্মীদের মতাদর্শ ও অনুভূতিতে আঘাত করতে পারে।

৭) জব হান্ট

৭) জব হান্ট

আপনি যদি নতুন কাজ খুঁজছেন, তবে তা সহকর্মীদের সঙ্গে কখনোই আলোচনা করবেন না। সহকর্মীদের সঙ্গে এই নিয়ে আলোচনা করলে, আপনার সহকর্মীদের জন্যও সেই দরজা খুলে যেতে পারে। এছাড়া, অফিসে আপনি গসিপের পাত্র হয়ে উঠতে পারেন।

Read more about: work office topics
English summary

Things you should never talk about at work

Here are seven things you should never talk about at work.
X