সাবধান: ক্ষতির হাত থেকে বাঁচতে আজকের দিনে ভুলে এই জিনিসগুলি বাড়িতে আনবেন না যেন!

Written By:
Subscribe to Boldsky

ভাবতে পারেন হঠাৎ আজকে এই সব বিষয় নিয়ে এত আলোচনা করছি কেন! আসলে দিনটাই এমন যে কেমন একটা ভয়ে ঢুকে গেছে মনে। যদি কিছু খারাপ হয়ে যায়? এই চিন্তায় সেই সকাল থেকে ঘুরপাক খাচ্ছে মাথায়। তাই তো কিছুতেই যেন শান্তি পাছি না। আসলে আজ ১৩ তারিখ, তার উপর শুক্রবার। সারা বিশ্বে এই দিনটিকে বেজায় খারাপ দিন হিসেবে বিবেচিত করা হয়ে থাকে। এমনও বিশ্বাস করা হয় যে আজকের দিনে খারাপ শক্তির প্রভাব এতটা বেড়ে যায় যে মারাত্মক সব ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তবে আপনাদের চিন্তা করার কোনও কারণ নেই। কারণ আপনাদের কোনও ক্ষতি হবে, যদি এই প্রবন্ধটি একবার পড়ে ফেলেন তো। কেন এমন কথা বলছি তাই ভাবছেন তো?

আসলে এই প্রবন্ধে এমন কিছু বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করা হল , যেগুলি বাড়িতে না থাকলে কোনও ধরনের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা একেবারে কমে যায়। সেই সঙ্গে ব্যাড লাক রোজের সঙ্গী হয়ে ওঠার সম্ভাবনাও যায় কমে। তাই তো এই প্রবন্ধটি পড়ে ফেলতে ভুলবেন না যেন!

প্রসঙ্গত, যে যে জিনিসগুলি খারাপ শক্তি বা ব্যাড লাককে আমন্ত্রণ জানিয়ে আমাদের জীবনে নিয়ে আসে, সেগুলি হল...

১. মৃত ফুল:

১. মৃত ফুল:

দেখুন তো বাড়িতে কোনও শুকিয়ে যাওয়া গছ বা ফুল আছে কিনা? যদি থাকে, তাহলে শীঘ্র সেই গাছটা বাইরে ফেলে দিন। না হলে কিন্তু বেজায় বিপদ! কারণ এমনটা বিশ্বাস করা হয়, যে কোনও মৃত জিনিস, তা গাছ হতে পারে, হতে পারে ফুলও, সেগুলি যদি গৃহস্থের অন্দরে থাকে, তাহলে খারাপ শক্তি মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে। ফলে ব্যাড লাক পিছু নেয়। আর এমনটা হলে কী হতে পারে, তা নিশ্চয় আর বলে দিতে হবে না!

২. যুদ্ধ বা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ছবি:

২. যুদ্ধ বা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ছবি:

বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে বাড়ির অন্দরে এমন কোনও ছবি রাখা উচিত নয়, যা প্রাকৃতিক বিপর্যয় বা কোনও ধরনের যুদ্ধের মুহূর্তকে তুলে ধরেছে। কারণ বিশেষজ্ঞদের মতে এমন ছবি বাড়িতে খারাপ শক্তির প্রবেশ ঘটায়। ফলে একের পর এক খারাপ ঘটান ঘটার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তাই সুখ-শান্তিতে যদি বাঁচতে চান, তাহলে আজকের দিনে ভুলেও এমন ধরনের ছবি কিনবেন না যেন! প্রসঙ্গত, এমনটাও বিশ্বাস করা হয় যে মহাভারত বা রামায়ণে বর্ণিত কোনও যুদ্ধের মুহূর্ত, প্রচন্ড বৃষ্টি অথবা ঝড়ের ছবিও বাড়িতে রাখা উচিত নয়। কারণ এই ধরনের ছবিও নেগেটিভ শক্তির প্রকোপকে বাড়িয়ে তোলে।

৩. পুরানো জুতো:

৩. পুরানো জুতো:

এক সময় কোনও জুতো এত পছন্দ ছিল যে বুকে জড়িয়ে শুতেন। কিন্তু এখন সেই জুতোই মর্যাদা হারিয়ে বাড়ির কোনও কোনে ঝুল মেখে পরে রয়েছে। এমন ঘটনা অনেকের বাড়িতেই ঘটে থাকে, কি তাই তো! কিন্তু জানেন কি এমন পুরানো জিনিস বাড়ির উতি-উতি থাকা মোটেও শুভ লক্ষণ নয়। কারণ এমনটা করলে খারাপ শক্তির প্রভাব বাড়তে থাকে। আর যখন আপনার সময় খারাপ যাচ্ছে, তখন তো আরও বেশি মাত্রায় ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই এই বিষয়টি মাথায় রাখতে ভুলবেন না যেন!

৪. বন্ধ হয়ে যাওয়া ঘড়ি:

৪. বন্ধ হয়ে যাওয়া ঘড়ি:

বাস্তু বিশেষজ্ঞদের মতে বাড়িতে বন্ধ হয়ে যাওয়া ঘড়ি রাখলে খারাপ সময় পিছু নেয়। আর এমনটা হলে জীবন যে কতটা দুর্বিসহ হয়ে ওঠে,তা নিশ্চয় আর বলে দিতে হবে না। তাই সুখে-শান্তিতে যদি থাকতে চান, সেই সঙ্গে চান অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির স্বাদ পেতে, তাহলে ভুলেও বাড়ির অন্দরে বন্ধ ঘড়িকে জায়গা করে দেবেন না যেন! বিশেষত আজকের দিনে তো নয়ই। কারণ ১৩ তারিখ এবং শুক্রবার, এমন দিন অনেকটা অনুঘটকের কাজ করে, যা খারাপ শক্তিকে পথ দেখিয়ে বাড়ির ভিতর পর্যন্ত নিয়ে আসে। তাই এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি করা উচিত নয়।

৫. পুরানো ঝাঁটা:

৫. পুরানো ঝাঁটা:

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে পুরানো ঝাঁটা দিয়ে ঘরদোর পরিষ্কার করা একেবারেই উচিত নয়। কারণ পুরানো সব কিছুই অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির সম্ভাবনাকে কমিয়ে দেয়। সেই সঙ্গে ব্যাড লাককে ডেকে আনে। তাই ভুলেও পুরানো ঝাঁটা বা মব বাড়িতে রাখবেন না। যখন দেখবেন সেগুলিকে আর কাজে লাগাতে পারছেন না, তখন দয়া করে ফেলে দেবেন। প্রসঙ্গত, বাস্তু মতে সদর দরজার সামনের অংশ যদি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন না থাকে, তাহলেও একের পর এক খারাপ ঘটনা ঘটার আশঙ্কা যায় বেড়ে। তাই এই বিষয়টি ভুলে গেলে কিন্তু বিপদ!

৬. তিন বছর ব্যবহার করেননি এমন জিনিস:

৬. তিন বছর ব্যবহার করেননি এমন জিনিস:

অনেকেই আছেন যারা বেশ কিছু জিনিস দিনের পর দিন ব্যবহার করেন না, তবু সেগুলিকে ফেলে দেন না। হয় ব্যালকনিতে নয়তো স্টোর রুমে জমিয়ে রাখেন। কিন্তু এমনটা করা একেবারেই উচিত নয়। কারণ বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে তিন বছর কাজে লাগাননি, এমন জিনিস যত শীঘ্র সম্ভব বাড়ির বাইরে বের করে দিন। না হলে কিন্তু গৃহস্থের অন্দরে খারাপ শক্তির প্রভাব বাড়তে শুরু করবে। আর এমনটা হলে কি হতে পারে, তা নিশ্চয় জানা আছে!

৭. ভাঙা কাঁচ:

৭. ভাঙা কাঁচ:

আজ হঠাৎ করে যদি কাঁচের কোনও বাসন বা আয়না ভেঙে যায়, তাহলে শীঘ্র সেটিকে বাড়ির বাইরে বের করে দিতে ভুলবেন না যেন! কারণ আজকের মতো অশুভ দিনে ভাঙা কাঁচ বাড়িতে রাখা একেবারেই উচিত নয়। কারণ এমনটা করলে দীর্ঘ সময় পর্যন্ত খারাপ সময় পিছু নেওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Read more about: বিশ্ব
English summary

If you carefully go through all your stuff, you can clear your home from negativity!

Sometimes, it happens that suddenly we strike a bad path. You fit for nothing, things are going bad and the mood is darkening. People start looking for reasons to understand why such period of bad luck came. We have an answer! Most likely, that you managed to surround yourself with negative things which wreak havoc in your life with your own hands! If you want to refund harmony, avoid these 7 things...
Story first published: Friday, April 13, 2018, 12:32 [IST]