পেনকিলার ছাড়াই পিঠের ব্যথা কমিয়ে ফেলতে চান? তাহলে মেনে চলুন এই ৭টি নিয়ম

Posted By:
Subscribe to Boldsky

আপনাদের কি জানা আছে শরীরের কোন অংশে ব্যথা হলে একেবারেই সহ্য করা যায় না? জানা নেই তো! সঠিক উত্তর হল পিটের ব্যথা। কেন জানেনে? শরীরের এই অংশে যন্ত্রণা হলে আমাদের চলাফেরা করতে এতটাই সমস্যা হয় যে কষ্টটা কয়েক গুণ বেড়ে যায়। অনেক কারণে পিঠের যন্ত্রণা হতে পারে। যেমন- চোট-আঘাত, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা, ঠিক ভাবে না হাঁটলে বা শুলে, হাড় দুর্বল হলে, সংক্রমণ প্রভৃতি।

আচ্ছা পিঠে যন্ত্রণা হলে সাধারণত আপনারা কী করে থাকেন? কী আবার। পেনকিলার খাই আর আশায় াশায় তাকি যে এক সময়ে গিয়ে কষ্ট একেবারে কমে যাবেই। একথা ঠিক যে পেনকিলার খেলে ব্য়থা তো কমে, কিন্তু অতিরিক্ত মাত্রায় পেনকিলার খাওয়ার কারণে শরীরের যে ক্ষতি হয়, সেদিকে কি খেয়াল থাকে? তাই তো এই প্রবন্ধে এমন কিছু নিয়ম সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যা মেনে চললে পেনকিলার ছাড়াই যন্ত্রণা কমিয়ে ফেলা সম্ভব হবে।

টিপ ১:

টিপ ১:

খুশি মনে হাসতে হবে। মানে! একেবারে ঠিক শুনেছেন। যখন পিঠে যন্ত্রণা হবে তখন মন ভরে হাসবেন। এমনটা করলে এন্ডোরফিন হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যাবে। ফলে কমতে থাকবে পিঠের ব্যথা।

টিপ ২:

টিপ ২:

স্ট্রেসের কারণেও পিটের যন্ত্রণা বাড়তে পারে। তাই মানসিক চাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখা একান্ত প্রয়োজন। কারণ যত মানসিক চাপ বাড়বে, তত পেশি শক্ত হতে থাকবে। ফলে বাড়বে কষ্ট।

টিপ ৩:

টিপ ৩:

যন্ত্রণা হলেই পিঠে ভাল করে মাসাজ করবেন। এমনটা করলে শরীরের ওই অংশে রক্ত চলাচল বেড়ে যাবে। ফলে কমতে থাকবে কষ্ট।

টিপ ৪:

টিপ ৪:

পিঠের ব্যথা যদি খুব বেশি না হয়, তাহলে হালকা-ফুলকা শরীরচর্চা করতেই পারেন। তাতে শরীরে এন্ডোরফিন হরমোনের ক্ষরণ যেমন বৃদ্ধি পাবে, তেমনি পিটে রক্ত চলাচল বেড়ে যাবে। ফলে কমতে শুরু করবে যন্ত্রণা।

টিপ ৫:

টিপ ৫:

প্রতিদিন সকালে ধীরে ধীরে পিঠকে একটু স্ট্রেচ করবেন। এমনটা করলে পিঠের পেশির কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। সেই সঙ্গে পেশীর স্টিফনেসও কমবে। ফলে কমতে থাকবে যন্ত্রণা।

টিপ ৬:

টিপ ৬:

শরীরের কোনও জয়াগায় লেগে গেলে আমরা কী করি? ওই জায়গাটায় হাতের তালু দিয়ে খুব জোরে জোরে ঘষতে থাকি। কারণ এমনটা করলে রক্ত চলাচল বেড়ে যায়। ফলে যন্ত্রণা কমতে থাকে। পিঠের ব্যথার ক্ষেত্রেও একই পদ্ধতির সাহায্য নেওয়া যেতে পারে। প্রয়োজনে একটা রোলিং মাসাজার কিনে রাখতে পারেন। যখনই পিটে ব্যথা হবে কাউকে বলবেন রোলিং মাসাজারটা দিয়ে ভাল করে পিঠে রোল করতে। এতে শরীরের এই অংশে রক্তচলাচল বেড়ে যাবে। ফলে কমে যাবে যন্ত্রণা।

টিপ ৭:

টিপ ৭:

পিঠে ব্যথা হলেই একবার ঠান্ডা জলে আর একবার গরম জলে শেক দেবেন। এমনটা করলে প্রদাহ তো কমবেই, সেই সঙ্গে যন্ত্রণাও কমতে শুরু করবে।

English summary
Back pain can be one of the worst kinds of pains one can experience, as it hinders movement. Body pain in any part of the body can lead to a lot of discomfort and can also hamper your daily activities.
Story first published: Wednesday, March 29, 2017, 10:00 [IST]
Please Wait while comments are loading...