অল্প দিনেই ফর্সা হয়ে উঠতে চান কি?

Posted By:
Subscribe to Boldsky

উজ্জ্বল, ফর্সা ত্বক পেতে কে না চায়। কিন্তু কীভাবে এই লক্ষ্যে পৌঁছান সম্ভব, তা নিয়ে কারও স্পষ্ট ধারণা নেই। কেউ বাজার চলতি ফেস হোয়াইটনিং ক্রিম ব্যবহার করেন, তো কেউ সেলনে গিয়ে লাইন দেন। এই সবের পরেও কি মনের ইচ্ছা পূরণ হয়? হয় না তো! তাই তো এই প্রবন্ধে এমন কিছু পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হল, যা আপনার ইচ্ছা পূরণ করবেই করবে।

বেকিং সোডার নানা উপকারি দিক রয়েছে। তার মধ্যে একটি হল, এটি ত্বকের পরিচর্যায় দারুন কাজে লাগে। আসলে প্রচুর মাত্রায় অ্যালকেলাইন এবং অ্যান্টিসেপটিক প্রপাটিজ থাকার কারণে খাবার সোডা ত্বকের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়।

তাহলে এখন প্রশ্ন, কীভাবে খাবার সোডা মুখে লাগালে বেশি উপকারে লাগে? ত্বকের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায় এমন কিছু উপদানের সঙ্গে খাবার সোডা মিশিয়ে বানাতে হবে ফেস প্যাক। এগুলি মুখে লাগালে অল্প দিনেই ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল এবং আপনি হয়ে উঠবেন ফর্সা। তবে সপ্তাহে একবারের বেশি কিন্তু খাবার সোডা মুখে লাগাবেন না। তাহলে উপকারের জায়গায় অপকার হবে বেশি।

আর অপেক্ষা কিসের। চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে বেকিং সোডাকে কাজে লাগিয়ে নানাবিধ ফেস মাস্ক বানানো যায়, সে সম্পর্কে।

১. নারকেল তেল আর বেকিং সোডা:

১. নারকেল তেল আর বেকিং সোডা:

হাফ চামচ খাবার সোডার সঙ্গে ২ চামচ নারকেল তেল এবং ১ চামচ ফোটান জল মিশিয়ে নিন। তারপর সেই মিশ্রন মুখে লাগিয়ে কম করে ১০ মিনিট রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বককে আদ্র এবং সুন্দর করে তুলতে সপ্তাহে একবার এই ফেস প্যাকটি মুখে লাগাতে পারেন।

২. লেবুর রস আর বেকিং সোডা:

২. লেবুর রস আর বেকিং সোডা:

১ চামচ বেকিং সোডার সঙ্গে ১ চামচ ফোটান জল এবং ১ চামচ লেবুর রস মিশিয়ে সেই মিশ্রনটি মুখে লাগান। ১০ মিনিট রেখে ভাল করে মুখটা ধুয়ে ফেলুন। উজ্জ্বল ত্বক পেতে এই ফেস মাস্কটি দারুন উপকারে লাগে।

৩. খাবার সোডা এবং অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

৩. খাবার সোডা এবং অ্যাপেল সিডার ভিনিগার:

১ চামচ খাবার সোডার সঙ্গে ৩ ড্রপ অ্যাপেল সিডার ভিনিগার এবং ১ চামচ ফোটান জল মেশান। যখন দেখবেন উপাদানগুলি ভাল করে মিশে গেছে, তখন সেটি মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। সময় হয়ে গেলে ভাল করে মুখটা ধুয়ে নিন।

৪. বেকিং সোডা এবং ডিমের সাদা অংশ:

৪. বেকিং সোডা এবং ডিমের সাদা অংশ:

পরিমাণ মতো ডিমের সাদা অংশ নিয়ে তার সঙ্গে ১ চামচ খাবার সোডা মিশিয়ে নিন। তারপর সেই মিশ্রনটি মুখে এবং গলায় ভাল করে লাগিয়ে কম করে ১০ মিনিট রেখে তারপর ধুয়ে ফেলুন। যাদের ত্বক খুব শুষ্ক, তাদের ক্ষেত্রে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি দারুন কাজে আসে।

৫. বেকিং সোডা এবং টমাটো:

৫. বেকিং সোডা এবং টমাটো:

অল্প করে টমাটো নিয়ে সেগুলি চটকে নিন। তারপর তা থেকে ১ চামচ নিয়ে সমপরিমাণ বেকিং সোডার সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রনটির সঙ্গে কয়েক ড্রপ ফোটান জলও মেশাতে পারেন। সবকটি উপকরণ মিশে যাওয়ার পর সেটি মুখে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেলুন। আপনার ত্বক কি পুড়ে গেছে? তাহলে এই মিশ্রনটি লাগানো শুরু করুন। ভাল উপকার পাবেন।

৬. খাবার সোডা এবংঅলিভ অয়েল:

৬. খাবার সোডা এবংঅলিভ অয়েল:

১ চামচ অলিভ অয়েলের সঙ্গে ১ চামচ বেকিং সেটা মিশিয়ে নিন ভাল করে। তারপর এই মিশ্রনটি ১০ মুখে লাগিয়ে রেখে দিন। সময় হয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৭. খাবার সোডা এবং কর্ন ফ্লাওয়ার:

৭. খাবার সোডা এবং কর্ন ফ্লাওয়ার:

১ চামচ খাবার সোডার সঙ্গে ১ চামচ করে কর্ন ফ্লাওয়ার এবং গোলাপ জল মিশিয়ে তৈরি করতে হবে এই ফেস প্যাকটি। ত্বকের উপরি অংশে জমে থাকা মৃত কোষেদের সরিয়ে স্কিনকে উজ্জ্বল করে তুলতে এই ঘরোয়া পদ্ধতিটি দরুন উপকারে লাগে। প্রসঙ্গত, এই মিশ্রনটি ১০ মিনিট মুখে লাগিয়ে রাখার পর ধোবেন। তাতে বেশি ভাল ফল পাবেন।

English summary
Baking soda is a multitasking item that has been a kitchen staple in many households since decades. Often used for oral care and cleaning purposes, baking soda is used extensively all over the world. However, very few people know that this item comes with a host of benefits that can do wonders on an individual's skin.
Story first published: Saturday, March 25, 2017, 14:15 [IST]
Please Wait while comments are loading...