For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রাশি কি জানা থাকলে অনেক আগে থেকেই জেনে যাওয়া সম্ভব কোন কোন রোগে আক্রান্ত হতে চলেছেন আপনি!

|

শুনতে আজব লাগছে, কি তাই তো? কিন্তু বিশ্বাস করুন জন্মকুষ্টি বিশেষণ করে বাস্তবিকই অনেক আগে থাকেই জেনে যাওয়া সম্ভব কী কী রোগ আক্রমণ করতে চলেছে আপনাকে। শুধু তাই নয়, আপনার শরীর চাঙ্গা থাকবে না বারে বারে রোগের মারে কুপোকাত হবে, সে সম্পর্কেও ধরণা করে নেওয়া সম্ভব। তাই তো বলি বন্ধু আসন্ন বিপদ থেকে যদি বাঁচতে চান, তাহলে এই প্রবন্ধে চোখ রাখতে ভুলবেন না যেন! কিন্তু তার আগে যে নিজের রাশিটি সম্পর্কে যে জেনে নিতে হবে!

এখন প্রশ্ন হল রাশি অনুসারে কেমন ধরনের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে?

১. মেষরাশি:

১. মেষরাশি:

এরা খাওয়া-দাওয়ার বিষয়ে যেমন নজর দেন না, তেমনি শরীরের খেয়াল রাখতেও আপারক। সেই সঙ্গে লেজুড় হয় অনিয়ন্ত্রিত জীবনের প্রতি ভালবাসাও। ফলে মেষরাশির জাতক-জাতিকাদের মস্তিষ্কঘটিত নানা রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। শুধু তাই নয়, হতে পারে হাড়ের নানাবিধ রোগও। এমনকী বারে বারে চোট-আঘাত লাগা, মাথা যন্ত্রণা, অনিদ্রা, ব্লাড ডিসঅর্ডার এবং হজমের সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার যোগও রয়েছে এদের।

২. বৃষরাশি:

২. বৃষরাশি:

এদের গলা সংক্রান্ত নানাবিধ সমস্যা হওয়ার যেমন সম্ভাবনা থাকে, তেমনি কান, থুতনি, থাইরয়েড এবং ওজন বেড়ে যাওয়ার মতো রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। তাই তো বলি বন্ধু, শেষ বয়সটা বেজায় কষ্টে কাটুক এমনটা যদি না চান, তাহলে সময় থাকতে থাকতে সাবধান হন। না হলে কিন্তু...!

৩. মিথুনরাশি:

৩. মিথুনরাশি:

জাঙ্ক ফুড খেতে এরা বেজায় ভালবাসেন। তাই তো এই রাশির জাতক-জাতিকাদের হজমের সমস্যা এবং নানাবিধ নন-কমিউনিকেবল ডিজিজে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। শুধু তাই নয়, মিথুনরাশিদের নানাবিধ স্কিন প্রবলেম, শ্বাস কষ্ট, নার্ভের সমস্যা এবং হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে।

৪. কর্কটরাশি:

৪. কর্কটরাশি:

এই রাশির জাতক-জাতিকাদের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি জনিত নানাবিধ সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার যোগ রয়েছে। আশঙ্কা রয়েছে হার্ট এবং স্টমাক সম্পর্কিত নানাবিধ রোগে ভোগারও। তবে এখানেই শেষ নয়, বিশেষজ্ঞদের মতে কর্কটরাশির জাতকদের জীবনযাত্রা এত মাত্রায় অনিয়ন্ত্রিত গোছের হয় যে নানাবিধ মস্তিষ্ক ঘটিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। তাই তো বলি বন্ধু খাওয়া-দাওয়ার দিকে একটু নজর দিন। বেশি করে সবজি খান। সেই সঙ্গে একটু হাঁটাহাঁটি করুন। দেখবেন কোনও রোগই আপনাকে ছুঁতে পারবে না।

৫. সিংহরাশি:

৫. সিংহরাশি:

এদের লিভার এবং হার্টের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এমনকী হতে পারে পেটের রোগ, ব্লাড ডিজঅর্ডার, ডায়াবেটিস এবং ওবেসিটির মতো রোগও। তাই তো সিংহরাশির জাতক-জাতিকাদের ভাজাভুজি এবং অতিরিক্ত ফ্যাট রয়েছে এমন খাবার এড়িয়ে চলাই শ্রেয়।

৬. কন্যারাশি:

৬. কন্যারাশি:

এই রাশির অধিকারীরা পেটের রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। হতে পারে অ্যাপেনডিসাইটিস এবং নার্ভ ডিজঅর্ডারের মতো রোগও। তাই তো বলি বন্ধু সুস্থভাবে যদি বাঁচার স্বপ্ন দেখেন, তাহলে ডায়েটের দিকে নজর দিন। সেই সঙ্গে কোনও বদ অভ্যাস থাকলে তা ত্যাগ করুন।

৭. তুলারাশি:

৭. তুলারাশি:

এরা ঝাল-মশলা দেওয়া খাবার খেতে যেমন ভালবাসেন, তেমনি মিষ্টিও বেজায় পছন্দ তুলারাশির জাতক-জাতিকাদের। তাই তো এদের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা বেজায় দুর্বল হয়। সেই সঙ্গে লেজুড় হয় কিডনির রোগ, স্কিন ডিজিজ এবং ওভারি সম্পর্কিত নানা রোগও।

৮. বৃশ্চিকরাশি:

৮. বৃশ্চিকরাশি:

বিশেষজ্ঞদের মতে এরা সারাক্ষণ কিছু না কিছু বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন। ফলে ক্রনিক স্ট্রেসের কারণে শরীর ভাঙতে সময় লাগে না। সেই সঙ্গে ইউরিনারি ডিজঅর্ডার, নানাবিধ অঙ্গের ক্ষমতা কমে যাওয়া এবং শরীর দুর্বল হয়ে পরার মতো সমস্যা মাথা চাড়া দিয়ে ওঠার আশঙ্কা থাকে।

৯. ধনুরাশি:

৯. ধনুরাশি:

এই রাশির অধিকারীদের কম বয়সেই ওজন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর যেমনটা আপনাদের সকলেই জানা আছে যে ওজন বাড়তে থাকলে একাধিক মারণ রোগ ঘারে চেপে বসার আশঙ্কা যায় বেড়ে। শুধু তাই নয়, থাই, নার্ভ এবং লিভার সম্পর্কিত নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাকেও উড়িয়ে দেওয়া সম্ভব নয়।

১০. মকররাশি:

১০. মকররাশি:

এরা পুষ্টিকর খাবার খেতে ভালবাসেন। শুধু তাই নয় খাবার সময় অন্য কোনও কাজ, যেমন ধরুন টিভি দেখা বা মোবাইলে খুটখুট করা এদের একেবারে না পাসান্দ। আর যেমনটা সারই জানা আছে যে মন দিয়ে খাবার খেলে তা শরীরের কাজে লাগে। তাই তো বাকি পাঁচ জনের থেকে মকররাশির জাতক-জাতিকারা শারীরিকভাবে বেজায় চাঙ্গা হন। তবুও এদের যেসব রোগে আক্রান্ত হওয়ার যোগ রয়েছে সেগুলি হল- হাড়ের রোগ,চুলের সমস্যা এবং নখের রোগ। তাই তো আপনাদের বেশি করে ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খেতে হবে। এই নিয়মটি মানলে দেখবেন রোগভোগের আশঙ্কা একেবারে কমে যাবে।

১১. কুম্ভরাশি:

১১. কুম্ভরাশি:

এদের ব্লাড ডিজঅর্ডাক, ক্যান্সার, নার্ভাস সিস্টেম ডিজঅর্ডার এবং পা সংক্রান্ত নানাবিধ রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

১২. মীনরাশি:

১২. মীনরাশি:

এরা নানা স্বাদের খাবার খেতে বেজায় ভালবাসেন। তাই তো এদের শরীরে টক্সিক উপাদানের মাত্রা এতটাই বেড়ে যায় যে আর্থ্রাইটিস, জয়েন্ট পেন, টিউমার এবং হজমের সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

Read more about: বিশ্ব
English summary

12 Zodiac Signs & Your Health Problems

our health is strongly related to your zodiac sign. The most important root cause of each and every disease is in your past. According to a research, 50% diseases occurred due to your past life record. Rest of 50% diseases occurred due to physical and psychological reasons. However, the root of these physical and psychological reasons are also somewhere in the past life because you received a particular psychological and physical composition due to your past life closing status.
Story first published: Wednesday, August 22, 2018, 12:34 [IST]
X