For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বাড়িতে সিংহের মূর্তি রাখলে কী কী উপকার পাওয়া যায় জানা আছে?

|

বাস্তুশাস্ত্র বাস্তবিকই এক আজব জগত। গৃহস্থকে কী করে ইন্দ্রপ্রস্থ বানানো যায়, তার চেষ্টায় যেন সদা ব্যস্ত এই শতাব্দী প্রাচীন বিদ্যা। তাই তো আজকের ডেটেও এই শাস্ত্রের গ্রহণযোগ্যতা চোখে পরার মতো। তবে আজকের এই লেখায় একেবারেই বাস্তুশাস্ত্রের গুণ গাওয়া হবে না। বরং এমন একটি বিষয়ের উপর আলোকপাত করার চেষ্টা করা হবে, যা পড়তে পড়তে যে কেউ অবাক হতে বাধ্য।

কী বিষয়ের কথা বলছেন মশাই? এই উত্তর পাবেন, তবে তার আগে বলুন তো বাড়িতে কোনও সিংহের মূর্তি আছে কিনা? হঠাৎ করে কেন এমন প্রশ্ন করছি তাই ভাবছেন নিশ্চয়? আসলে সম্প্রতি বাস্তুশাস্ত্রের উপর লেখা বেশ কিছু প্রাচীন পুঁথি ঘাঁটার সুযোগ হয়েছিল। তাতে এমন একটা জিনিস চোখে এল, যা বাস্তবিকই চমকপ্রদ! সেই সব বইয়ে এমনটা দাবী করা হয়েছিল যে বাড়িতে ব্রোঞ্জ দিয়ে তৈরি সিংহের মূর্তি যদি রাখা যায়, তাহলে নাকি বড়লোক হয়ে উঠতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে মেলে আরও অনেক উপকার। যেমন ধরুন...

১. অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটে চোখে পরার মতো:

১. অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটে চোখে পরার মতো:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে বাড়ির উত্তর-পূর্ব দিকে সিংহের মূর্তি রাখলে গৃহস্থের অন্দরে পজেটিভ শক্তির মাত্রা এতটা বৃদ্ধি পায় যে অল্প দিনে বড়লোক হয়ে উঠতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করার পথও প্রশস্ত হয়। তাই তো বলি বন্ধু, পকেট ভর্তি টাকার মালিক হয়ে ওঠার স্বপ্ন যদি এ জন্মে পূরণ করতে চান, তাহলে আজই একটি ব্রোঞ্জের সিংহ কিনে আনতে ভুলবেন না যেন!

২. শুভ শক্তির প্রভাব বাড়তে থাকে:

২. শুভ শক্তির প্রভাব বাড়তে থাকে:

শাস্ত্র মতে বাড়ির অন্দরে শুভ শক্তির মাত্রা বাড়তে থাকলে কোনও ধরনের খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যেমন কমে, তেমনি পরিবারে সুখ-শান্তি বজায় থাকে। শুধু তাই নয়, মা লক্ষ্নীর প্রবেশ ঘটে গৃহস্থের অন্দরে। ফলে সুখের ঝাঁপি যে কখনও খালি হয় না, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। এখন প্রশ্ন হল গৃহস্থের অন্দরে শুভ শক্তির প্রভাব বাড়বে কীভাবে? এক্ষেত্রে বাড়িতে একটি সিংহের মূর্তি এনে রাখতে হবে। তাহলেই দেখবেন কেল্লা ফতে!

৩. সামাজিক সম্মান বৃদ্ধি পাবে:

৩. সামাজিক সম্মান বৃদ্ধি পাবে:

বাস্তুসাস্ত্র অনুসারে বাড়ির দক্ষিণ-পূর্ব দিকে ছোট ছোট দুটো সিংহের মূর্তি ঝোলালে কর্মক্ষেত্রের পাশাপাশি সামাজিক সম্মান বৃদ্ধির সম্ভাবনা বাড়বে। ফলে জীবন সুখ-শান্তিতে ভরে উঠতে সময় লাগবে না।

৪. মনের জোর বাড়ে:

৪. মনের জোর বাড়ে:

বাড়ির উত্তর-পূর্ব দিকে ব্রোঞ্জের সিংহের মূর্তি রাখলে পজেটিভ শক্তির মাত্রা তো বাড়েই। সেই সঙ্গে মনের জোর এতটা বেড়ে যায় যে কোনও বাঁধাই তখন বাঁধা মনে হয় না। ফলে সফলতা রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। শুধু তাই নয়, জীবনে চলার পথে মাথা চাড়া দিয়ে ওঠা যে কোনও বাঁধার পাহাড়কে সরিয়ে ফেলা সম্ভব হয় যদি মনের জোর তুঙ্গে থাকে তো। তাই বন্ধু, জীবন যুদ্ধে যদি জয় লাভ করতে চান, তাহলে সিংহের মূর্তি বাড়িতে আনতে দেরি করবেন না যেন!

৫. কু-দৃষ্টির প্রকোপ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়:

৫. কু-দৃষ্টির প্রকোপ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়:

আজকের প্রতিযোগিতাময় দুনিয়ায় যেখানে সবাই সবাইকে মারার চেষ্টায় লেগে রয়েছেন, সেখানে ঈর্ষায় আক্রান্ত হয়ে বহু লোক যে বাঁকা নজরে আপনার দিকে চেয়ে রয়েছেন, সেদিকে কোনও সন্দেহ নেই! তাই তো কু-নজরের হাত থেকে বাঁচতে আজই সিংহের মূর্তি নিয়ে এসে বাড়ির উত্তর-পশ্চিম কোনে রাখা উচিত। এমনটা করলে গৃহস্থের অন্দরে এমন কিছু পরিবর্তন হতে শুরু হয় যে খারাপ শক্তি ধারে কাছেও ঘেঁষতে পারে না।

৬. টয়লেটের কাছাকাছি রাখা চলবে না:

৬. টয়লেটের কাছাকাছি রাখা চলবে না:

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে ব্রোঞ্জের সিংহের ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে যদি জীবনকে সুন্দর করে তুলতে চান, তাহলে ভুলেও রান্নাঘর বা বাথরুমের সামনে সিংহের মূর্তিটি রাখবেন না যেন! কারণ এমনটা করলে মূর্তিটির ক্ষমতা কমতে থাকবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোনও সুফলই মিলবে না। তাই সুখ-সমৃদ্ধির সন্ধান পেতে এই নিয়মটি মাথায় রাখতে ভুলবেন না যেন!

৭. দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের দরজা:

৭. দক্ষিণ-পশ্চিম দিকের দরজা:

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে বাড়ির সদর দরজা ভুলেও দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে হওয়া উচিত নয়। কারণ এই দিকে দরজা বানালে বাড়ির অন্দরে খারাপ শক্তির প্রবেশ ঘটতে সময় লাগে না। ফলে একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় বেড়ে। প্রসঙ্গত, এখন প্রশ্ন হল যারা ইতিমধ্যেই ভুল দিকে দরজা বানিয়ে ফেলেছেন, তারা কী করবেন? এক্ষেত্রে সদর দরজার বাইরে হনুমান জি এবং সিংহের মূর্তি রাখতে হবে। এমনটা করলে দেখবেন যে পজেটিভ শক্তির প্রভাব এতটা বেড়ে যাবে যে খারাপ শক্তি কারণে কোনও ক্ষতিই হবে না।

এতক্ষণে নিশ্চয় প্রবন্ধের শুরুতে করা প্রশ্নটির, কী বিষয়ের কথা বলছেন মশাই? এর উত্তর নিশ্চয় পেয়ে গেছেন! আর যদি এই ঘরোয়া টোটকাটি কাজে লাগিয়ে সুফল পান, তাহলে এই প্রবন্ধটি বন্ধুদের মধ্যে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন!

Read more about: বিশ্ব
English summary

Keep a Bronze Lion in Your House For Maximum Vastu Benefits

Be it a miniature or a large-size bronze lion’s statue, placing it in the house not only beings positivity in your house, but also improves your self-confidence. However, one thing that needs to be remembered is to place the lion’s statue in the north-east direction.
Story first published: Tuesday, May 8, 2018, 12:54 [IST]
X