স্বাভাবিকভাবে আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে নয়টি উপায়

By Super Admin
Subscribe to Boldsky

দৈনিক ভিত্তিতে জীবনধারার চাপ যা আমরা গ্রহণ করি তা এই প্রজন্মের স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব বিস্তার করে চলেছে| ফলে, আমাদের অধিকাংশই এখন খুব তরুণ বয়সে ডায়াবেটিস, স্থূলতা এবং রক্তচাপের সমস্যায় ভুগতে শুরু করেছি|

স্বাভাবিক জীবনধারায়, দীর্ঘক্ষণ অফিসের চেয়ার গরম করা ছাড়া আর কোন ভাল কাজ করা হয় না যা স্বাস্থ্যের পক্ষে মোটেও ঠিক নয়| বাচ্ছারা ও তরুণ প্রজন্ম, যাদের আসলে খেলাধুলা এবং অন্যান্য শারীরিক কার্যক্রমের জন্য সময় বের করা উচিত তারা আজ টেলিভিশনের সামনে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় কাটিয়ে, কম্পিউটার গেম খেলে ও সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট এর সঙ্গে আটকে আছে|

এর থেকেই উচ্চ স্তরের কলেস্টেরল সমস্যা দেখা দিচ্ছে যা বেশ উদ্বেগজনক|তাতে হৃদরোগ ও স্ট্রোক এবং অন্যান্য জীবনহানির সমস্যার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পাচ্ছে| সুতরাং কিভাবে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করবেন এবং এই দৈত্যকে বশে আনবেন? নিচের তালিকায় আপনি কিছু পরীক্ষিত উপায় জানতে পারবেন আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর এবং হৃদরোগের সম্ভাবনা কমানোর|

ওজন কমানো

ওজন কমানো

ওজন কমানোর চেষ্টা করুন|স্বাভাবিকভাবে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এটা একটি দুর্দান্ত উপায়| একটি সঠিক খাদ্য নিয়ম শুরু করুন| চা, কফি এবং ফাস্ট ফুড ত্যাগ করুন এবং প্রাকৃতিক এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ স্বাস্থ্যকর খাবারের ওপর জোর দিন| আপনার খাদ্যের মধ্যে তাজা ফল, বিন্স এবং সবুজ শাক সবজি যোগ করার চেষ্টা করুন, এবং মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে আপনার ওজন এবং কোলেস্টেরলের মাত্রার মধ্যে পার্থক্য দেখতে পাবেন|

ব্যায়াম

ব্যায়াম

আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর আরেকটি সস্তা এবং সহজ উপায় হল ব্যায়াম| এমনকি তিরিশ মিনিটের দৈনন্দিন হাঁটা কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে| সারা দিনে এলিভেটর এবং লিফ্ট এড়িয়ে চলুন এবং পরিবর্তে সিঁড়ি ব্যবহার করুন| শারীরিক কার্যকলাপের মধ্যে নিজেকে ব্যস্ত রাখুন| এই ছোট পদক্ষেপগুলি ক্রমবর্ধমান কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করবে|

খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করতে ওমেগা 3

খারাপ কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করতে ওমেগা 3

ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার একটি চমৎকার উপায়| আপনি যদি মাছের প্রেমিক হন, ওমেগা 3-ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ স্যামন, টুনা এবং ম্যাকরল আপনার পরিত্রাতা হতে পারে| কাজুবাদাম, দুধ এবং আখরোটেও এই গুন্ পাওয়া যায়|

ফ্যাটযুক্ত খাবার বর্জন করুন

ফ্যাটযুক্ত খাবার বর্জন করুন

কুকিজ এবং ফ্রাই এর মত চর্বিযুক্ত খাবারে ট্রান্স ফ্যাট আছে যা আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়াতে পারে| এই সকল খাবার ত্যাগ করার চেষ্টা করুন| এটা বাঞ্ছনীয় যদি আপনি খাদ্য পণ্য কেনার আগে উপাদানের তালিকাটি পরীক্ষা করে নেন| যদি সেই পণ্যে ট্রান্স ফ্যাট রয়েছে উল্লেখ করা থাকে তবে তা থেকে দূরে থাকুন|

পেঁয়াজ

পেঁয়াজ

পেয়াঁজ ও পেয়াঁজ জাতীয় খাদ্য যেমন স্প্রিং ওনিয়ন, রসুন এবং স্বাভাবিক পেঁয়াজ আপনার হৃদযন্ত্রের জন্য অতি উত্তম হতে পারে| স্যালাডের মাধ্যমে এই সকল খাদ্য আপনার রোজকার খাদ্যাভাসে শামিল করুন| প্রচুর পরিমানে রসুন খান স্বাভাবিকভাবে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে|

রন্ধনে স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহার করুন

রন্ধনে স্বাস্থ্যকর তেল ব্যবহার করুন

উদ্ভিজ্জ তেল, ঘি, মাখন এবং মার্জারিনের বদলে জলপাই তেল এবং ক্যানোলা তেলের মত স্বাস্থ্যসম্মত তেল ব্যবহার করুন| আপনার খাদ্যে এবং স্যালাড প্রবেশনে এই সকল পরিপূরক ব্যবহার, আপনার হৃদযন্ত্র সুস্থ্য রাখতে সাহায্য করবে|

ধূমপান বন্ধ করুন

ধূমপান বন্ধ করুন

এটা আপনার হৃদয় ও ফুসফুসে জন্য অত্যন্ত খারাপ, এবং এতে কোলেস্টেরল বেড়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে|

বাদাম

বাদাম

আপনার খাদ্যের মধ্যে বাদাম, শিম জাতীয়, এবং অপ্রক্রিয়াজাত শস্য যোগ করুন|

সবুজ চা(গ্রীন টি)

সবুজ চা(গ্রীন টি)

প্রচুর পরিমানে গ্রীন টি পান করুন|এটা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমূহ এবং কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানোর জন্য চমৎকার|এই অলৌকিক ড্রিংকের সঙ্গে আপনার ঠান্ডা পানীয়, সোডা, চা ও কফি প্রতিস্থাপন করুন, এবং আপনি এর আশ্চর্যজনক প্রভাব সঙ্গে সঙ্গে লক্ষ্য করবেন| স্বাভাবিকভাবে আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে এটি একটি সহজ এবং কার্যকর উপায়| নিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার কোলেস্টেরলের মাত্রা ঘন ঘন পরীক্ষা করছেন নিয়ম অধীনে রাখার জন্য| এই সহজ এবং সস্তা ধারনাগুলি আয়ত্তে আনুন, এবং মাত্র কয়েক দিনের মধ্যে আপনার স্বাস্থ্য এবং শক্তির ক্ষমতার মধ্যে পার্থক্য দেখুন| নিরাপদ থাকুন এবং সুস্থ থাকুন|

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    English summary

    কি করে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করবেন | কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ | কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ

    The stressful lifestyle that we are exposed to on a daily basis has started taking its toll on this generations health. As a result, most of us suffer from diabetes, obesity and blood pressure issues at a very young age now.
    Story first published: Monday, October 17, 2016, 18:00 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more