For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সম্বন্ধ করে বিয়ে? প্রথম সাক্ষাৎ-এ আপনার হবু জীবনসঙ্গীকে এই প্রশ্নগুলি করুন

|

আমাদের প্রত্যেকের জীবনে বিয়ে অত্যন্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। সঠিক মানুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেওয়া খুব একটা সহজ কাজ নয়। দুটি মানুষ এক ছাদের তলায় থাকতে গেলে একে অপরের পছন্দ-অপছন্দ, ভালো লাগা-খারাপ লাগাগুলো জানতে হয়, সেগুলোকে প্রাধান্য দিতে হয়। নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া না থাকলে, ভাল বন্ডিং না থাকলে সম্পর্ক টেকা মুশকিল হয়ে পড়ে। প্রতিটি বিবাহিত মানুষই চান তার দাম্পত্য জীবন সুখে-শান্তিতে কাটুক, রোমান্টিকতা যেন বজায় থাকে। তবে সেটার জন্য সঠিক জীবনসঙ্গী বেছে নিতে হবে।

সম্বন্ধ করে বিয়ে হলে সাধারণত ছেলের বাড়ি থেকে প্রথমে দেখতে আসে মেয়েকে। তারপর মেয়ের বাড়ি থেকে যায়। পছন্দ হয়ে গেলে ছেলে-মেয়ে আলাদা করে দেখা সাক্ষাৎ করে। এখন অনেকেই রেস্টুরেন্ট বা কফি শপে যান হবু জীবনসঙ্গীর সঙ্গে আলাপ করতে, তার সম্বন্ধে জানতে, তাকে ভালভাবে চিনতে। সম্বন্ধ করে বিয়ের ক্ষেত্রে যেহেতু আগে থেকে কেউ কাউকে চেনেন না, তাই বিয়ের আগে একে অপরকে চিনে নেওয়াটা খুব দরকার। কিন্তু কীভাবে চিনবেন উল্টো দিকের মানুষটাকে? বুঝবেন কী করে তার সঙ্গে আপনার মনের মিল হবে কিনা? কয়েকটি সহজ প্রশ্নে কিন্তু আপনি আপনার হবু জীবনসঙ্গীকে অনেকটা জেনে নিতে পারেন। এই সাধারণ প্রশ্নগুলি কিন্তু আপনাকে বুঝিয়ে দেবে সামনের মানুষটার সঙ্গে আপনি বাকি জীবনটা কাটাতে পারবেন কিনা।

১) পছন্দ-অপছন্দ এবং ইন্টারেস্ট

১) পছন্দ-অপছন্দ এবং ইন্টারেস্ট

পছন্দ-অপছন্দ, ভালোলাগা খুব ইম্পর্টেন্ট। আমাদের প্রত্যেকের পছন্দ, ভালোলাগার জায়গা থাকে নির্দিষ্ট। হঠাৎ করে সেগুলো বদলানো যায় না। তেমনি সম্পূর্ণ আলাদা একটা মানুষ, যারা ভালোলাগা, পছন্দ আপনার থেকে আলাদা, তার সঙ্গে জীবন কাটানো খুব মুশকিল। মনে করুন, আপনি একটু ঘরকুনো, আর আপনার হবু সঙ্গী লোকের সঙ্গে মিশতে পছন্দ করে। আপনার পক্ষে কিন্তু সমস্যা হবে নিজের ইনট্রোভার্ট চরিত্র থেকে বেরিয়ে এসে সামাজিক হওয়ার। তাই আপনার পছন্দের সাথে আপনার হবু সঙ্গীর পছন্দ-অপছন্দ মিলছে কিনা সেটা জেনে নিন।

২) কেমন পার্টনার চান

২) কেমন পার্টনার চান

নিজের জীবনসঙ্গী কেমন হবে তা নিয়ে প্রতিটি মানুষের স্বপ্ন থাকে। যখন কারুর সঙ্গে আপনার বিয়ের কথা হবে তখন আপনি চাইবেন আপনার মনের মতো হোক তিনি। একে অপরের এক্সপেক্টটেশন জানলে সেইমতো নিজেদের তৈরি করে নিতে পারবেন। আর যদি দেখেন সামনের মানুষটির এক্সপেক্টটেশন আপনার কাছে অবাস্তব মনে হচ্ছে, বা বুঝতে পারছেন যে আপনি সেরকম কোনওদিন হতে পারবেন না, তাহলে সেই মুহূর্তে সরে যাওয়া ভালো। নাহলে ভবিষ্যতে সমস্যা হতে পারে।

৩) ভবিষ্যতের লক্ষ্য এবং পরিকল্পনা

৩) ভবিষ্যতের লক্ষ্য এবং পরিকল্পনা

জীবনের অনেকটা সময় আমরা জীবনসঙ্গীর সঙ্গে কাটাই। তাই যার সঙ্গে নিজের জীবন কাটাতে চলেছেন সে ভবিষ্যত নিয়ে কী ভাবনা-চিন্তা করছে তা অবশ্যই জেনে নেওয়া দরকার। কেরিয়ার নিয়ে এখন সবাই উচ্চাকাঙ্খী, আপনি হয়তো কেরিয়ারে ফোকাস করতে চান, অথচ আপনার হবু সঙ্গী চান কেরিয়ারের থেকে পরিবারকে আপনি বিয়ের পর বেশি প্রেফার করবেন। এরকম বিপরীত মেরুর মানুষ হলে বিয়ের পর সংঘাত লাগতে বাধ্য। তাই আগে থেকে জেনে নিন একে অন্যের ভবিষ্যত পরিকল্পনা।

৪) পরিবারের দায়িত্ব

৪) পরিবারের দায়িত্ব

বিয়ের পর সব মেয়েই শ্বশুরবাড়ির ঘরোয়া সমস্ত দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেয়। কিন্তু খুব কম ছেলেই সেটা করে। সমাজ উন্নত হলেও এই মানসিকতার উন্নতি ঘটেনি। এক্ষেত্রে আপনার হবু স্বামীর চিন্তাভাবনা কী, তা জানতে পারলে মানুষটার সম্পর্কে অনেকটা ধারণা তৈরি হবে।

English summary

Going for an arranged marriage? Here are the questions to ask on the first meeting

Here are some questions that you must ask during your first meeting. Read on.
X