আমলকির রসের সঙ্গে মেথি খেলে শরীরের কি হতে পারে জানা আছে?

Posted By:
Subscribe to Boldsky

মাঝে মধ্যেই অসুস্থ হয়ে পরেন? এমন পরিস্থিতি হয় যে ওষুধ না খেয়ে উপায় থাকে না? তাহলে এই প্রবন্ধটি আপনার জন্যই লেখা। কারণ এই লেখায় এমন একটি ঘরোয়া পানীয় সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে, যা নিয়মিত খেলে কোনও রোগই ধারে কাছে ঘেঁষতে পারে না। তাহলে আর অপেক্ষা না করে নিজেকে সুস্থ করে তোলার প্রথম পদক্ষেপটা নিয়েই নিন। জেনে নিন কীভাবে বানাতে হয় এই আয়ুর্বেদিক ওষুধটি।

অনেকেই প্রকৃতিক উপাদানের উপর সেভাবে ভরসা রাখতে পারেন না। পরিবর্তে অনেক টাকা খরচ করে অ্যালোপেথিক ওষুধ খেয়ে যান। তাতে রোগ সারে ঠিকই, কিন্তু ওষুদের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণে অন্য সব সমস্যা মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে। অপরদিকে অয়ুর্বেদিক ওষুদের কোনও সাইড এফেক্টই নেই। তাই তো এইসব ওষুধগুলি খেলে আলাদা করে শরীর খারাপ হওয়ার কোনও আশঙ্কা থাকে না বললেই চলে।

এই প্রবন্ধে আলোচিত আমলকি এবং মেথি দিয়ে বানানো পানীয়টি খেলে ৭ রকমভাবে শরীরের উপকার হয়।

পানীয়টি বানানোর পদ্ধতি:

৩ চামচ আমলা রসের সঙ্গে ১ চামচ মেথি পাউডার মিশিয়ে এই পানীয়টি বানাতে হবে। প্রতিদিন সকালে এটি খালি পেটে খেলে একাধিক রোগ থেকে দূরে থাকতে পারবেন। যেমন...

১. ডায়াবেটিস:

১. ডায়াবেটিস:

এই পানীয়টিতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় ভিটামিন-সি, যা রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে দারুনভাবে কাজে আসে। তাই তো ডায়াবেটিস রোগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে প্রতিদিন এই পানীয়টি খেতেই পারেন।

২. ওজন কমায়:

২. ওজন কমায়:

আমলা এবং মেথি সহযোগে বানানো এই পানীয়টি খেলে শরীরের প্রোটিন শোষণ করার ক্ষমতা ব্যাপক মাত্রায় বেড়ে যায়। ফলে মেটাবলিক রেট বাড়তে শুরু করে। যেমনটা আপনাদের সকলেরই জানা আছে যে মেটাবলিক রেট যত বাড়ে, তত শরীরে মেদ জমার হার কমে যায়।

৩. হার্টের রোগ হওয়ার আশঙ্কা কমে:

৩. হার্টের রোগ হওয়ার আশঙ্কা কমে:

ভিটামিন এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ হওয়ার কারণে এই পানীয়টি নিয়মিত খেলে হার্টের পেশির ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। ফলে নানাবিধ হার্টের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে।

৪. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:

৪. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে:

ভিটামিন-সি আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটাতে দারুনভাবে সাহায্য করে। আর এই পানয়ীটিতে যেহেতু প্রচুর মাত্রায় ভিটামিন-সি রয়েছে, তাই এটি খেলে নানাবিধ রোগের সঙ্গে শরীরের লড়াই করার ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়। ফলে অনেক রোগই ধারে কাছে ঘেঁষতে পারে না।

৫. গলব্লাডার স্টোন হওয়ার সম্ভাবনা কমায়:

৫. গলব্লাডার স্টোন হওয়ার সম্ভাবনা কমায়:

আমলা এবং মেথি দিয়ে বানানো এই জুসটিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে, যা গলব্লাডার এবং লিভারে কোলেস্টেরল জমতে দেয় না। ফলে স্টোন তৈরি হওয়ার আশঙ্কা একেবারে থাকে না বললেই চলে।

৬. আলসারের প্রকোপ কমায়:

৬. আলসারের প্রকোপ কমায়:

এক্ষেত্রেও ভিটামিন-সি দারুনভাবে কাজে আসে। আসলে নির্দিষ্ট এই ভিটামিনটি মুখ গহ্বরে প্রদাহ কমানোর মাধ্যমে আলসারের প্রকোপ কমাতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

৭. দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটে:

৭. দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটে:

এই পানীয়টিতে উপস্থিত নানাবিধ পুষ্টিকর উপাদান অপটিক নার্ভের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ফলে দৃষ্টিশক্তি ভাল হতে শুরু করে।

English summary
if you wish to be on your way to health, then consider making natural health drinks a part of your diet!
Story first published: Tuesday, April 4, 2017, 14:01 [IST]
Please Wait while comments are loading...