For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কী কারণে বীর্য হলুদ হয়? দেখে নিন এর লক্ষণ এবং চিকিৎসা

|

বীর্য একপ্রকার জৈবিক তরল যা, মিলনের শেষ পর্যায়ে পুরুষাঙ্গ হতে নি:সৃত হয়। স্বাস্থ্যকর বীর্য সাধারণত সাদা বা সাদা ধূসর রঙের হয়। কিন্তু, এর বাইরে যদি বীর্যের রঙ পরিবর্তন হয় তবে, অবশ্যই চিন্তার কারণ থাকতে পারে।

কখনও কখনও অন্তর্নিহিত অবস্থার কারণে লাল, সবুজ, বাদামী, গোলাপী বা হলুদ রঙের অস্বাভাবিক রঙিন বীর্য উৎপাদন, উদ্বেগের কারণ হতে পারে। তাই, আজ আমরা লিখব, হলুদ বীর্য কী কারণে হয় এবং কীভাবে এর চিকিৎসা করা যায়।

হলুদ বীর্য হওয়ার কারণ

জন্ডিস

জন্ডিস

সাধারণত জন্ডিসের কারণে ত্বক ও চোখ হলুদ হয়ে যায়, তবে এই অবস্থাটি আপনার বীর্যের রঙকেও প্রভাবিত করতে পারে। যখন লিভার বিলিরুবিন ভেঙে ফেলতে অক্ষম হয় তখন জন্ডিস হয়।

প্রস্টেট ইনফেকশন

প্রস্টেট ইনফেকশন

যদি আপনার বীর্যের রঙ হলদেটে-সবুজ হয় তবে, এটি প্রস্টেট ইনফেকশনের লক্ষণ হতে পারে। যখন মূত্রের ব্যাকটেরিয়াগুলি প্রস্টেটে প্রবেশ করে তখন প্রস্টেট ইনফেকশন হয়। এর লক্ষণগুলি হল, ঘোলাটে মূত্র, পিঠের নীচের দিকে ব্যথা, ঘন ঘন মূত্রত্যাগ।

বীর্যতে প্রস্রাব

বীর্যতে প্রস্রাব

বীর্য, মূত্রনালী দিয়ে যায়। মূত্রনালী হল একটি নল যা শরীর থেকে, মূত্র এবং শুক্রাণু বহন করে। কখনও কখনও মূত্রত্যাগের সময়, সামান্য প্রস্রাব মূত্রনালীতে থেকে যেতে পারে এবং এটি বীর্যের সাথে মিলিত হতে পারে। যখন প্রস্রাব এবং বীর্য মিশ্রিত হয়ে যায় তখন বীর্য হলুদ দেখাতে পারে।

আরও পড়ুন :৭টি স্বাস্থ্যকর খাবার, যেগুলি অবশ্যই আপনার ফ্রিজে থাকা উচিত

লিউকোসাইটোস্পার্মিয়া

বীর্যতে শ্বেত রক্ত ​​কণিকার অতিরিক্ত উৎপাদন হলে বীর্য হলুদ রঙের দেখায়, এটি লিউকোসাইটোস্পার্মিয়া নামক একটি অবস্থা। এই অবস্থাটি শুক্রাণুকে দুর্বল ও ধ্বংস করতে পারে, যা বন্ধ্যাত্বের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

যৌনবাহিত সংক্রমণ

যৌনবাহিত সংক্রমণ

যৌন সংক্রমণ যেমন - ক্ল্যামিডিয়া, হার্পস বা গনোরিয়ার কারণে বীর্য হলুদ রঙের দেখায়।

আরও পড়ুন :আপনি কি লিঙ্গ শিথিলতায় ভুগছেন? এইসময় যে কথাগুলি বিশ্বাস করা উচিত নয়

জীবনযাত্রার পরিবর্তন

অ্যালকোহল পান করা, তামাক সেবন এবং কিছু বিশেষ ঔষধ সেবন করা, বীর্যের রঙ পরিবর্তন করতে পারে। এছাড়াও, সালফার সমৃদ্ধ খাবার যেমন পেঁয়াজ, রসুন এবং চাইভস্(রসুন এবং পেঁয়াজ জাতীয় গাছের পাতা) খেলে হলুদ বীর্য হতে পারে।

হলুদ বীর্য হওয়ার লক্ষণ

হলুদ বীর্য হওয়ার লক্ষণ

ক) জ্বর

খ) ব্যাথা

গ) যৌন ক্রিয়ায় সমস্যা

ঘ) মূত্রতে রক্ত

কখন চিকিৎসককে দেখাবেন

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, হলুদ বীর্য অস্থায়ী এবং সাধারণত নিজে থেকেই ঠিক হয়ে যায়। যদি এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বীর্য হলুদ থাকে তবে, চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

হলুদ বীর্যের চিকিৎসা

হলুদ বীর্যের চিকিৎসা

হলুদ বীর্যের অন্তর্নিহিত কারণের উপর নির্ভর করে চিকিৎসা শুরু করা হয়। যদি কোনও STI বা প্রোস্টেট ইনফেকশন, হলুদ বীর্য হওয়ার কারণ হয় তবে, অ্যান্টিবায়োটিক নির্ধারিত হবে।

যদি হলুদ বীর্য লিউকোসাইটোস্পার্মিয়ার কারণে হয় তবে, চিকিৎসক নন-স্টেরয়েডাল অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি ওষুধ এবং অ্যান্টিবায়োটিকগুলি দেবেন।

আরও পড়ুন :ভ্যারিকোস ভেইন : কারণ, লক্ষণ, রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসা

মনে রাখবেন

যদি আপনি বীর্যের রঙের পরিবর্তন লক্ষ্য করেন তবে, এটি প্রথমে উদ্বেগজনক হতে পারে। কিন্তু, মনে রাখবেন এটি অস্থায়ীও হতে পারে। যদি আপনি হলুদ রঙের বীর্যসহ অন্যান্য লক্ষণগুলির মুখোমুখি হন তবে, অবিলম্বে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন।

Read more about: yellow semen semen health sperm
English summary

What Causes Yellow Semen? Symptoms And Treatment

In this article, we will write about what causes yellow semen and how to treat it.
X