বাড়ি থেকে বেরনোর সময় চড়াই পাখি দেখলে কি হতে পারে জেনেন?

Written By:
Subscribe to Boldsky

অনেকে বলে সকাল সকাল এক শালিক দেখলে নাকি দিনটা খারাপ যায়। একই ঘটনা ঘটে কালো বিড়াল দেখলেও। কিন্তু জানেন কি আমাদের আশেপাশে এমন আরও অনেক পশু-পাশি আছে যাদের দিনের শুরুতে দেখলে খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তাই তো সুখে-শান্তিতে এবং নিরাপদে থাকতে এই প্রবন্ধটি পড়ে ফলতে ভুলবেন না যেন!

এই লেখায় এমন কিছু পশু-পাখিদের সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যাদের সঙ্গে আমাদের ভাল-মন্দের বেশ গভীর যোগ রয়েছে। আসলে এমটা বিশ্বাস করা হয় যে খারাপ সময় যখন আক্রমণ শানায়, তখন প্রকৃতি নানাভাবে আমাদের সে কথা জানাতে শুরু করে। কখন তা এক শালিক পাখির মাধ্যমে, তো কখনও অন্যভাবে। এই যেমন ধরুন...

১. কাকের আগমণ ঘটলে:

১. কাকের আগমণ ঘটলে:

বাঙালি বাড়িতে কাকের আগমণ রোজই ঘটে থাকে। কিন্তু জানা আছে কি গৃহস্থের অন্দরে বারে বারে কাকের প্রবেশ ঘটলে কী হতে পারে? এমন ঘটনা ঘটলে বুঝতে হবে কোনও ভাল খবর আসতে চলেছে। শুধু তাই নয়, এমনটাও বিশ্বাস করা হয় যে জানলার সামনে বসে সমানে যদি একটা কাক ডাকে, তাহলে বাড়িতে কোনও অতিথির অগমণ ঘটার সম্ভাবনা থাকে।

২. কুকুরের কান্না:

২. কুকুরের কান্না:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে দিনের পর দিন রাতের বেলা বাড়ির সামনে কুকুর কাঁদলে পরিবারের কোনও সদস্যের মৃত্যু ঘটতে চলেছে। শুধু তাই নয়, এমন ঘটনা ঘটলে জানবেন পরিবারে কোনও কঠিন রোগের প্রবেশ ঘটলো বলে! তাই প্রয়োজনীয় সাবধানতা অবলম্বন করতে ভুলবেন না যেন! বিশেষত বাচ্চাদের সাবধানে রাখবেন। কারণ তাদের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বেসি থাকে।

৩. বাড়ির কোনে চড়াইয়ের বাসা:

৩. বাড়ির কোনে চড়াইয়ের বাসা:

খেয়াল করে দেখবেন মাঝে-মধ্যেই চড়াই পাখিরা বাড়ির ইতি-ইতি বাসা বেঁধে থাকে। এবার থেকে এমনটা হতে দেখলে ভুলেও বাসাটা ভেঙে দেবেন না যেন! কারণ বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে বাড়িতে চড়াই পাখি বাসা বাঁধলে জানবেন অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটতে চলেছে। শুধু তাই নয়, চড়াই পাখির আশীর্বাদে গৃহস্থের অন্দরে সুখ-সমৃদ্ধির প্রবেশ ঘটতেও সময় লাগে না। তাই অল্প দিনেই যদি বড়লোক হয়ে উটতে চান, তাহলে চড়াই পাখির সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতাতে ভুলবেন না যেন!

৪. ময়ূরের হাতছানি:

৪. ময়ূরের হাতছানি:

কোথাও বেরাতে গিয়ে যদি হঠাৎ করে ময়ূর দেখতে পান, তাহলে জানবেন দিনটা ফাটাফাটি রকম ভাল যেতে চলেছে। কারণ এ দেশের জাতীয় পাখিটিকে দেখা মাত্র আমাদের আশেপাশে পজেটিভ শক্তির প্রভাব এতটা বেড়ে যায় যে কোনও খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় কমে। সেই সঙ্গে গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়। ফলে "আচ্ছে দিন" আসতে সমতে সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, ময়ূরের দয়ায় মনের সব ইচ্ছাও পূরণ হয়।

৫. হাতি মেরে সাথি:

৫. হাতি মেরে সাথি:

রাস্তা-ঘাটে হাতিকে দেখতে পাওয়া যায় না ঠিকই! কিন্তু শাস্ত্র মতে এই প্রাণীটিকে দেখলে মনের সব ইচ্ছা পূরণ হতে শুরু করে। সেই সঙ্গে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি লাভের পথও প্রশস্ত হয়। তাই তো বাস্তু বিশেষজ্ঞরা বাড়িতে হাতির ছবি বা মূর্তি রাখার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। আসলে এমনটা করলে গৃহস্থের অন্দরে শুভ শক্তির মাত্রা এতটা বেড়ে যায় যে গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। আর এমনটা হলে জীবনটা বদলে যেতে যে সময় লাগে না, তা বলাই বাহুল্য!

৬. টিকটিকি:

৬. টিকটিকি:

অনেকেই এই সরিসৃপটিকে দেখলেই দূরে পালায়, বিশেষত মহিলারা। কিন্তু জানা আছে কি বাড়িতে টিকটিকি ঘুরে বেরানোর অর্থ হল সমৃদ্ধির প্রবেশ ঘটতে চলেছ আপনার গৃহস্থে। শুধু তাই নয়, টিকটিকি সব ধরনের খারাপ শক্তিকে দূরে রাখে। ফলে কোনও ধরনের খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় কমে। প্রসঙ্গত, এমনটাও বিশ্বাস করা হয় যে মাথায় হঠাৎ করে টিকটিকি পরলে বুঝতে হবে প্রচুর পরিমাণ টাকার মালিক হতে চলেছেন আপনি। তাই এমন ঘটনা ঘটলে ভয় পেয়ে যাবেন না যেন!

৭. পিঁপড়ে:

৭. পিঁপড়ে:

শুনতে আজব লাগলেও একথার মধ্যে কোনও ভুল নেই যে বাড়ির উতি-উতি পিঁপড়ে ঘুরে বেরানোর অর্থ হল গৃহস্থে লক্ষ্মীর আগমণ ঘটতে চলেছে। আর মায়ের আগমণ ঘটলে জীবনটা বেদলে যেতে সময় লাগে না, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। শুধু তাই নয়, মা লক্ষ্মীর আশীর্বাদে অর্থনৈতিক উন্নতিও ঘটে চোখে পরার মতো। প্রসঙ্গত, এমনটা বিশ্বাস করা হয়, যে বাড়িতে মা লক্ষ্মীর আগমণ ঘটে, সেখানে ধন দেবতা কুবেরও অধিষ্ঠান করেন। ফলে কোনও ধরনের অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যায় কমে!

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: বিশ্ব
    English summary

    Lucky and unlucky omens: What birds and animals tell us

    Birds and animals have been speaking to humans for as long as one can remember. There's a story behind every animal or bird behaviour, if legends can have it. Whether you believe the animal kingdom to be really privy to the ways of the Universe or consider these to be mere superstitions, let's check out some of the most common myths...
    Story first published: Friday, May 11, 2018, 12:44 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more