(ছবি) চিকুনগুনিয়া জ্বরের লক্ষণ কিভাবে বুঝবেন ?

By: Oneindia Bengali Digital Desk
Subscribe to Boldsky

সম্প্রতি রাজধানী দিল্লিতে চিকুনগুনিয়া জ্বরের প্রভাবে প্রায় ১০ জনের মৃত্যু ঘটতে দেখা গিয়েছে। সবথেকে সাংঘাতিক বিষয় হল এই জ্বরের চিকিৎসার জন্য কোনও টীকা এখনও আবিষ্কার হয়নি। [(ছবি)চিকুনগুনিয়ায় গাঁটের ব্যাথা উপশমে এই ঘরোয়া টোটকাগুলি খুবই উপকারি]

তাই সাবধানতাই অবলম্বন করেই একমাত্র এই রোগ থেকে সুরক্ষিত থাকা সম্ভব। সাধারণ জ্বর বা ডেঙ্গুর জ্বরের মধ্যে সাদৃশ্য থাকলেও এগুলির থেকে আলাদা হয় চিকুনগুনিয়ার জ্বর। মশা কামড়ানোর ৩ থোকে ১০ দিনের মধ্যে এই জ্বরের প্রভাব দেখআ দিতে পারে।

যেহেতু এটি মশা বাহিত রোগ তাই এর থেকে সাবধান হওয়া জরুরী। একই সঙ্গে জ্বর হলেই ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়াটাও জরুরী। একনজরে দেখে নেওয়া যাক চিকুনগুনিয়া জ্বরের লক্ষণগুলি।

হঠাৎ করে জ্বর আসা

হঠাৎ করে জ্বর আসা

চিকুনগুনিয়ার প্রথম লক্ষণই হল হঠাৎ করে জ্বর আসা। চিকুনগুনিয়ার জ্বর চট করে ছাড়তে চায়না। আমরা সাদারণত জ্বর হলে যে ধরনের ওষুধ খাই সেই ওষুধ এই সময় খেলে অনেক সময় কোনও কাজই করে না। তাই এই জ্বর হলেই ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

গাঁটের ব্যথা

গাঁটের ব্যথা

চিকুনগুনিয়ায় আক্রান্ত হলে জ্বরের সঙ্গে সঙ্গে গাঁটের ব্যথা হতে শুরু করে। প্রথমে হাত, পা দিয়ে শুরু হয়ে ধীরে ধীরে সারা শরীরে ব্যথা অনুভূত হতে শুরু করে। ব্যথা ক্রমশ বাড়তে থাকার কারণে শারীরিক দুর্বলতা বাড়তে থাকে। এই ধরনের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করা যেতে পারে।

পেশীর ব্যথা

পেশীর ব্যথা

চিকুনগুনিয়া জ্বরের ফলে গাঁটের ব্যাথার পাশাপাশি পেশীর ব্যথার সমস্যা দেখা যায়। অনেক সময় পেশী এতটাই শক্ত হয়ে যায় যে চলাফেরার সমস্যা শুরু হয়। পেশীর ব্যাথা অনেক সময় এতটাই বেড়ে যায় যে তা সহ্য করা অসম্ভব হয়ে পড়ে।

মাথা ব্যথা

মাথা ব্যথা

চিকুনগুনিয়া জ্বরের ফলে যে লক্ষণগুলি দেখা যায় তার মধ্যে অন্যতম হল অসহ্য মাথা ব্যথা। এই জ্বর হলে দীর্ঘক্ষন মাথা ব্যথার প্রভাব দেখা যেতে পারে। যা আপনাকে শারীরিক কষ্ট দেওয়ার পাশাপাশি ঘুমেরও ব্যঘাত ঘটায়।

বমি পাওয়া

বমি পাওয়া

চিকুনগুনিয়া জ্বরের আর একটি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ হল বার বার বমি পাওয়া। এই জ্বর হলে শরীর অনেক দুর্বল হয়ে যায় যার ফলে বার বার বমি হয়। অনেক সময় বমি না হলেও বমি বমি ভাব লাগে।

অবসাদ

অবসাদ

চিকুনগুনিয়া জ্বরের ফলে গাঁটের ব্যথা, পেশীর ব্যথা, বমি পাওয়া এই সব লক্ষণের সঙ্গে আরও একটি সমস্যা দেখা যায়। শারীরিক দুর্বলতার কারণে অবসাদের প্রভাব দেখা যায় এই জ্বর হলে। মনোযোগ দিয়ে কোন কাজ করাই সম্ভব হয় না তখন।

চোখে ব্যথা

চোখে ব্যথা

চিকুনগুনিয়া জ্বরের ফলে আরও একটি সমস্যা দেখা যায় তা হলো চোখ লাল হয়ে যাওয়া এবং চোখের মধ্যে ব্যথা অনুভূত হওয়া। চোখের ব্যথা এতটাই বেড়ে যায় যে আলোর দিকে তাকাতেও সমস্যা হয়।

English summary
Chikungunya: How To Identify Chikungunya Fever Symptoms?
Please Wait while comments are loading...