আপনি কি ধূমপান করেন? তাহলে এই ৯ টি খাবার আপনাকে মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচাতে পারে

Posted By:
Subscribe to Boldsky

সিগারেটের শরীরে থাকে নিকাটিন। যা এক ধরনের টক্সিক ড্রাগ এবং অবশ্য়ই শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক। দীর্ঘদিন ধরে কারও শরীরে যদি নিকোটিন প্রবেশ করেত থাকে তাহলে তার মৃত্যু অবধারিত।

নিকোটিনের কারণে লাং মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এমনকি ধূমপান ছেড়ে দিলেও লংকে সম্পূর্ণ সারিয়ে তোলা সম্ভব হয় না। সর্বোপরি নিকোটিনের নেশা এমনই যে সহজে কারও পক্ষে এটি সেবনকরা ছেড়ে দেওয়া প্রায় সম্ভবই হয় না। তাই তো অনেকে চেষ্টা করেও ধূপমানের কুঅভ্য়াস থেকে বেরতে পারেন না অনেকে।

এখানেই শেষ নয়, নিরোটিন রক্ত চাপও খুব বাড়িয়ে দেয়। আর একথা তো সকলেরই জানা যে দীর্ঘদিন ধরে অনিয়ন্ত্রিত রক্ত চাপের কারণে নানা রোগ শরীরে বাসা বাধতে পারে। এমনকী হার্ঠ অ্যাটাকের মতো ঘটনা ঘটার আশঙ্কাও বেড়ে যায়।

আশার কথা এই যে শরীরে জমতে থাকা এই নিকোটিনকে বাইরে বের করে দেওয়া সম্ভব। কীভাবে? সেই নিয়েই আলোচনা করা হল এই প্রবন্ধে। এমন কিছু খাবার আছে যা নিয়মিত খেলে শরীর থেকে নিকোটিন বেরিয়ে যায়। তবে তার আগে ধূমপান ছেড়ে দেওয়াটা খুব দরকার। না হলে কিন্তু শরীরের কোনও উপকারিই হবে না।

প্রসঙ্গত, নিকোটিন শরীরে মজুত ভিটামিন- এ, সি এবং ই এর মাত্রা কমিয়ে দেয়। আর এমন হলে দেখা দেয় নানা অসুবিধা। তাই তো এমন খাবার খেতে হবে যা শরীরে এইসব ভিটামিনের মাত্রাকে বারিয়ে দেবে। আর এমনটা হলেই দেখবেন শরীর থেকে ধীরে ধীরে নিকোটিনের প্রভাব কমতে শুরু করেছে।

তাহলে অপেক্ষা কিসের জেনে নিন সেইসব খাবার সম্পর্কে যেগুলি আপনাকে নিকোটিনের ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচানোর পশাপাশি শরীর থেকে নিকোটিন বের করে দিতেও সহায্য় করবে।

১. ব্রকলি:

১. ব্রকলি:

এতে রয়েছে ভিটামিন সি এবং বি৫। কী কারণে এই সবজিটি খাওয়া প্রয়োজন জানেন? দীর্ঘদিন ধরে ধূমপান করলে শরীরে ভিটামিন সি এর পরিমাণ কমে যায়। তাই প্রতিদিন যদি ব্রকলি খাওয়া যায়, তাহলে একদিকে যেমন শরীরে ভিটামিন-সি এর মাত্রা বৃদ্ধি পায়, তেমনি শরীর থেকে ক্ষতিকর নিকোটিনও বেরিয়ে যায়। ফলে সার্বিকবাবে শরীর ভালো হতে শুরু করে।

২. কমলা লেবু:

২. কমলা লেবু:

এই ফলেও রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। তাই তো এটি প্রতিদিন খেলে হজম প্রক্রিয়া ভালো হয়। ফলে শরীর থেকে বেশি মাত্রায় নিকোটিন বেরিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায়। দেহ থেকে নিকোটিন ফ্রাশ আউট করার যে কটি উপায় আছে, তার মধ্য়ে সেরা হল এই পদ্ধতিটি। এক কথায় কমলা লেবু খান আর মৃত্যু থেকে দূরে পালান!

৩. গাজরের রস:

৩. গাজরের রস:

শরীর থেকে নিকোটিন বার করতে ভিটামিন সি এর পাশাপাশি ভিটামিন এ, কে এবং বি দারুন কাজে আসে। আর এই সবকটি ভিটামিনই রয়েছে গাজরে। তাই যদি নিকোটিনের কুপ্রভাব নিয়ে চিন্তিত থাকেন, তাহলে আজ থেকেই গাজরের রস খাওয়া শুরু করুন।

৪. পালং শাক:

৪. পালং শাক:

প্রতিদিন খেতে শুরু করুন এই শাকটি, যদি শরীরে থেকে নিকোটিনকে বার করতে চান তো! এতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় নানা ধরনের ভিটামিন। আর একথা তো এতক্ষনে জেনেই গেছেন যে শরীর থেকে নিকোটিনকে তাড়াতে ভিটামিনই একমাত্র ভরসা। আর তাছাড়া পালং শাক দিয়ে হরেক রকমের সুস্বাদু পদ রান্না করা যায়। তাই স্বাদ উপভোগ করতে করতে শরীরকে চাঙ্গা করার এর থেকে ভালো কোনও উপায় আছে কিনা জানা নেই।

৫. কিউই:

৫. কিউই:

এই ফলটিতেও রয়েছে ভিটামিন এ, সি এবং ই। আর এই সবকটা ভিটামিনই নিকোটিনকে শরীর ছাড়া করতে আপনাকে সাহায্য় করতে পারে।

৬. ডালিম:

৬. ডালিম:

ধূমপান ছাড়তে চান? সেই সঙ্গে ভাবছেন কীভাবে নিকোটিনের খারাপ প্রভাব থেকে শরীরকে বাঁচানো য়ায়। তাহলে আপনার সমস্য়ার সমাধান করে দিতে পারে ডালিম। এই ফলটিতে শরীরে রক্ত প্রবাহ বারিয়ে দিয়ে নিকোটিনকে বার করে দিতে সাহায্য় করে। তাই জুস হিসাবে বা সরাসরি এটি খাওয়া আজ থেকেই শুরু করে দিন।

৭. জাম:

৭. জাম:

এই ফলটি হল ভিটামিনের আঁতুড় ঘর। তাই এটি খেলে শরীরে জমে থাকা নানা টক্সিনের সঙ্গে নিকোটিনও বেরিয়ে যায়।

৮. শুকনো গাছ-গাছরা:

৮. শুকনো গাছ-গাছরা:

নানা ধরনের গাছের পাতা শুকনো করে খেলে শরীর থেকে নিকোটিন বেরিয়ে যায়। তাই আজই একজন আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন এবং সেই মতো ওষুধ খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন অল্প দিনেই আপনি একেবারে চাঙ্গা হয়ে উঠবেন।

৯. জল:

৯. জল:

সাধে কী আর বলে জল হল জীবন। শুধু তেষ্টা মেটাতে নয়, সেই সঙ্গে শরীর থেকে নানা টক্সিন এমনকী নিকোটিনকে বার করে দিতেও সাহায্য় করে। শুধু তাই নয়, যদি আপনি ধূমপান ছাড়ার কথা ভেবে থাকেন তাহলে প্রচুর পরিমাণে জল খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন স্মোকিং-এর ইচ্ছা চলে যাবে।

English summary
One of the major components of a cigarette is nicotine. This is considered to be a toxic drug and is highly addictive.
Story first published: Thursday, February 9, 2017, 10:48 [IST]
Please Wait while comments are loading...