চোখের পাশে কোলেস্টেরল জমা কমাতে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি

By: Nayan Munshi
Subscribe to Boldsky

কয়েকদিন ধরেই চোখটা বেশ ফোলা। সেই সঙ্গে চোখের চারিধারে কেমন আঁচিলের মতো হয়েছে। বুঝতে পারছেন না কেন এমন হয়েছে? সাধারণত কোলেস্টরল জমলেই এমনটা হয়ে থাকে।

অনেক সময় হাজারো রকমের চিকিৎসার পরেও ফোলাভাবটা কমতে চায় না। সেক্ষেত্রে ঘরোয়া পদ্ধতির সাহায্য় নিতে পারেন। এ সব ক্ষেত্রে কিছু ঘরোয়া চিকিৎসা বেশ কার্যকরী ভূমিকা নেয়।

এখন প্রশ্ন কী কী কারণে এমন কোলেস্টেরল ডিপোজিশন হয়ে থাকে? মূলত শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বেড়ে গেলেই এমনটা হয়। অনেক সময় জেনেটিক কারণও এমন সমস্য়ার পিছনে দায়ী থাকে। প্রসঙ্গত, চোখ সংলগ্ন অঞ্চলে এমন ভাবে কোলেস্টেরল জমতে থাকলে যথাযথ চিকিৎসা শুরু করতে দেরি করবেন না। কারণ চিকিৎসা শুরু হতে যত দেরি হবে, তত আরও নানা ধরনের শারীরিক সমস্য়া হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পাবে। অনেক ক্ষেত্রে চোখের চারিদিকে এমনভাবে কোলেস্টরল জমার কারণে দৃষ্টি শক্তি চলে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটতেও দেখা যায়। তাই সাবধান!

এবার এমন কিছু ঘরোয়া চিকিৎসা সম্পর্কে আলোচনা করা হল যা এমন ধরনের শারীরিক অসুবিধা কমায়।

১. রসুন:

১. রসুন:

কয়েকটি রসুনের কোয়া নিন প্রথমে। তারপর সেগুলি ভালো করে পিষে নিয়ে পেস্টের মতো করে চোখের চারপাশে লাগান। দেখবেন কোলেস্টেরল ডিপোজিশন কমতে শুরু করেছে। আসলে রসুনের মধ্য়ে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান থাকায় এটি এই ধরনের অসুবিধায় দারুন ভালো কাজ দেয়।

২.পেঁয়াজ:

২.পেঁয়াজ:

শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের জমা আটকাতে পেঁয়াজের কোনও বিকল্প নেই। কীভাবে ব্য়বহার করতে হবে এটি? প্রথমে পেঁয়াজের রসটা সংগ্রহ করুন। তারপর তাতে অল্প করে নুন মিশিয়ে চোখের যে যে জায়গায় কোলেস্টেরল জমেছে সেখানে সেখানে লাগান। সারা রাত রেখে দিয়ে সকালে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন অল্প দিনেই ফল পাচ্ছেন।

৩. মেথির বীজ:

৩. মেথির বীজ:

এক টেবিল স্পুন মাপের মেথির বীজ জলে ভিজিয়ে সারা রাত রাখে দিন। পরদিন সকালে খালি পেটে খান। এমনটা প্রতিদিন করলে দেখবেন চোখের চারিপাশ স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। প্রসঙ্গত, এই মিশ্রন যদি খেতে ভালো না লাগে তাহলে জলটা লাগাতে পারেন। একই উপকার পাবেন।

৪. রেড়ীর তেল:

৪. রেড়ীর তেল:

এতে রয়েছে রিসিনোলিক অ্যাসিড, যা কোলেস্টেরল ডিপোজিশন কমাতে দারুন কাজে আসে। একটা তুলো নিয়ে তা রেড়ীর তেলে ডুবিয়ে ধীরে ধীরে কোলেস্টরল ডিপোজিশেনর উপর লাগান। তাহলেই দেখবেন সেগুলি কমতে শুরু করেছে।

৫. টি-ব্য়াগ দিয়ে সেক দিন:

৫. টি-ব্য়াগ দিয়ে সেক দিন:

একটা ব্য়বহৃত টি ব্য়াগ নিয়ে সেটি আলতো করে চোখের উপর রেখে সেক দিন। কয়েকদিন এমন করলেই দেখবেন চোখের চারিপাশ কেমন স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। শুধু তাই নয় আগামী দিনে যাতে পুনরায় কোলেস্টেরল ডিপোজিশন না হয় সে রাস্তাও বান্ধ করে এই ঘরোয়া পদ্ধতি।

৬. দারচিনি:

৬. দারচিনি:

চোখের চারিদিকে কোলেস্টরল ডিপোজিশন কমাতে এটি দারুন কাজে আসে।

৭. পুদিনা পাতা:

৭. পুদিনা পাতা:

কেয়েকটি পুদিনা পাতা চিবিয়ে খেলেই দেখবেন রোগ কমতে শুরু করেছে। কারণ শরীরে কোলেস্টরলের মাত্রা কমাতে এটি বেশ কার্যকরী ভূমিকা নেয়।

৮. কলার খোসা:

৮. কলার খোসা:

এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রপাটিজ আছে। তাই চোখের পাশে কোলোস্টেরল জমলেই এটির ব্য়বহার শুরু করে দিন। একটা কলার খোসা নিয়ে সেটি চোখের চারিদিকে লাগিয়ে সারা রাত রেখে দিন। এমনটা ততদিন করতে থাকুন, যতদিন না চাখের চারিদিকে ফোলাভাব কমছে।

English summary
Your eyes seem to be puffy, you find some kind of swelling around the eyes, anyone might get scared seeing this. These are nothing but cholesterol deposits which are also known as xanthelasma.
Story first published: Thursday, January 12, 2017, 17:28 [IST]
Please Wait while comments are loading...