For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

'কনজাঙ্কটিভাইটিস' হতে পারে করোনা ভাইরাসের নতুন উপসর্গ, দেখুন কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা

|

দিনের পর দিন নতুন নতুন উপসর্গ নিয়ে দেখা দিচ্ছে কোভিড-১৯। ফলে রোগের প্রকৃতি ও উপসর্গ বুঝতে গিয়ে এক এক দিন এক এক ধরনের অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হচ্ছে চিকিৎসক ও গবেষকদের। রোগের সংক্রমণ থেকে বাঁচার উপায় খুঁজতে গিয়ে এখনও ধন্দে রয়েছে চিকিৎসকমহল।

কোনও দেশে হাঁচি, সর্দি, কাশি শ্বাসকষ্ট ও জ্বরের উপসর্গ ছাড়াও সংক্রমিত ব্যক্তির শরীরে দেখা দিচ্ছে নতুন ধরনের উপসর্গ। কোনও দেশে রোগীর স্বাদ ও গন্ধের বোধ চলে যাচ্ছে, আবার কোনও জায়গায় পা ও হাতের পাতায় ফোস্কা, পায়ের আঙুলে র‍্যাশ। এইসব কিছু উপসর্গ বাদ দিয়ে এবার নতুন এক উপসর্গের কথা তুলে ধরেছেন চিকিৎসকেরা। গবেষকদের দাবি, করোনা ভাইরাস সংক্রমিত হতে পারে চোখেও। এর ফলে চোখ কনজাঙ্কটিভাইটিসের মতো লাল হয়ে যায়। এই উপসর্গটিকে গবেষকরা 'পিঙ্ক আই' নামেও অভিহিত করছেন। আসুন জেনে নিই কনজাঙ্কটিভাইটিস কী?

Conjunctivitis Could Be A New Symptom Of Coronavirus

কনজাঙ্কটিভাইটিস কী?

চোখের সাদা অংশের উপরে যে পাতলা একটি আবরণ থাকে তাকে বলা হয় কনজাংটিভা। যেকোনও কারণে চোখের এই অংশে প্রদাহ (Inflammation) হলে একে কনজাঙ্কটিভাইটিস বলা হয়। সাধারণ অর্থে একে 'চোখ ওঠা' বলে। এই রোগটি এই নামেই সকলের মুখে মুখে প্রচলিত।

অ্যালার্জি, ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া দ্বারা আক্রান্ত হয়ে চোখের এই সাদা অংশটি লাল হয়ে যায়, জল পড়ে এবং চোখ চুলকাতে থাকে। এছাড়াও, চোখে নোংরা জমে, চোখ ও মাথার যন্ত্রণা হয় এবং কারও কারও দৃষ্টি অস্পষ্ট হয়ে যায়।

Conjunctivitis Could Be A New Symptom Of Coronavirus

COVID-19 এর সঙ্গে কনজাঙ্কটিভাইটিস কীভাবে সংযুক্ত?

বিশেষজ্ঞদের মতে, চোখ করোনা ভাইরাস সংক্রমণের পথ হতে পারে। যদি কোনও সংক্রামিত ব্যক্তি নিজের হাত দিয়ে চোখ ঘষে, সেই হাত দিয়ে অন্য কাউকে স্পর্শ করে তাহলে ভাইরাসটি সেই ব্যক্তির শরীরে প্রবেশ করবে। এছাড়াও, সংক্রমিত ব্যক্তির চোখের জল যদি কারও গায়ে পড়ে এবং সেই জল যদি ওই ব্যক্তিটি কোনওভাবে নিজের চোখ, মুখ বা নাকে লাগিয়ে ফেলেন, তাহলে ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

জ্যামা অপথালমোলজি (চক্ষু বিজ্ঞান)-তে প্রকাশিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে, COVID-19 এ আক্রান্ত ৩৮টি রোগীর মধ্যে ১২টি রোগীর চোখে কনজংটিভাল কনজেশন বা কেমোসিস অর্থাৎ চোখের কনজাংটিভা ফুলে যাওয়া, এপিফোরা অর্থাৎ চোখ দিয়ে অত্যাধিক জল পড়া, ইত্যাদি লক্ষণগুলি প্রকাশ পেয়েছিল। এই লক্ষণগুলি গুরুতরভাবে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যেই দেখা গিয়েছিল।

'দ্য জার্নাল অফ্ দ্য আমেরিকান অ্যাকাডেমি অফ্ অপথালমোলজি'-তে প্রকাশিত একটি তথ্য অনুযায়ী, COVID-19 দ্বারা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মাত্র ১-৩ শতাংশের এই ধরনের চোখের সমস্যা দেখা যায়। তবে, মূল উপসর্গগুলি যেমন - জ্বর, শুকনো কাশি, গলা ব্যাথা, শ্বাসকষ্ট, ইত্যাদি নেই কিন্তু শুধুমাত্র কনজাঙ্কটিভাইটিস এর লক্ষণ রয়েছে এরকম হলে ততটা ভয়ের কিছু থাকে না। তবে যদি উপরোক্ত মূল উপসর্গগুলির একটি বা দুটিসহ চোখ লাল হওয়া থাকে তাহলে তা চিন্তার বিষয় হয়ে ওঠে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেডিসিন ও প্যাথোলজির অধ্যাপক জন ইভান্স প্যাটারসন এর মতে, COVID-19 দ্বারা সংক্রামিত রোগীর হাঁচি/কাশি থেকে নির্গত ড্রপলেটস্ সুস্থ ব্যক্তির নাকে-মুখে ঢুকলে যেমন করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন, তেমনই ড্রপলেটস্ চোখে ঢুকলেও কোনও ব্যক্তি আক্রান্ত হতে পারেন। তাই মাস্ক এর পাশাপাশি সুরক্ষা-চশমা ব্যবহার করাও অত্যন্ত প্রয়োজন।

Conjunctivitis Could Be A New Symptom Of Coronavirus

এক্ষেত্রে কী কী সাবধানতা অবলম্বন করবেন

১) আপনারও যদি এই জাতীয় সমস্যা দেখা দেয় তবে অবহেলা না করে ডাক্তারের পরামর্শ নিন এবং চিকিৎসা করান।

২) চোখে অপরিষ্কার হাত দেবেন না।

৩) চোখে হাত দেওয়ার আগে এবং পরে অবশ্যই সাবান দিয়ে ভালো করে হাত ধুতে হবে।

৪) মাস্ক ব্যবহারের সাথে সাথেই চশমা ব্যবহার করুন।

৫) যারা চোখে ড্রপ দেন, তারা ড্রপ দেওয়ার আগে ও পরে হাত ধুয়ে নেবেন।

৬) তোয়ালে শেয়ার করবেন না।

৭) ঘনঘন বালিশ কভার, বেডশীট এবং তোয়ালে বদলান বা ভালো করে ধুয়ে নিন।

৮) সুইমিং পুল ব্যবহার করবেন না।

৯) ঘনঘন চশমা পরিষ্কার করুন।

১০) আই কসমেটিকস্ শেয়ার করবেন না।

English summary

Conjunctivitis Could Be A New Symptom Of Coronavirus

The eyes can be the route of transmission for the coronavirus. The mucous membranes of the eyes transmit the virus to another person through tears.
X