সাবধান: শনি-মঙ্গলবার চুল-দাড়ি কাটলে কী কী ক্ষতি হতে পারে জানা আছে?

Written By:
Subscribe to Boldsky

ছোট থেকে আমার মতো আপনারও নিশ্চয় শুনে আসছেন যে সপ্তাহের বিশেষ কিছু দিনে চুল-দাড়ি কাঠা একেবারেই উচিত নয়। আর ওই সব দিনে যদি শেভ করেন, তাহলেই সব শেষ! কারণ সেক্ষেত্রে খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা তো বাড়বেই, সেই সঙ্গে পরিবারের অন্দরে দুঃখের কালো মেঘ ছেয়ে যাবে। ফলে একের পর এক খারাপ ঘটনা সম্ভাবনা যাবে বেড়ে।

এমন ভয় দেখানোর পর কারও মনের জোড় এত থাকে না যে এই সব বিশ্বাস আদৌ সত্যি কিনা তা পরখ করে দেখার। তাই তো সিংহ ভাগই অন্ধের মতো এই নিয়মগুলি মেনে চলতে থাকেন। জানা র চেষ্টাও করেন না কী কী কারণে এই বিশেষ বিশেষ দিনগুলিতে চুল, দাড়ি বা নখ কাটতে মানা করা হয়। তাই তো এই প্রবন্ধে এই সব ধরণার উপর আলোকপাত করার চেষ্টা করা হল, জানার চেষ্টা করা হল সপ্তাহের কোন দিন দাঁড়ি বা নখ কাটা চলবে না। শুধু তাই নয়, কেউ যদি এই সব নিয়ম মেনে না চলেন, তাহলে কী কী ক্ষতি হতে পারে সে সম্পর্কেও বিস্তারিত আলোচনা করা হল।

আজকের ডেটে প্যাম্পাডোর হেয়ার স্টাউল, সঙ্গে বাজিরাও সুলভ গোঁফ এবং দাড়ি, এ যেন যুবসমাজের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়েছে। দশে নটি ছেলেরই এই একই স্টাইল। তাই তো বেশিরভাগই বার না দেখেই সেলুনে পৌঁছে যান। কারণ যুবসমাজের কাছে স্টাইল সব কিছু। বিপদ আসলে আসুক, কিন্তু খারাপ দেখতে যেন না লাগে। তবে এ কথা হলফ করে বলতে পরি যে একবার এই প্রবন্ধ পড়ার পর আপনি যতই স্টাইলিশ হোন না কেন, সপ্তাহের এই দিনগুলিতে কাঁচি ছোঁয়াতে দেবেন না চুলে।

১. সোমবার:

১. সোমবার:

হিন্দুশাস্ত্র অনুসারে সোমবার হলে চাঁদের দিন। তাই তো এদিন নখ বা দাড়ি কাটলে মানসিক অশান্তি বাড়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। একই ঘটনা ঘটে সোমবার দাড়ি কাটলেও। তাই তো সপ্তাহের শুরু দিনে চুল-দাড়ি কাটতে মানা করা হয়। প্রসঙ্গত, কে কতটা খুশি, তা নির্ভর করে আমরা মানসিকভাবে কতটা শান্তিতে আছি, তার উপর। তাই তো মানসিক শান্তি যাতে কোনওভাবে বিঘ্নিত না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। তাহলেই দেখবেন কেল্লা ফতে!

২. মঙ্গলবার:

২. মঙ্গলবার:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে সপ্তাহের এই দিনে চুল-দাড়ি কাটা বেজায় অশুভ। আর যদি কেউ এমনটা করে থাকেন, তাহলে নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হওযার আশঙ্কাও যায় বেড়ে। ফলে আয়ু কম চোখে পরার মতো। এমনটা অপনার সঙ্গেও ঘটুক যদি না চান, তাহলে ভুলেও মঙ্গলবার দাড়ি-গোঁফ কাটবেন না যেন! এমনকি ইন্টারভিউ থাকলেও না।

৩. বুধবার:

৩. বুধবার:

শাস্ত্র মতে এই দিনে চুল, দাড়ি এবং নখ কাটা চলতেই পারে। শুধু তাই নয়, নখ-দাড়ি কেটে ভাল করে স্নান সেরে যদি প্রতি বুধবার মা লক্ষীর আরাধনা করা যায়, তাহলে গৃহস্থে সুখ-শান্তির পরিবেশ বজায় থাকে। সেই সঙ্গে কর্মক্ষেত্রে উন্নতি মেলে। শুধু তাই নয়, অর্থনৈতিক উন্নতি লাভের সম্ভাবনাও বৃদ্ধি পেতে শুরু করে।

৪. বৃহস্পতিবার:

৪. বৃহস্পতিবার:

ভুলেও এই দিনে নখ বা চুল-দাড়ি কাটা চলবে না কিন্তু! কারণ বৃহস্পতিবার হল ভগবান বিষ্ণুর দিন। তাই তো এদিন এসব কাজ করলে মা লক্ষী খুব রেগে যান। ফলে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যেমন বৃদ্ধি পায়, তেমনি বাড়ির অন্দরে সুখ-শান্তিও বিঘ্নিত হয়। ফলে জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠতে সময় লাগে না।

৫. শুক্রবার:

৫. শুক্রবার:

সপ্তাহের এই দিনে শুক্র গ্রহের প্রভাব খুব বেশি থাকে। আর শাস্ত্র মতে এই গ্রহটি হল সৌন্দর্যের প্রতীক। তাই তো এই দিনে নিজেকে সুন্দরে করে তুলতে কোনও বাঁধা নেই। ফলে শুক্রবার খুশি মনে চুল-দাড়ি কাটুন। এদিন নখও কাটতে পারেন। কোনও ক্ষতি হবে না। প্রসঙ্গত, এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে শুক্রবার নখ-দাড়ি কাটার মতো কাজ করলে সফলতা লাভের সম্ভাবনা বাড়ে। সেই সঙ্গে অর্থনৈতিক উন্নতি লাভের পথও প্রশস্ত হয়।

৬. শনিবার:

৬. শনিবার:

সপ্তাহের এই দিনটিতে শনি দেবের আরাধনা করা হয়ে থাকে। তাই তো এই দিন চুল-দাড়ি কাটা বেজায় অশুভ লক্ষণ হিসেবে বিবেচিত করা হয়ে থাকে। আর একবার শনি দেব রেগে যান, তাহলে কিন্তু জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠতে সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, হঠাৎ করে অ্যাক্সিডেন্ট হওয়ার আশঙ্কাও যায় বেড়ে। এবার বুঝেছেন তো শনি এবং মঙ্গলবার কেন তুল-দাড়ি এবং নখ কাটতে মানা করা হয়ে থাকে।

৭. রবিবার:

৭. রবিবার:

হিন্দু শাস্ত্রের উপর লেখা একাধিক প্রাচীন গ্রন্থ অনুসারে রবীবার হল সূর্য দেহের আরাধনা করার দিন। তাই এই দিন চুল-দাড়ি কাটা বেজায় আশুভ। এমনকি রবিবার নখ কাটাও চলবে না। আর যদি কেউ এই নিয়ম না মানেন, তাহলে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। সেই সঙ্গে মানসিক এবং শারীরিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনাও থাকে। প্রসঙ্গত, মহাভারতেও এই বিষয়টির উল্লেখ পাওয়া যায়। তাই ভুলেও এদিনে নিজেকে সুন্দর করে তোলার কথা ভাববেন না যেন!

Read more about: বিশ্ব
English summary

Beware: Cut your nails and hair on the right day of the week!

Somvar or Monday is related to the Moon in Hinduism. The celestial star – Moon has a direct effect on the human psyche. Therefore, cutting nails or hair on this day is highly inauspicious as it is believed that it can have a deeply negative impact on the individual’s mental health and even the child’s health.
Story first published: Tuesday, April 10, 2018, 12:54 [IST]