মেয়াওওওওওওওও...!!!

Written By:
Subscribe to Boldsky

সংখ্যা বাড়ছে। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে চুরিও। আজ মাছ, তো কাল দুধ। এমন অবস্থায় রাগের ফোয়ারা ছুটবে না তো কী হবে বলুন!

বুঝতে পারছি আপনাদের মনের অবস্থা। তাই তো আপনাদের শান্ত করতে এই প্রবন্ধে বিড়াল নামক চোরটির সম্পর্কে এমন কিছু তথ্য তুলে ধরবো, যে কয়েক মুহূর্ত পর থেকে দাগি চোর নামে খ্যাত বিড়ালদের আপনি পছন্দ করতে শুরু করে দেবেন। কী, বিড়ালকে পছন্দ! এমনটা কোনও দিনও হবে না। ওদের কারণে কত টাকাই যে গেছে তার কোনও হিসেব নেই! তাহলে তো আপনাকে একবার চোখ রাখতেই হবে এই লেখায়। তাহলেই দেখবেন সব রাগ একেবারে ছুমান্তার হয়ে গেছে।

তথ্য ১:

তথ্য ১:

আপনাদের কি জানা আছে কুকুরদের থেকেও বিড়ালদের শ্রবণ ক্ষমতা বেশি শক্তিশালী হয়।

তথ্য ২:

তথ্য ২:

১৯৬৩ সালে ফ্য়ালিসেটা নামে একটি ফেরাসি বিড়ালকে মহাকাশে পাঠান হয়। শুধু তাই নয়, সেই বিড়ালটির ব্রেনে ইলেকট্রডস লাগানো ছিল। ফলে তার সব ধরনের শারীরিক পরিবর্তন সম্পর্কে অনবরত জানতে পারছিলেন বিজ্ঞানিরা। সব থেকে অবাক করার মতো ঘটনা কী জানেন! ফ্য়ালিসেটা মহাকাশ থেকে সুস্থ শরীরে পৃথিবীতে ফিরে এসেছিল।

তথ্য ৩:

তথ্য ৩:

সারা পৃথিবীতে এখনও পর্যন্ত প্রায় ৫০০ মিলিয়ান ডোমেস্টিক বিড়ালের সন্ধান পাওয়া গেছে। যাদের মধ্যে কেবল মাত্র ৪০ টি প্রজাতিকে চিহ্নিত করতে পরেছেন জীব বিজ্ঞানিরা।

তথ্য ৪:

তথ্য ৪:

বিড়ালেরা একেবারেই মিষ্টি খাবার খেতে ভালবাসে না। কারণ এদের জেনেটিক গঠন এই ধরনের খাবার খাওয়ার অনুমতি দেয় না বিড়ালদের।

তথ্য ৫:

তথ্য ৫:

বিড়ালেরা প্রায় ১০০ ধরনের আওয়াজ বের করতে পারে। যেখানে কুকুরেরা মাত্র ১০ রকমের আওয়াজ সৃষ্টি করতে সক্ষম।

তথ্য় ৬:

তথ্য় ৬:

ইতিহাস ঘেঁটে জানা গেছে ইজিপ্সিয়ানরাই প্রথম বিড়াল পুষতে শুরু করেন। শুধু তাই নয়, বেশ কিছু দিন আগে সাইপ্রাসে একটি বিড়ালের কবর পাওয়া যায়। সেটি বিশ্লেষণ করে বিজ্ঞানিরা জানতে পারেন বিড়লটির জন্ম হয়েছিল প্রায় ৯৫০০ বছর আগে।

তথ্য ৭:

তথ্য ৭:

যারা বিড়ালদের একেবারে পছন্দ করেন না, তাদের এই তথ্য়টা জানতে পেরে ভাল লাগবে। সম্প্রতি প্রকাশিত এক সমীক্ষা রিপোর্ট অনুসারে প্রতি বছর প্রায় ৪০,০০০ আমেরিকান বিড়ালের কামড় খেয়ে থাকেন।

তথ্য ৮:

তথ্য ৮:

বিড়ালেরা পায়ে পায়ে ঘুরতে এত ভালবাসে কেন জানেন? কারণ তাদের গলায়, লেজে এবং থাবায় সেন্ট গ্যাল্ড থাকে। সেখান থেকে অনবরত এ ধরনের গন্ধ বেরয়। এই ভাবে তারা তাদের বিচরণ ভূমিকে চিহ্নিত করে থাকে।

তথ্য ৯:

তথ্য ৯:

দেখবেন মাঝে মাঝে বিড়ালেরা মুখ থেকে এক আজব ধরনের গর্জন করে থাকে। এমনটা এরা তখনই করে যখন খুব ভয় পেয়ে যায়।

তথ্য ১০:

তথ্য ১০:

বিড়ালদের সবথেকে নামকরা প্রজাতি হল পার্সিয়ান ক্যাট। এর পরেই মেন কুন এবং সিয়ামিজ বিড়ালদের স্থান।

English summary
We're sure you are reading this article to know about some of the interesting facts on your furry pet! Cats are amazingly active pets that are small, typically furry, and they are also a carnivorous mammal.
Story first published: Saturday, June 17, 2017, 18:54 [IST]
Please Wait while comments are loading...