For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

দাম্পত্য জীবন সুখে কাটাতে বিবাহের আগে অবশ্যই এই প্রশ্নগুলি আপনার পার্টনারকে জিজ্ঞাসা করুন

|

আমাদের সমাজে বিবাহকে সবচেয়ে বড় সংস্কার বলে মনে করা হয়। বিবাহ কেবলমাত্র দুটি মানুষের মিলনই নয়, পাশাপাশি দুটি পরিবারকে একত্রিত করার বিষয়েও সমান গুরুত্বপূর্ণ। বিবাহকে, কোনও মানুষের গোটা জীবনের ধার্মিক বন্ধন হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তাই বিবাহ সম্পর্কিত কোনও বিষয় উপেক্ষা করা ঠিক নয়। বিবাহের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ছেলে-মেয়ে একে অপরকে খুব ভালভাবে জানা জরুরি, যাতে পরে কোনও বিষয় নিয়ে সমস্যা না হয়।

এমন কিছু বিষয় রয়েছে, যা বিয়ের আগেই একে অপরের পরিষ্কার করে নেওয়া ভাল। এটি একে অপরকে জানতে-চিনতে সহায়তা করবে এবং বিবাহ সম্পর্কে আপনি সহজেই কোনও সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন। তাহলে জেনে নিন, কোন প্রশ্নগুলি বিয়ের আগে আপনার সঙ্গীকে জিজ্ঞাসা করা ভাল।

আপনার উপর বিয়ের জন্য কোনও চাপ নেই তো?

আপনার উপর বিয়ের জন্য কোনও চাপ নেই তো?

অনেক সময় বয়স বাড়া বা অন্যান্য অনেক কারণে ছেলে-মেয়েকে পরিবার থেকে বিবাহের জন্য চাপ দেওয়া হয়। তাই, যার সঙ্গে আপনি আপনার বাকিটা জীবন কাটাতে চলেছেন তাকে অবশ্যই জিজ্ঞাসা করুন, এই বিবাহের জন্য তার উপর পারিবারিক বা অন্য কোনও চাপ আছে কিনা। তার কাছ থেকে এটাও জেনে নিন যে, তার অন্য কোনও পছন্দ আছে কিনা।

আপনি কী করতে পছন্দ করেন?

আপনি কী করতে পছন্দ করেন?

আপনি আপনার বাকিটা জীবন যে ব্যক্তির সঙ্গে কাটাতে চলেছেন, তার সম্পর্কে আপনি যত বেশি তথ্য সংগ্রহ করবেন ততই আপনার পক্ষে ভাল হবে। আপনি তাকে আরও বেশি করে জানতে-চিনতে পারবেন, ফলে বিয়ের পরে অস্বস্তিতে পড়তে হবে না। আপনি আপনার পার্টনারের অভ্যাস এবং শখ সম্পর্কে জানুন। ছুটির দিন সে কীভাবে কাটাতে পছন্দ করে, ঘুরতে যেতে পছন্দ করে কিনা, পছন্দের খাবার কি, এই সমস্ত ছোট ছোট প্রশ্ন-উত্তরগুলিই আপনাদের বিবাহকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করবে।

আমি কি বিয়ের পরেও চাকরি করতে পারব?

আমি কি বিয়ের পরেও চাকরি করতে পারব?

এই ধরনের প্রশ্ন বিশেষত মেয়েদের উচিত তার হবু পার্টনারকে জিজ্ঞাসা করা। আপনার ভবিষ্যতের পরিকল্পনা সম্পর্কে তার সঙ্গে কথা বলুন। আপনি বিয়ের পরে গৃহিনী হয়ে থাকতে চান বা চাকরি করতে চান, এই বিষয়ে আপনার পার্টনারের মত জেনে নিন। চাকরি করা নিয়ে আপনার হবু স্বামী রাজি কিনা, সে আপনার ক্যারিয়ার সম্পর্কে কী ভাবছে বা বিয়ের পরে সে আপনাকে সমর্থন করবে কিনা, এই সমস্ত বিষয়ে আপনার পার্টনারের সঙ্গে খোলাখুলি কথা বলুন যাতে বিয়ের পরে কোনও সমস্যায় না পড়তে হয়।

ফ্যামিলি প্ল্যানিং সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করুন

ফ্যামিলি প্ল্যানিং সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করুন

ফ্যামিলি প্ল্যানিং সম্পর্কে কথা বলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনার সঙ্গীর মনের মধ্যে কি চলছে তা অবশ্যই জানার চেষ্টা করুন যে, বিয়ের পরে সে তার ক্যারিয়ারের দিকে মনোনিবেশ করতে চায়, নাকি একে অপরকে সময় দিতে চায়, নাকি বাচ্চা নিয়ে কোনও প্ল্যানিং আছে। বিয়ের পরে সে হানিমুনে যেতে চায়, নাকি এর জন্যও সময় লাগবে। এই সমস্ত বিষয়ে কথা বলার সময় আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনাদের মতামত এক না আলাদা। আপনার পার্টনারের মতামত থেকেই বুঝতে পারবেন যে, বিবাহের পর একে অপরের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে কত সময় লাগতে পারে।

রোম্যান্স সম্পর্কে তার মতামত কী?

রোম্যান্স সম্পর্কে তার মতামত কী?

বিয়ের আগে রোম্যান্স ও শারীরিক সম্পর্ক নিয়ে কথা বলা অনেকেই পছন্দ করে না, লজ্জা পায় বা এড়িয়ে যায়। তাই তারা বিষয়টিকে উপেক্ষা করতেই বেশি পছন্দ করে। তবে কয়েকবার দেখা করা বা কথা বলার পর আপনি আপনার পার্টনারকে জিজ্ঞাসা করতেই পারেন যে, সে কতটা রোমান্টিক বা শারীরিক সম্পর্কের বিষয়ে তার চিন্তাভাবনা কীরকম।

জানেন কি বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে প্রথম দিন নববধূর মনে কী ধরনের ভাবনা আসে?

English summary

Important Questions To Ask Your Partner Before Marriage

You will never get to know your partner perfectly — but there are some questions should everyone ask their partners before getting married.
X