For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

হার্ট ভালো রাখে, ক্যান্সার প্রতিরোধ করে, বাজরার উপকারিতা জানলে অবাক হবেন!

|

শরীর সুস্থ রাখতে স্বাস্থ্য সচেতন মানুষরা সর্বদা পুষ্টিগুণে ভরপুর খাবারের খোঁজ করতে থাকেন। আর সুস্থ থাকতে এবং মেদ কমাতে সবার প্রথমে প্রয়োজন ক্যালোরি বার্ন করা। তার জন্য এক্সারসাইজ, হাঁটাচলা তো করতেই হবে, তবে এর পাশাপাশি সঠিক ডায়েটের দিকেও নজর দেওয়া উচিত। স্বাস্থ্যের কথা ভেবে আমরা অনেকেই ভাতকে একটু দূরে সরিয়ে, কাছে টেনে নিয়েছি গমের আটাকে অর্থাৎ আটার রুটিকে। কিন্তু আপনি কি জানেন, গমের আটার থেকেও বাজরার আটা অনেক বেশি উপকারি? জানতেন না নিশ্চয়ই? তাহলে আসুন জেনে নেওয়া যাক, বাজরার কী কী স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে।

রাগি, ফক্সটেইল বাজরা, পার্ল বাজরা, ফিঙ্গার বাজরা, প্রসো বাজরা, লিটল বাজরা, কোডো বাজরা এবং বার্নইয়ার্ড বাজরা ছাড়াও আরও কয়েক ধরনের বাজরা রয়েছে। আর এই সমস্ত ধরনের বাজরা থেকেই প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি মেলে। বাজরা থেকে রুটি, ইডলি, দোসা, বিভিন্ন রকমের মিষ্টি ছাড়াও আরও অনেক পদ তৈরি করা যায়।

রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে

রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে

বাজরা, গম এবং ভুট্টার তুলনায় বাজরা থেকে পুষ্টি বেশি পরিমাণে মেলে। এটি গ্লুটেন-মুক্ত এবং কম গ্লাইসেমিক সূচক। এতে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটরি ফাইবার, প্রোটিন, ভিটামিন এবং খনিজ থাকে, ফলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে। তাই বাজরা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর খাদ্য।

ওজন কমাতে সাহায্য করে

ওজন কমাতে সাহায্য করে

অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে বাজরা। তাই যাদের ওজন খুব বেশি তারা দৈনন্দিন বাজরা দিয়ে তৈরি খাদ্য খেতে পারেন। ব্রেকফাস্টে বাজরার কিছু খেতে পারেন। গমের পরিবর্তে বাজরার আটা দিয়ে তৈরি রুটি খেতে পারেন। প্রতিদিন ভাতের বদলে বাজরা দিয়ে তৈরি খাদ্য খেতে পারলে তা চর্বি জমা কম করতে পারে, অন্ত্র ভালো রাখে।

বাজরার আটা গ্লুটেন ফ্রি এবং ফাইবার, ম্যাগনেশিয়াম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ভিটামিনে সমৃদ্ধ। আর এই সব পুষ্টিকর উপাদান খিদে নিয়ন্ত্রণ করে এবং আমাদের শরীরে অতিরিক্ত ক্যালোরি জমা হতে দেয় না। ফলে ওজন কম করা সম্ভব হয়।

হার্টের জন্য ভালো

হার্টের জন্য ভালো

বাজরা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এলডিএল কোলেস্টেরল, মোট কোলেস্টেরল কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। রক্তনালী স্বাস্থ্যকর রাখে এবং রক্ত জমাট বাঁধা দূর করে। যার ফলে হৃদরোগ এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেকটাই কমে।

ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করে

ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করে

গবেষণায় দেখা গেছে যে, বাজরা বিভিন্ন টিস্যুতে ক্যান্সার কোষের বৃদ্ধি আটকাতে পারে। বাজরায় থাকা ফাইটোকেমিক্যালস সাধারণ কোষগুলির কোনও ক্ষতি না করেই কোলন, স্তন এবং লিভারে antiproliferative প্রভাব এবং কম ক্যান্সার কোষের গঠনে সাহায্য করে।

হজমশক্তি বাড়ায়

হজমশক্তি বাড়ায়

বাজরাতে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটরি ফাইবারের উপস্থিতি পাচনতন্ত্রের কার্যকারিতা উন্নত করতে সাহায্য করে। এটি কোষ্ঠকাঠিন্য, পেট ফাঁপা, ফোলাভাব, ক্র্যাম্পিংয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করে। অন্ত্রের কার্যকারিতা উন্নত করে এবং লিভার, কিডনির মতো অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলি ভালো রাখে। এছাড়াও, বাজরা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে অত্যন্ত সহায়ক।

English summary

Reasons Why You Should Include Millets In Daily Diet In Bengali

Let us know the holistic nutritional benefits these millets offer if included in daily diet.
X