একটা চোট্ট রুপোর তৈরি হাতি এনে বাড়িতে রাখুন! আর দেখেুন তারপর কী হয়!

Subscribe to Boldsky

একসময় বলা হত যে বাড়িতে হাতি রয়েছে, সেখানে স্বয়ং গণেশ দেবতার আগমণ ঘটে, আর যে গৃহস্থে বাপ্পার পা পরে, সেখানে সুখ-সমৃদ্ধির ঝাঁপি কখনও খালি হয় না। এমনকি পূরণ হয় পকেট ভর্তি টাকার মালিক হওয়ার স্বপ্নও! কিন্তু আজকের দিনে তো আর হাতি পোষা সম্ভব নয়। তাই গণেশ দেবের আশীর্বাদ পেতে এক সহজ রাস্তার সন্ধান দিতে চলেছি আমরা। কী রাস্তা, চলুন খোঁজ লাগানো যাক, সে সম্পর্কে!

বাস্তুশাস্ত্র এবং ফেংশুই অনুসারে বাড়ির ড্রয়িং রুমে যদি একটি রুপোর তৈরি ছোট্ট গণেশের মূর্তি এনে রাখে যায়, তাহলে সেই গৃহস্থে গণেশ দেবতার প্রবেশ তো ঘটেই, সেই সঙ্গে গৌতম বুদ্ধের আশীর্বাদ লাভ করাও সম্ভব হয়। ফলে জীবনের ছবিটা বদলে যেতে যে সময় লাগে না।, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রসঙ্গত, এক্ষেত্রে যে যে উপকারগুলি পাওয়া যায়, সেগুলি হল...

১. গুড লাকের প্রবেশ ঘটে:

১. গুড লাকের প্রবেশ ঘটে:

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে বাড়ির সদর দরজার ভিতরের দিকে, বাড়ির দিকে মুখ করে যদি একটি রুপোর হাতির মূর্তি রাখা যায়, তাহলে গৃহস্থের অন্দরে পজেটিভ শক্তির প্রবেশ ঘটতে শুরু করে। ফলে গুড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠে। আর এমনটা হওয়া মাত্র একদিকে যেমন কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভের পথ প্রশস্ত হয়, তেমনি কোনও ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কাও যায় কমে।

২. অশুভ শক্তির প্রভাব কমাতে:

২. অশুভ শক্তির প্রভাব কমাতে:

একথা তো নিশ্চয় সবারই জানা আছে যে বাড়ির অন্দরে খারাপ শক্তির মাত্রা বাড়তে থাকলে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যেমন বেড়ে যায়, তেমনি একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটার সম্ভাবনাও থাকে, এমনকী কোনও দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কাও থাকে। তাই তো নিজেকে এবং পরিবারের বাকি সদস্যদের নিরাপদে রাখতে বাড়ির মূল দরজার সামনে, বাইরের দিকে মুখ করে দুটি হাতির মূর্তি রেখে দিন। তাহলেই দেখবেন গৃহস্থের অন্দরে উপস্থিত খারাপ শক্তির প্রভাব কমতে শুরু করবে। ফলে কোনও ধরনের বিপদ ঘটার আশঙ্কাও যাবে কমে। প্রসঙ্গত, এক্ষেত্রে ইচ্ছা হলে রুপোর হাতির মূর্তি যেমন রাখতে পারেন, তেমনি যে কোনও উপাদান দিয়ে তৈরি হাতির মূর্তি রাখলেও কিন্তু সমান উপকার পাওয়া যায়।

৩. বৈবাহিত জীবনকে সুন্দর করে তুলতে:

৩. বৈবাহিত জীবনকে সুন্দর করে তুলতে:

ফেংশুই এবং বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে শোয়ার ঘরে রুপো দিয়ে তৈরি হাতির মূর্তি বা পেইন্টিং অথবা কুশান কভার রাখলে বাস্তু দোষ কেটে যায়। ফলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যেকার সম্পর্কের যেমন উন্নতি ঘটে, তেমনি পরিবারে সুখ-শান্তিও বজায় থাকে।

৪. বাস্তু দোষ কেটে যায়:

৪. বাস্তু দোষ কেটে যায়:

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে কোনও বাড়িতে যদি বাস্তু দোষ থাকে, তাহলে সে বাড়িতে একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা থাকে। সেই সঙ্গে অর্থনৈতিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনাও থেকে যায়। আর সব থেকে ভয়ের বিষয় হল কোন বাড়িতে বাস্তু দোষ রয়েছে, আর কোন বাড়িতে নেই, তা খালি চোখে বুঝে ওঠা সম্ভব নয়। তাই তো সবারই বাড়িতে ছোট্ট একটা রুপো দিয়ে তৈরি হাতির মূর্তি রাখা উচিত। কারণ এমনটা করলে বাস্তু দোষ কেটে যেতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে অশুভ শক্তিও দূরে পালায়। ফলে কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা কমে।

৫. কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করা সম্ভব হয়:

৫. কর্মক্ষেত্রে উন্নতি লাভ করা সম্ভব হয়:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে অপিস ডেস্কে একটা ছোটো রুপোর হাতির সোপিস রাখলে পজেটিভ শক্তির মাত্রা এতটা বেড়ে যায় যে চোখে পরার মতো পদন্নতি ঘটে, সেই সঙ্গে লেজুড় হয় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিও। প্রসঙ্গত, যারা ব্যবসা করেন, তারাও যদি অফিসে রুপোর তৈরি হাতির মূর্তি রাখতে পারেন, তাহলে কিন্তু দারুন উপকার মেলে!

৬. মা লক্ষ্মীর আগমণ ঘটে:

৬. মা লক্ষ্মীর আগমণ ঘটে:

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে বাড়ির উত্তর অথবা উত্তর-পূর্ব দিকে রুপোর হাতি এনে রাখলে গৃহস্থের অন্দরে মা লক্ষ্মী এবং ধন দেবতা কুবেরের প্রবেশ ঘটে। ফলে যে কোনও ধরনের অর্থনৈতিক সমস্যা মিটে যেতে যেমন সময় লাগে না, তেমনি অনেক অনেক টাকার মালিক হয়ে ওটার স্বপ্নও পূরণ হয় চোখের পলকে।

৭. বাচ্চাদের পড়াশোনার উন্নতি ঘটে:

৭. বাচ্চাদের পড়াশোনার উন্নতি ঘটে:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে বাচ্চাদের পড়ার ঘরে রুপোর হাতি অথবা হাতির ছবি বা কুশন কভার যদি রাখা যায়, তাহলে দারুন ফল মেলে। এক্ষেত্রে বাচ্চাদের পড়াশোনার তো উন্নতি ঘটেই, সেই সঙ্গে পরিবারের ছোট সদস্যদের কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কাও যায় কমে।

রুপো দিয়ে তৈরি হাতির মূর্তি কত বড় হতে হবে:

রুপো দিয়ে তৈরি হাতির মূর্তি কত বড় হতে হবে:

পকেট বুঝে যে কোনও সাইজের মূর্তি কিনতে পারেন। এক্ষেত্রে কী সাইজের কিনছেন, তা মোটেও গুরুত্বপূর্ণ নয়। কারণ যে কোনও মাপেরই কিনুন না কেন, ফল পাবেন একই রকম। তবে এক্ষেত্রে যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে, তা হল হাতির মূর্তিটা উত্তর দিকে রাখতে হবে। কারণ বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে এমনটা করলেই সবথেকে বেশি মাত্রায় ফল পাওয়া যায়।

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    Read more about: বিশ্ব
    English summary

    Auspicious benefits of keeping a Silver Elephant sculpture at home

    The elephant is considered very holy, it is believed that the elephant is a symbol of Lord Ganesha. If you keep an elephant made of silver in your house or shop, then it can remove many problems of your life. And at the same time, this elephant can turn your misfortune into fortune and keep it in the house, it becomes the sum of monetary benefits.
    Story first published: Friday, May 25, 2018, 15:38 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more