বাড়িতে প্যাঁচার মূর্তি রাখা উচিত কেন জানেন?

Subscribe to Boldsky

ফেংশুই সম্পর্কে নিশ্চয় ধরণা আছে? এই প্রাচীন চিনা শাস্ত্রটি অনুসারে প্রতিটি বাড়ির অন্দরেই যেমন রয়েছে পজেটিভ শক্তি, তেমনি রয়েছে নেগেটিভ বা অশুভ শক্তিও। ভয়ের বিষয় হল যখন পজেটিভ শক্তির মাত্রা বাড়তে শুরু করে, তখন কিন্তু নানাবিধ বিপদ ঘটার আশঙ্কা যায় বেড়ে। কারণ সেক্ষেত্রে একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটতে শুরু করে। সেই সঙ্গে মারাত্মক অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে। তাই সাবধান!

এখন প্রশ্ন হল গৃহস্থের অন্দরে নেগেটিভ শক্তির মাত্রা বাড়ছে কিনা, তা বোঝা যাবে কীভাবে? এক্ষেত্রে জেনে রাখা ভাল যে খালি চোখে অশুভ শক্তির মাত্রা বাড়ছে কিনা, তা কিন্তু বুঝে ওঠা একেবারেই সম্ভব নয়। তাই তো নানাবিধ বিপদের হাত থেকে বাঁচতে এই প্রবন্ধে চোখ রাখাটা একান্ত প্রয়োজন। কারণ এই লেখায় এমন একটি জিনিসের সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যা বাড়িতে রাখলে একদিকে যেমন নেগেটিভ শক্তির মাত্রা কমতে শুরু করে, তেমনি আরও নানাবিধ উপকার পাওয়ার সম্ভাবনাও যায় বেড়ে, যে সম্পর্কে এই প্রবন্ধে বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

এত দূর পড়ার পর নিশ্চয় জানতে ইচ্ছা করছে যে কী এমন জিনিস রয়েছে, যা বাড়িতে রাখলে এত উপকার পাওয়া যায়! তাহলে জেনে রাখুন বন্ধু, এক্ষেত্রে বাড়ির ড্রয়িং রুমে একটা প্যাঁচার মূর্তি এনে রাখতে হবে। এমনটা করলে দেখবেন জীবনটাই বদলে যাবে। কারণ...

১. গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে উঠবে:

১. গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে উঠবে:

ফেংশুই বিশেষজ্ঞদের মতে বাড়িতে প্যাঁচার মূর্তি এনে রাখলে গৃহস্থের অন্দরে জায়গা করে নেওয়া নেগেটিভ শক্তির মাত্রা কমতে শুরু করে, পরিবর্তে বাড়তে শুরু করে পজেটিভ শক্তির প্রভাব। ফলে গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। আর এমনটা যখন হয়, তখন মনের ছোট থেকে ছোটতর ইচ্ছা যেমন পূরণ হতে শুরু করে, তেমনি কর্মক্ষেত্র থেকে সামাজিক জীবন, সবেতেই চরম সফলতার স্বাদ মেলে। ফলে জীবনের ছবিটা বদলে যেতে সময় লাগে না।

২. খারাপ শক্তি দূরে থাকে:

২. খারাপ শক্তি দূরে থাকে:

যেমনটা আগেও আলোচনা করা হয়েছে যে বাড়ির যে কোনও ঘরে প্যাঁচার মূর্তি এনে রাখলে একদিকে যেমন খারাপ শক্তির প্রভাব কমতে শুরু করে, তেমনি কারও কু-দৃষ্টির কারণে কোনও ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও হ্রাস পায়। সেই সঙ্গে কালো যাদু বা তুকতাক করার কারণে কোনও ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও কমে। তাই তো বলি বন্ধু এই প্রতিযোগিতাময় দুনিয়ায় যদি নিজেকে বাঁচিয়ে রাখতে হয়, তাহলে এই ঘরোয়া টোটকাটিকে কাজে লাগাতে ভুলবেন না যেন!

৩. কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভের পথ প্রশস্ত হয়:

৩. কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভের পথ প্রশস্ত হয়:

ফেংশই শাস্ত্রের উপর লেখা একাধিক বই অনুসারে বাড়িতে একটি প্যাঁচার মূর্তি এনে রাখলে গৃহস্থের পরিবেশ এমন বদলে যায় যে তার প্রভাব শরীর এবং মস্তিষ্কের উপর পরে। ফলে একদিকে যেমন দৈহিক ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, তেমনি স্মৃতিশক্তি এবং মনোযোগ ক্ষমতাও চোখে পরার মতো বাড়তে থাকে। ফলে কর্মক্ষেত্রে চরম সফলতা লাভের সম্ভাবনা যায় বেড়ে। এবার বুঝেছেন তো বন্ধু, ছোটদের পড়ার ঘরে প্যাঁচার শোপিস রাখার পরামর্শ কেন দেওয়া হয়।

৪. বড়লোক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হয়:

৪. বড়লোক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হয়:

শত চেষ্টা করেও কি টাকা সঞ্চয় করে উঠতে পারছেন না? তাহলে বন্ধু আজই একটা প্যাঁচার শোপিস এনে বাড়িতে রাখুন। দেখবেন উপকার পাবেন একেবারে হাতে-নাতে! কারণ এমনটা করলে একদিকে যেমন অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির ছোঁয়া লাগবে, তেমনি কোনও ধরনের অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও যাবে কমে। ফলে অল্প সময় বড়লোক হয়ে ওঠার স্বপ্ন পূরণ হতে সময় লাগবে না।

৫. রোগ-ব্যাধির প্রকোপ কমবে:

৫. রোগ-ব্যাধির প্রকোপ কমবে:

শুনতে আজব লাগলেও একথার মধ্যে কোনও ভুল নেই যে প্যাঁচার গুণে শরীরে অন্দরে উপস্থিত ছোট-বড় সমস্ত ধরনের রোগ-ব্যাধির প্রকোপ কমতে শুরু করে। ফলে রোগমুক্ত শরীর পাওয়ার স্বপ্ন পূরণ হতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে আয়ুও বৃদ্ধি পায় চোখে পরার মতো। তাই তো বলি বন্ধু সুস্থ শরীরে সুখে-শান্তিতে যদি বাঁচতে হয়, তাহলে ঘরের অন্দরে প্যাঁচার মূর্তিকে জায়গা করে দিতে ভুলবেন না যেন!

৬. বৈবাহিক জীবন সুখে-শান্তিতে কেটে যায়:

৬. বৈবাহিক জীবন সুখে-শান্তিতে কেটে যায়:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে বাড়িতে ছোট্ট একটা প্যাঁচার শোপিস এনে রাখলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার সম্পর্কের উন্নতি ঘটে, সেই সঙ্গে গৃহস্তের অন্দরে কোনও ধরনের অশান্তি বা কলহ মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার সম্ভাবনাও যায় কমে।

বাড়ির কোথায় কোথায় প্যাঁচার মূর্তি রাখলে বেশি উপকার পাওয়া যায়:

বাড়ির কোথায় কোথায় প্যাঁচার মূর্তি রাখলে বেশি উপকার পাওয়া যায়:

ফেংশুই বিশেষজ্ঞদের মতে সোনালী রঙের প্যাঁচার মূর্তি যদি বাড়ির দক্ষিণ-পর্ব কোনে রাখা যায়, তাহলে অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটতে যেমন সময় লাগে না, তেমনি কর্মক্ষেত্রে সফলতা লাভ করার সম্ভাবনাও যায় বেড়ে। আর যদি পূর্ব দিকে বা উত্তর দিকে রাখতে পারেন, তাহলে খারাপ কোনও ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় কমে, সেই সঙ্গে বাকি উপকারগুলি মিলতেও সময় লাগে না। প্রসঙ্গত, এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে অফিস ডেস্কে প্যাঁচার মূর্তি রাখলে মাইনে বাড়ে চোখে পরার মতো। সেই সঙ্গে অল্প সময়ে পদন্নতি লাভ করার সম্ভাবনাও থাকে।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: বিশ্ব
    English summary

    Importance of Fengshui Owl

    The owl is a very mysterious and rare to find animal which very few of us get a chance to see. The nocturnal owl is considered as a symbol of protection from evil, symbol of wisdom and also as the truth seeker. It brings about powerful and positive vibes in fields of knowledge and intelligence. A gold covered figurine of an owl not only looks splendid as a home décor item but also brings about prosperity vibes owing to its rich gold color. Though placing a Fengshui in the house might not necessarily bring in richness and good luck suddenly but it does help in reversing bad luck and negativity. While there may be some who are skeptical on placing an owl, but they are definitely worth a try and they are beautiful as décor ornaments in the house. These are available in myriad hues of the rainbow and come in different finishes ranging from rustic to elegant and some cute owls for little kids. An owl is said to protect the family from ill health and evil spirits.
    Story first published: Monday, June 4, 2018, 15:37 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more