ফুড অ্যালার্জি সারাতে ঘরোয়া উপায়

By: Nayan Munshi
Subscribe to Boldsky

ফুড অ্যালার্জি সারাতে ঘরোয়া উপায়

সেই কোন কাল থেকে বিশ্বজুড়ে দাপিয়ে বেরাচ্ছে এই রোগটি। তবু যেন থামার নামই নেয় না। এমনিতে যে রোজ খুব অসুবিধায় ফেলে, এমন নয়! তবে যেই না সামদ্রিক মাছ, বাদাম অথবা দুধ পেটে পড়ল, অমনি শুরু হল চুলকুনি। আপনিও কি ফুড অ্যালার্জির শিকার? তাহলে পড়তেই হবে এই প্রবন্ধটি।

ফুড অ্যালার্জি সব সময়ই যে ভিষণ আকার ধরণ করে, এমন নয়। তবে যদি কোনও কারণ আক্রান্তর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে, তাহলে শীঘ্র চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। কারণ আপাত দৃষ্টিতে মনে হতে পারে যে খাবার থেকে হওয়া এই সমস্য়া তেমন কিছুই না। কিন্তু ঠিক সময়ে যদি চিকিৎসা শুরু না হয় তাহলে এই সামান্য় অ্যালার্জি থেকেই বড় কোনও সমস্য়া, এমনকী কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেমের উপরও প্রভাব পড়তে পারে। প্রসঙ্গত, যখনই শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অ্যালার্জির সঙ্গে লড়াই শুরু করে, তখনই নানা ধরনের লক্ষণের বহিঃপ্রকাশ ঘটে।

এই ধরনের সমস্য়ার সঙ্গে লড়াই করার একটাই রাস্তা আছে, তা হল কী খাবার থেকে অ্যালার্জি হচ্ছে তাকে চিহ্নিত করা। এক্ষেত্রে জেনে রাখা জরুরি যে অ্যালার্জিক রিঅ্যাকশন হলেই বেশিরভাগ মানুষ দোকান থেকে ওষুধ কিনে খেয়ে নেন। এই অভ্য়াস কিন্তু একেবারেই ভালো নয়। কারণ বেশি সংখ্য়ায় এমন ওষুধ খেলে ধীরে ধীরে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হতে শুরু করে। তাহলে উপায়? অ্যালার্জিক রিঅ্যাকশন যদি খুব মারাত্মক না হয়, তাহলে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতির সাহায্য় নেওয়া যেতেই পারে। এই সব ঘরোয়া পদ্ধতিগুলি এই ধরনের সমস্য়ায় দারুন কার্যকরি। প্রসঙ্গত, এই ঘরোয়া পদ্ধতিগুলি রোগ সারাতে পারে না ঠিকই, কিন্তু অ্যালার্জির অস্বস্তি কমাতে দারুন কাজে আসে।

তাহলে চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক সেই সব ঘরোয়া পদ্ধতিগুলি সম্পর্কে যেগুলি অ্যালার্জিক রিঅ্যাকশন কমাতে দারুন কাজে আসে।

১. আদা:

১. আদা:

এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি এবং অ্যান্টি-মাইক্রোবিয়াল এজেন্ট থাকায় অ্যালার্জির সমস্য়া কমাতে আদা দারুন কাজে আসে। সকালে উঠে এক ফ্লাক্স আদা চা বানিয়ে নিন, আর সারা দিন ধরে অল্প অল্প করে পান করুন, দেখবেন খুব আরাম পাচ্ছেন।

২. লেবু:

২. লেবু:

ভিটামিন সি-তে ভরপুর হওয়ার কারণে অ্যালার্জি হলেই লেবুর রস পান করুন। কারণ এই ভিটামিনটি শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিন বার করে অ্যালার্জির প্রভাব কমাতে সাহায্য় করে।

৩. গ্রিন টি:

৩. গ্রিন টি:

অ্যালার্জির প্রকোপ কমাতে এটি একেবারে মহৌষধি। তাই খাবার থেকে হওয়া অ্যালার্জির নানাবিধ লক্ষণ কামতে প্রয়োজনে গ্রিন টি পান করতেই পারেন।

৪. গাজর ও শসার সরবত:

৪. গাজর ও শসার সরবত:

লক্ষণ কমানোর পাশাপাশি স্টমাকের প্রতিরোধ বাড়াতে এই দুটি দারুন কাজে আসে। তাই অ্যালার্জি হওয়া মাত্র পান করা শুরু করুন গাজর এবং শসার রস। দেখবেন সমস্য়া কেমন ঝট করে কমে যাচ্ছে।

৫.রেড়ীর তেল:

৫.রেড়ীর তেল:

ঔষধি গুণ থাকার কারণে অ্যালার্জি কমাতে রেড়ীর তেলের কোনও বিকল্প নেই। কীভাবে ব্য়বহার করতে হবে? খুব সহজ! সকালে নিজের পছন্দসই জুস বানিয়ে তাতে কয়েক ফোঁটা এই তেল মিলিয়ে পান করুন। তাহলেই দেখবেন অ্যালার্জির লক্ষণ কেমন দূরে পালাচ্ছে।

৬. ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ খাবার:

৬. ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ খাবার:

অ্যালার্জির প্রকোপ কমানোর পাশাপাশি আগামী দিনে যাতে পুনরায় এমন সমস্য়া ফিরে না আসে, তা আটকাতে ভিটামিন- সি দারুন কাজে দেয়। আসলে এই ভিটামিনটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রপাটিজে পরিপূর্ণ হওয়ার কারণে এই ধরনের সমস্য়ায় দারুন কাজে আসে।

৭. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

৭. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

খাবার থেকে হওয়া অ্যালার্জির প্রকোপ কামাতে সেই আদি কাল থেকে ব্য়বহার হয়ে আসছে এটি। অ্যাপেল সিডার ভিনিগার ত্বকে লাগানো মাত্রা অ্যালকালাইন এফেক্টের কারণে অ্যালার্জি কমতে শুরু করে। প্রসঙ্গত, এটি সরাসরি ত্বকের উপর ব্য়বহার করবেন না যেন! মধু, লেবু এবং জলের সঙ্গে মিশিয়ে ব্য়বহার করুন, দেখবেন অনেক আরাম পাবেন।

English summary
7 Home Remedies For Food Allergies
Story first published: Monday, January 9, 2017, 17:29 [IST]
Please Wait while comments are loading...