For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

(ছবি) অফিসে যে জিনিসগুলি করা আমাদের একদম উচিত নয়

|

অফিসে বা কাজের জায়গায় নানা ধরনের লোকের সঙ্গে আমাদের আলাপ হয়। কেউ খুব একঘেয়ে, কেউ গায়ে পড়া স্বভাবের, কেউ কুঁচুটে আবার কারও আবার বিদঘুঁটে স্বভাব রয়েছে যা পাশের সহকর্মীকে বিরক্ত করার জন্য যথেষ্ট। [অফিস সংক্রান্ত এই ১০টি বদ অভ্যাস যা আপনার আমার সকলের আছে!]

অফিসে বা কাজের জায়গায় সবারই নিত্যদিনের কিছু টাস্ক থাকে যা করতেই হয়। তবে এমন স্বভাবের মানুষ পাশে থাকলে তা করে ওঠা প্রায় অসম্ভব হয়ে ওঠে। [এই ১০টি কুসংষ্কার মেনে চলে অধিকাংশ ভারতীয়]

নিচের স্লাইডে দেখে নিন এর মধ্যে কোন স্বভাবটি আপনার রয়েছে যা সহকর্মীর মাথায় আগুন লাগিয়ে দেওয়ার পক্ষ্যে যথেষ্ট। [গোপনাঙ্গ নয়, জানুন শরীরের কোন চেনা জায়গা সবচেয়ে নোংরা]

ঢেঁকুর তোলা

ঢেঁকুর তোলা

কখনও কখনও কিছু জিনিসকে আটকানো যায় না এটা স্বাভাবিক। তবে কারও কারও খাবার পরই লম্বা ঢেঁকুর তোলার অভ্যাস থাকে। কাজের জায়গায় গুরুগম্ভীর মুহূর্তে এমন স্বভাব পাশের সহকর্মীর কাজের ক্ষতি করতে পারে।

জোরে ফোনে কথা বলা

জোরে ফোনে কথা বলা

বেশিরভাগ অফিসেই সহকর্মীরা এক জায়গায় বসে কাজ করেন। সেখানে সবার কাজের মাঝে জোরে জোরে ফোনে কথা বলা খুব খারাপ অভ্যাস।

অদ্ভুত রিং টোন

অদ্ভুত রিং টোন

অনেকের অদ্ভূত সব রিং টোন ফোনে লাগানোর অভ্যাস রয়েছে। তবে তাদের এই স্বভাব অফিসের পরিবেশ নষ্ট করে।

বাতকর্ম সারা

বাতকর্ম সারা

অনেক সময়ই এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় না। তবে গোপনে করা বাতকর্ম সহকর্মীদের বিব্রত তো করেই, ফাঁস হলে মান-সম্মানের দফারফা করে দেয়।

জোরে জোরে কি-বোর্ড ঠোকা

জোরে জোরে কি-বোর্ড ঠোকা

আপনি কাজ করছেন সেটা জানানোর জন্য জোরে জোরে কি-বোর্ড না ঠুকলেও চলে। মনে রাখবেন শুধু এটা দিয়ে কাজের হিসাব হয় না।

নাক খোঁটা

নাক খোঁটা

অনেক লোকেরই নানা জায়গায় নাক খোঁটার অভ্যাস থাকে। অফিসে সকলের মাঝে হোক, অথবা বাড়িতে নিশ্চিন্তে, কেউ কেউ জায়গার পরোয়া করেন না। তবে এমন বিদঘুঁটে অভ্যাসে সহকর্মীরা বিরক্ত হন তাতে সন্দেহ নেই।

বাতরুমে ফ্ল্যাশ না করা

বাতরুমে ফ্ল্যাশ না করা

বাতরুমে কাজ সারার পরে ফ্ল্যাশ না করা ঘোকতর অন্যায়। অফিসে বা পাবলিক টয়লেটে এই অপকর্মটি অনেকেই করে থাকেন যার ফল ভুগতে হয় অন্যদের।

ডেস্কে বসে খাওয়া

ডেস্কে বসে খাওয়া

অফিসের সুন্দর সাজানো-গোছানো ডেস্কটিকে অনেকে ডিনার টেবল বানিয়ে ফেলেন। এই অভ্যাস অত্যন্ত বাজে এবং কখনই অফিসে করা উচিত নয়।

অতিরিক্ত কথা বলা

অতিরিক্ত কথা বলা

অফিসে অনেকেই কাজের ফাঁকে বা অবসরে কথা বলেন। তবে কিছু মানুষ রয়েছেন যারা কথা বলতে শুরু করলে কোথায় থামতে হবে তা বুঝতে পারেন না।

পা নাড়ানো

পা নাড়ানো

অনেকেই নিজের জায়গায় বসে পা নাড়ানো বা নাচাতে থাকেন। এই অভ্যাসটি অত্যন্ত বাজে এবং সহকর্মীদের বিরক্ত করার পক্ষে আদর্শ।

English summary

Crazy Things We Should Stop Doing At Work

Crazy Things We Should Stop Doing At Work
Story first published: Monday, August 17, 2015, 19:33 [IST]
X