For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

Face Mask vs Face Shield : মাস্ক না ফেস শিল্ড, করোনা সংক্রমণ এড়াতে কোনটি সেরা?

|

শিথিল হচ্ছে লকডাউন, প্রায় স্বাভাবিক হতে চলেছে মানুষের জীবনযাত্রা। টানা কয়েক মাস পর, বন্দী জীবন থেকে হাফ ছেড়ে বাঁচতে চলেছেন দেশের আপামর জনগণ। কিন্তু করোনা ভাইরাস যেনো কিছুতেই থামতে চাইছে না। ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে covid-19 এর গ্রাফ। যার ফলে সাধারণ মানুষের কাছে এখন একটাই প্রশ্ন, কবে রক্ষা পাওয়া যাবে এই অতিমারি করোনা ভাইরাসের হাত থেকে?

এদিকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, টিকা বা ঔষধ আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত করোনাকে সঙ্গে নিয়েই আমাদের চলতে হবে। তাই এবার ভাইরাসকে তোয়াক্কা না করেই বাইরে বেরোতে হচ্ছে সকলকে। মনে ভয় থাকলেও, করোনাকে সঙ্গে নিয়েই যেতে হচ্ছে কর্মক্ষেত্রে। তবে এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। কিছু ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব মেনে চললেও, কিছু কিছু ক্ষেত্রে মানা সম্ভব হয়ে উঠছে না। কাজেই এই সময়ে সতর্ক থাকার দায়িত্ব নিতে হবে নিজেদেরকেই।

কোভিড-১৯ : হাসপাতালে যাওয়ার সময় এই সতর্কতাগুলি মেনে চলুন

সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মাস্ক ও গ্লাভস্ ব্যবহারের পাশাপাশি মেনে চলতে হবে সামাজিক দূরত্ব। তবে বাড়তি সতর্কতা হিসেবে অনেকেই মাস্কের উপর ফেস শিল্ড ব্যবহার করছেন। তাই অনেকের মনে প্রশ্ন, করোনাকে এড়াতে মাস্ক নাকি ফেস শিল্ড, কোনটি সবচেয়ে ভালো? বাইরে বেরোলে বা গণপরিবহনে উঠলে কোনটি পরা উচিত? তবে চলুন জেনে নেওয়া যাক করোনা ঠেকাতে কোনটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞদের মত

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞদের মত

বিশেষজ্ঞদের মতে, ত্রিস্তরীয় মাস্ক সঠিক নিয়মে ব্যবহার করলে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলে প্রায় ৯০-৯৫ শতাংশ সংক্রমণ ঠেকানো সম্ভব। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে, অনেকেই সঠিক নিয়মে মাস্ক ব্যবহার করছেন না। কথা বলার সময় মাস্ক থুতনির কাছে নামিয়ে নিচ্ছেন, কেউ আবার নাকের নিচ থেকে মাস্ক ব্যবহার করছেন। যার ফলে বাড়ছে সংক্রমণের হার। কখনও কখনও আবার মাস্কের পরিবর্তে অনেকে রুমাল ব্যবহার করছেন। রুমালের নিচের দিকটা ফাঁকা থাকার ফলে ভাইরাস প্রবেশ করার সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে।

মাস্ক না ফেস শিল্ড

মাস্ক না ফেস শিল্ড

বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে, করোনা ভাইরাস মূলত মুখ, চোখ ও নাক দিয়ে শরীরের মধ্যে প্রবেশ করে ফুসফুসে সংক্রমণ ঘটায়। তাই মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি অনেকে আলাদাভাবে চশমা বা সানগ্লাস ব্যবহার করছেন। কিন্তু ফেস শিল্ড ব্যবহার করলে আলাদাভাবে চশমা ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে না এবং চোখে, মুখে বা নাকে হাত দেওয়ারও কোনও সুযোগ থাকে না। যার ফলে সংক্রমণের আশঙ্কা অনেকটাই কমে যায়। কারণ, এটি কপাল থেকে চিবুকের নিচ পর্যন্ত ঢাকা থাকে। এছাড়াও একটি বাড়তি সুবিধা হল, এটি ব্যবহারের পরে সাবান জল দিয়ে ধুয়ে বা স্যানিটাইজ করে পুনরায় ব্যবহার করা যায়।

কিন্তু ফেস শিল্ড ব্যবহারের ক্ষেত্রেও রয়েছে কিছু অসুবিধে, যেমন - এটির দুপাশে অল্প কিছুটা ফাঁকা থাকে। সেই ফাঁকা স্থান দিয়ে হাঁচি বা কাশির ড্রপলেট প্রবেশ করে সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়। কাজেই আপনি যদি ত্রিস্তরীয় মাস্ক সঠিক নিয়ম মেনে ব্যবহার করেন তবে ফেস শিল্ড পরার প্রয়োজন পড়ে না।

কাদের জন্য ফেস শিল্ড অত্যন্ত প্রয়োজন

কাদের জন্য ফেস শিল্ড অত্যন্ত প্রয়োজন

চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশকর্মী ও হাসপাতালের অন্যান্য কর্মীদের ক্ষেত্রে ফেস শিল্ড ব্যবহার করা অত্যন্ত প্রয়োজন। সাধারণ কোনও কাজ বা বাইরে বেরোলে ফেস শিল্ডের খুব একটা প্রয়োজন পড়বে না। কেবলমাত্র সঠিক নিয়মে মাস্ক ব্যবহার করলে এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চললে অনায়াসেই সংক্রমণ এড়ানো সম্ভব।

বাড়তি সতর্কতার জন্য কী করা উচিত

বাড়তি সতর্কতার জন্য কী করা উচিত

নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে এবং বাড়তি সতর্কতা গ্রহণে আপনি ফেস শিল্ড ও মাস্ক দুটোই ব্যবহার করতে পারেন। তবে আপনি যদি সামাজিক দূরত্ব মেনে চলেন, নিজের গাড়িতে যাতায়াত করেন এবং কর্মস্থানে যদি আলাদাভাবে বসেন তবে দুটোর মধ্যে যেকোনও একটা ব্যবহার করলেই চলবে। পাবলিক ট্রান্সপোর্টে যাবার ক্ষেত্রে দুটো ব্যবহার করতে পারেন। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, ফেস শিল্ড ব্যবহার করলেও মাস্ক ব্যবহার করতে কখনোই ভুলবেন না। এতে সুরক্ষিত থাকবেন আপনারাই।

English summary

Face mask or face shield to combat covid-19

While both face shields and face masks are available in the market, know what will be ideal or more effective to fight COVID-19.
X