For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কোষ্ঠকাঠিন্য রোজকার সঙ্গী? মুক্তির ঘরোয়া উপায় জেনে নিন

|

আমরা আজকের দিনে সবাই টাকার পিছনে ছুটে চলেছি। কখনো আমাদের বিলাস ব্যসন কে মেটাতে গিয়ে তো কখনো আমাদের বাঁচার তাগিদে। কর্ম ব্যস্ততার চাপে বা পড়াশোনার চাপে অনেক সময়ই আমরা নিজের শরীরের ঠিকঠাক খেয়াল রাখি না। হলি অনিয়ম জমতে জমতে একসময় শরীরে যেমন বড় রোগ বাসা বাঁধে, তেমনি ছোটখাটো শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি হয়। স্বাস্থ্যকর খাবার অনেক সময় আমরা নিয়ম মেনে খাই না। আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা কনস্টিপেশনের শিকার। কেউ কেউ জন্মগতভাবে এই অসুবিধার সম্মুখীন হয়ে থাকেন, আবার কেউ কেউ নিজেদের লাইফ স্টাইলএর দৌলতে কনস্টিপেশনের মুখোমুখি হন। সেই ওঠে চিকিৎসা শাস্ত্র বা বিজ্ঞান এই কনস্টিপেশন এর কোনও সঠিক কারণ দর্শাতে পারেনি। তবে চিকিৎসকরা এবং বিজ্ঞানীরা অনেক সময় মনে করে থাকেন যে অনিয়মিত জীবন চর্চা, খাদ্যাভাস, শরীর চর্চার অভাব এবং অতিরিক্ত ওষুধ খাওয়ার পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার কারণে মানুষের এই কনস্টিপেশন প্রবলেম হতে পারে। সারা বিশ্বের প্রায় কুড়ি শতাংশের বেশি মানুষ প্রতিদিন কনস্টিপেশনের শিকার হচ্ছেন।

১. কী এটা

১. কী এটা

আমরা সারাদিনে যা খাই সেটা আমাদের পাকস্থলী তে গিয়ে পাচক রসে সাহায্য হজম হয়। এই হজম প্রক্রিয়ায় খাবারের দরকারি অংশ আমাদের শরীরে আত্মস্থ হয়। আর বাকি আমাদের শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। যখন এই পেট পরিষ্কার হওয়া সপ্তাহে তিনবারের কম হয় বা তারও কম, ধরে নেওয়া হয় তখন যে সেই ব্যক্তি কনস্টিপেশন এ ভুগছেন। পেট পরিষ্কার না হওয়ার কারণে পেটের মধ্যে অস্বস্তি, গা বমি ভাব, গ্যাস বা তলপেটে অনেক সময় ব্যথা হতে পারে এর জন্যে। শুনতে শুনতে ছোট সমস্যা মনে হলেও এর থেকে অনেক সময় শারীরিক এবং মানসিকভাবে অনেক বড় সমস্যার সৃষ্টি হয় যা নিজের দৈনন্দিন জীবনযাপন এবং কাজে ব্যাঘাত ঘটায়।

যারা এই কনস্টিপেশনে প্রতিনিয়ত ভুগছেন তারা ডাক্তারের কাছে প্রথমে ছুটে যাওয়ার বদলে কিছু ঘরোয়া টোটকা বা সাধারণ উপায় বেছে নিতে পারেন যাতে কনস্টিপেশনের হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে।

২. প্রচুর জল খান

২. প্রচুর জল খান

কনস্টিপেশন তো বটেই এমনিতেও সারাদিনে প্রচুর পরিমাণে জল খান এবং নিজের শরীরকে হাইড্রেটেড রাখুন। চেষ্টা করুন খালি পেটে সকালে উঠে ঈষৎ উষ্ণ জল খাওয়ার। অনেক সময় পেট বেশ কিছু দিন ঠিক ঠাক খালি না হলে কার্বনেটেড জল খেতে পারেন। এতে পেটে জমে থাকা গ্যাসও বেরোবে এবং আরাম পাবেন।

৩. ফাইবার বেছে নিন

৩. ফাইবার বেছে নিন

বৈজ্ঞানিক উপায়ে পরীক্ষামূলকভাবে প্রমাণিত যে খাবারে ফাইবার বেশি থাকলে কনেস্টিপেশনের সমস্যা কমে যায়। তাই রোজকার খাবারে বেশি করে ফাইবার যেনো থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন। বেশি করে সবুজ সবজি খান।

৪. শরীরচর্চা

৪. শরীরচর্চা

বেশি করে শরীরচর্চা করুন। আমাদের মোবাইল বা কম্পিউটার আসার পরে শারীরিক নড়াচড়া অনেক কমে গেছে। চেষ্টা করুন এই অবস্থা কাটিয়ে ওঠার। দিনে নিয়মিত ঘাম ঝরিয়ে এক্সারসাইজ করুন। তবে অনেকে বলেন শরীরচর্চার কোনো প্রভাব এর উপর নেই। আর অনেকে মনে করেন যে আছে। তাই পরিমিত পরিমাণে শরীরচর্চা অবশ্যই দরকারি।

৫. ল্যাকসেটিভ বেছে নিন

৫. ল্যাকসেটিভ বেছে নিন

ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে laxative বেছে নিন। এটা আপনার স্টুল বেরিয়ে যেতে সাহায্য করে। অনেক ধরনের laxative থাকে। কিছু আছে যা নার্ভের সঞ্চালন ঘটায়। কিছু আছে যা স্টুলের জলের পরিমাণ ধরে রেখে নমনীয় রাখে। তবে আপনার কোনটা দরকার তা জানার জন্যে অবশ্যই ডাক্তারের কাছে যান।

৬. সঠিক ডায়েট

৬. সঠিক ডায়েট

একটা সঠিক ডায়েট বেছে নিন। আপনার শরীরের এবং হজম ক্ষমতার তারতম্যে যা আপনার জন্যে সাহায্যকারী হবে। সাথে ফল খান নিয়মিত। এর মধ্যে আপেল, কলা অবশ্যই খান। পালং শাক ডায়েটে রাখুন।

English summary

natural ways to relieve constipation

While there are many potential causes, adopting a few key strategies can be very effective at alleviating constipation for many people.
Story first published: Wednesday, April 24, 2019, 10:00 [IST]
X