For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

এক কাপ হার্বাল চায়েই নিয়ন্ত্রণে থাকবে ডায়াবেটিস! দেখুন কোন চা পান করবেন

|

ব্যস্ত দিনগুলিতে এক কাপ গরম চা, ক্লান্তি দূর করে ও এনার্জিতে ভরিয়ে তোলে। তবে আপনি কী জানেন, এক কাপ চা প্রাকৃতিক উপায়ে আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করতে পারে? হ্যাঁ, নির্দিষ্ট কয়েকটি ভেষজ চায়ের সেবন, ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণের সাথে সাথে, রক্তে শর্করার মাত্রাও উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে সহায়তা করে।

তাহলে আসুন দেখে নেওয়া যাক, প্রাকৃতিক উপায়ে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ রাখতে কোন কোন চা বেছে নেওয়া যেতে পারে।

১) গ্রিন টি

১) গ্রিন টি

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন টি শরীরের প্রদাহ এবং কোষের ক্ষতি কমাতে পারে, পাশাপাশি ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতেও অত্যন্ত সহায়ক। গবেষণায় দেখা গেছে যে, গ্রিন টি-তে বায়োঅ্যাক্টিভ যৌগ উপস্থিত, এটি পেশী কোষে গ্লুকোজ গ্রহণ করতে পারে, যা শরীরে শর্করার মাত্রা কমাতেও সহায়তা করে। তাছাড়া, দিনে দু'বার গ্রিন টি-র সেবন, ওজন কমানো ও ব্লাড সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখতেও অত্যন্ত কার্যকর। আরও ভাল ফল পেতে, এক চিমটি জায়ফল গুঁড়ো যোগ করে গ্রিন টি পান করুন। এতে ঘুম ভাল হয় এবং ওজন কমানোর প্রক্রিয়াকেও ত্বরান্বিত করে।

২) হিবিস্কাস টি

২) হিবিস্কাস টি

হিবিস্কাস টি সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখতে অত্যন্ত সহায়ক। হিবিস্কাস পলিফেনল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ, যা প্রদাহ কমানোর সাথে সাথে, শরীরে ইনসুলিন প্রতিরোধ ক্ষমতা উন্নত করে, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং রক্তচাপও নিয়ন্ত্রিত থাকে।

৩) ব্ল্যাক টি

৩) ব্ল্যাক টি

ব্ল্যাক টি প্রাকৃতিকভাবে ইনসুলিন লেভেল নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহায়তা করে। কারণ ব্ল্যাক টি-তে Theflavins এবং Thearubigins নামক উদ্ভিজ্জ যৌগ বর্তমান, যা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি সমৃদ্ধ। এটি রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতেও সহায়তা করে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, দু-তিন কাপ চিনি ছাড়া ব্ল্যাক টি-এর সেবন, ইনসুলিন নিঃসরণ উন্নত করতে পারে।

৪) দারুচিনির চা

৪) দারুচিনির চা

অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ দারুচিনির চা, ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে অত্যন্ত উপকারি। এটি স্থূলতা কমানোর পাশাপাশি, হার্টের স্বাস্থ্য উন্নত করতেও সহায়তা করে। তাছাড়া এটি ট্রাইগ্লিসারাইড কমিয়ে শর্করার মাত্রা কমাতেও অত্যন্ত কার্যকরী। এছাড়া দারুচিনির চা ইনসুলিন সংবেদনশীলতা নিয়ন্ত্রণ করতেও সহায়তা করে। যার ফলে, হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেকটাই কমে।

৫) ক্যামোমাইল টি

৫) ক্যামোমাইল টি

ক্যামোমাইল টি-এর সেবন, অনিদ্রা সমস্যা দূর করার পাশাপাশি, ঘুমের মান উন্নত করতেও অত্যন্ত সহায়ক। তবে আপনি কী জানেন, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখতেও এই চা অত্যন্ত কার্যকরী। এই চায়ে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি এবং নিরাময়ের বৈশিষ্ট্য বর্তমান। প্রতিদিন দু-তিন কাপ ক্যামোমাইল টি-এর সেবন, রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি, অক্সিডেটিভ স্ট্রেসের কারণে হওয়া ক্ষতি কমাতেও সহায়তা করে। তাছাড়া, এই চা অন্ত্রের স্বাস্থ্য, মেটাবলিজম উন্নত করে এবং ওজন কমানোর ক্ষেত্রেও সহায়তা করে।

৬) হলুদ চা

৬) হলুদ চা

হলুদে শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি বৈশিষ্ট্য বর্তমান। হলুদে উপস্থিত কারকিউমিন, রক্তে শর্করার মাত্রা কমাতে অত্যন্ত সহায়ক। গবেষণায় দেখা গেছে যে, কারকিউমিন ইনসুলিনের সংবেদনশীলতাকে উন্নত করে, রক্তে স্বাস্থ্যকর শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি করতে পারে। টিস্যুতে গ্লুকোজ গ্রহণ বৃদ্ধি করে।

English summary

Teas that help manage diabetes naturally in Bengali

Read through this article to get an overview of how different types of tea benefits people with diabetes.
X