টুথপিক ব্যবহার হতে পারে ভয়ঙ্কর সব ক্ষতি

Posted By:
Subscribe to Boldsky

মাংস-ভাত খাওয়ার পর পেটে হাত বোলাতে বোলাতে দাঁত খোচানোর অভ্য়াস ছাড়ুন, না হলে হতে পারে হাজারও বিপদ! ভাবছেন ওইটুকু কাঠি আবার কী বিপদ করতে পারে, তাই তো? শুনতে যতই আজগুবি লাগুক না কেন, ওইটুকু কাঠিই দাঁতের মারাত্মকসব ক্ষতি করে থাকে। তাহলে আপনি প্রশ্ন করেত পারেন, এবার থেকে দাঁতে কিছু আটকে গেলে কী করব? খুব সহজ! কাঠির বদলে জল দিয়ে মুখটা ভাল করে কুলি করুন, তাহলেই দেখবেন দাঁতের ফাঁকে জমে থাকা খাবার ধুয়ে গেছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে টুথপিক ব্য়বহার মোটেই স্বাস্থ্য়কর অভ্য়াস নয়। তাই আপনারও যদি এই কুঅভ্য়াসটি থেকে থাকে, তাহলে এই প্রবন্ধটি পড়া মাস্ট! কারণ এই লেখায় এমন কিছু শারীরিক ক্ষতির প্রসঙ্গে আলোচনা করা হল, যা টুথপিকের কারণে হতে পারে।

১.ঘর্ষণের কারণে রক্তপাত:

১.ঘর্ষণের কারণে রক্তপাত:

যখন আমরা টুথপিক দিয়ে দাঁত খোচাই, তখনই দাতের মাঝে ঘর্ষণ তৈরি হয়। আর এমনটা হলে রক্তপাত হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। প্রসঙ্গত, বারংবার দাঁতে রক্তপাত হলে সমগ্র দাঁতের সেটের উপরই এর কুপ্রভাব পরে।

২. মাড়ির নানা রোগ হতে পার:

২. মাড়ির নানা রোগ হতে পার:

মাঝে মঝ্য়ে এক-দুবার টুথ পিক ব্য়বহার করলে তেমন তোনও ক্ষতিই হয় না। তবে রোজদিন, বারে বারে যদি এটির ব্য়বহার হয়, তাহলে কিন্তু শুধু দাঁত নয়, হতে পারে অনেক ধরনের মাড়ির রোগও। তাই সাবধান হওয়াটা জরুরি। না হলে কিন্তু বিপদ!

৩. দাঁতের মাঝে ফাঁক তৈরি হয়:

৩. দাঁতের মাঝে ফাঁক তৈরি হয়:

বারে বারে টুথপিক ব্য়বহার করলে দাঁতের মাঝে ফাঁক তৈরি হতে শুরু করে। আর এমনটা হলে আরও বেশি করে খাবার দাঁতে আটকায়। ব্য়বহার বারে টুথপিকের। ফলে দাঁতের আর কিছু থাকেই না। ক্ষয় হওয়ার মাত্রা বেড়ে গিয়ে হাজারও রোগ বাসা বাঁধতে শুরু করে মুখ গহ্বরে।

৪. দাঁতের আবরণের ক্ষতি হয়:

৪. দাঁতের আবরণের ক্ষতি হয়:

আমাদের প্রতিটি দাঁতের উপরই একটি আত্মরক্ষার কবজ আছে, যাকে দেখা যায় না। এই কবজটিকে চিকিৎসা পরিভাষায় এনামেল বলা হয়ে থাকে। যখনই আমরা প্লাস্টিক বা কাঠের তৈরি টুথপিক চিবোই, তখন দাঁতের এই আবরণ মারাত্মভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়, আর এমনটা হলে সার্বিকভাবে দাঁতের ক্ষয় হতে শুরু করে, যা মোটেই ভাল নয়।

৫. দাঁতের রুটস ক্ষতিগ্রস্থ হয়:

৫. দাঁতের রুটস ক্ষতিগ্রস্থ হয়:

আমরা খালি চোখে শুধু দাঁতকে দেখতে পাই। কিন্তু বাস্তবে দাঁতের ঠিক নিচ দিয়ে হাজারো শিরা-উপশিরা শরীরের অন্দরে চলে যায়। টুথপিক দাঁতের এই রুটগুলির মারাত্মক ক্ষতি করে। প্রত্যক্ষ ভাবে না হলেও পরোক্ষ ভাবে। আর এমনটা হলেই মারাত্মক যন্ত্রণা হতে শুরু করে। এক এক সময় পরিস্থিত এতটাই খারাপ হয়ে যায় যে, চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া ছাড়া অন্য কোনও উপাই থাকে না।

৬. ভেনারকে নষ্ট করে দেয়:

৬. ভেনারকে নষ্ট করে দেয়:

ভাবছেন ভেনারটি কী, তাই তো? দাঁতকে ক্য়াভেটিস বা পোকার হাত থেকে বাঁচাতে অনেকে আর্টিফিশিয়াল আবরণ লাগান দাঁতে, যাকে ভেনার বলা হয়। মাত্রাতিরিক্ত টুথপিক ব্য়বহার করলে এই ভেনারের মারাত্মক ক্ষতি হয়।

৭. মুখে দুগর্ন্ধ হয়:

৭. মুখে দুগর্ন্ধ হয়:

দাঁতের মাঝে অনেকক্ষণ খাবার আটকে থাকার পরে যখন আমরা টুথপিকের সাহায্য়ে সেই খাবারেরে টুকরোগুলিকে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে বার করি তখন মুখ থেকে বাজে গন্ধ ছাড়তে শুরু করে, যা লোক সমাজে আপনাকে সম্মানহানী করতে। তাই এই বিষয়গুলির দিকে খেয়াল রাখাটা জরুরি।

Read more about: দাঁত
English summary
There are moments when you eat something and it gets stuck in between your tooth. In order to get rid of it, a few people have the habit of using a toothpick. But is using a toothpick safe? Well, this might be the question dwelling in their minds. But when you feel that uneasiness, you just pick one of those toothpicks and use it.
Story first published: Thursday, March 2, 2017, 11:14 [IST]
Please Wait while comments are loading...