For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বয়স আপনার মুখে ছাপ ফেলছে? বলিরেখা নিয়ে চিন্তা? জেনে নিন কি করা উচিত

|

প্রতিদিনের দৌড়ঝাঁপ ভরা জীবনে নিজের যত্ন নেওয়ার সময় খুব কম পাওয়া যায়। দিনের বেশিরভাগ সময়টা হয় অফিসে ফাইলের নিচে চাপা পড়ে যায়, নাহলে বাকি সময়টা ক্লান্তিতে কেটে যায়। অবসাদ, চিন্তা এসবের প্রত্যক্ষ প্রভাব আমাদের জীবনে পড়তে থাকে।

রোগ আমাদের শরীরে এসে বাসা বাঁধে। নিয়মিত খাওয়া ঠিক সময়ে না হলেও ওষুধটা যেন ঠিক সময়ে পড়ে তার দিকেও নজর রাখতে হয়।

একইসাথে এই ব্যস্ত জীবন, অনিয়মের পরোক্ষ শিকার আমাদের ত্বক। তাই মনে হয় কথায় আছে মানুষের বয়স বোঝা যায় মানুষের বলিরেখাতে। কিন্তু কিভাবে এই বয়সের ছাপ নিজের ত্বকে আসতে বাধা দেবেন? কিভাবেই বা নিজের ত্বকের যত্ন নেবেন যাতে সময়ের ছাপ আপনার ত্বককে প্রভাবিত না করে? অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আমরা চিকিৎসকের স্মরনাপন্ন হই, কিংবা বাজার চলতি প্রসাধনী দ্রব্যকে আপন করে নি। কিন্তু এছাড়াও আরো কিছু করণীয় থেকে যায় আপনার দিক থেকে যা অনুসরণ করলে বার্ধক্যজনিত দাগের আসাকে সহজেই না বলতে পারবেন। আজকের প্রতিবেদনে জেনে নিন তারই কিছু সুলুক সন্ধান।

১. চিন্তাকে না বলুন

১. চিন্তাকে না বলুন

অহেতুক দুশ্চিন্তা এই বলিরেখার সবচেয়ে প্রধান কারণ। তাই দুশ্চিন্তাকে সবার আগে না বলুন। হ্যা, এটা অবশ্যই পড়ে থাকা কোনো পাথর না যে ফেলে দিলেই চিন্তামুক্ত। কিন্তু দুশ্চিন্তা হলে আগে তার কারণ ফলাফল ভাবুন। যদি কিছু করার থাকে সেটা করুন। অহেতুক দুশ্চিন্তা আপনার সময় নষ্ট করা ছাড়া আর কিছুই করবে না। সম্ভব হলে ধ্যান করুন। মনোসংযোগ বাড়ানোর চেষ্টা করুন।

২. সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন

২. সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন

অনেকেই কাজে বেরোলে এটা ব্যবহার করেন, অনেকে ভুলে যান। চেষ্টা করুন বাইরে গেলে অবশ্যই সানস্ক্রিন ব্যবহার করার। এটা সূর্যের প্রত্যক্ষ আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মিকে আপনার ত্বকের ক্ষতি করার হাত থেকে বাঁচায়। অনেক ফলে লাইকোপেন থাকে যা আপনার ত্বকের নিজস্ব সানস্ক্রিন হিসাবে কাজ করে। চেষ্টা করুন নিজের প্রতিদিনের খাবারে সেটা রাখার, যেমন টমেটো। এমনকি এই ক্ষেত্রে গ্রীন টি অনেকটাই কার্যকরী।

৩. স্বাস্থ্য চর্চা করুন বেশি করে

৩. স্বাস্থ্য চর্চা করুন বেশি করে

চিকিৎসক এবং বিজ্ঞানীদের মতে বেশি করে স্বাস্থ্য চর্চা করুন, না পারলে বেশি করে হাঁটা চলা করুন। আধুনিক বিজ্ঞান জানাচ্ছে যে এতে শরীরে IL-15 নামক এক যৌগের ক্ষরণ হয় যা আমাদের শরীরের কোষকে মারা যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে।

৪. ম্যাসেজ করুন ত্বকের

৪. ম্যাসেজ করুন ত্বকের

প্রতিদিনের রুটিনে ত্বকের যত্ন নেওয়ার জন্যে একে অবশ্যই রাখুন। নিজের রোজকার নাইট ক্রিম দিয়ে নিজের মুখ ম্যাসেজ করুন। নিজের আঙ্গুলের সাহায্যে সার্কুলার গতিতে আস্তে আস্তে ম্যাসেজ করার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে অল্প তেল নিতে পারেন যাতে ওমেগা-৩ আছে। একইসাথে নিজের ত্বকের dead cell বা মৃত কোষ পরিষ্কার করার জন্যে ত্বককে এক্সফলিয়েট করুন। এতে ত্বক অনেকটাই সজিব দেখাবে।

৫. চিনি খাওয়া কম করুন

৫. চিনি খাওয়া কম করুন

অতিরিক্ত চিনি খাওয়া আমাদের শরীরের গ্লাইকেশনকে ত্বরান্বিত করে। যা আমাদের কোলাজেন আর ইলাস্টিনের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। ফলে আমাদের ত্বক নির্জীব দেখতে লাগে।

৬. ময়শ্চরিজ করুন নিয়মিত

৬. ময়শ্চরিজ করুন নিয়মিত

বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের ত্বকের জল ধারণ ক্ষমতা কমতে থাকে। ফলে ত্বক শুকনো হয়ে যায়। বলিরেখা সহজেই ত্বকে এসে ভিড় করে। তাই পরিমাণ মতো জল অবশ্যই খান সারাদিন। সাথে নিজের ত্বককে ময়শ্চরিজ করুন।

৭. ঘুম এবং make up

৭. ঘুম এবং make up

পরিমিত ঘুমের অভাবে আমাদের ত্বক এবং কোষগুলি ক্লান্ত হতে থাকে। ফলে বয়স বাড়ার ছাপ সহজেই চলে আসে। চেষ্টা করুন সারাদিনের কাজের শেষে যেন ঘুম পরিমিত এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে হয়। অনেক সময় অনেকে দিনের শেষে ক্লান্তিতে কোনো অনুষ্ঠান বা পার্টির মেকআপ না তুলেই শুয়ে পড়েন। চেষ্টা করুন এই অভ্যেস বন্ধ করার। সম্ভব না হলে অন্তত জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

৮. ত্বককে দিন ফেসিয়াল প্যাক

৮. ত্বককে দিন ফেসিয়াল প্যাক

উপযুক্ত এবং দরকারী পুষ্টি যেমন আমাদের শরীরের লাগে তেমনি আমাদের ত্বকেরও দরকার। এর জন্যে কসমেটিক্সের সাথে দরকার প্রয়োজনীয় প্যাক যা আপনার মুখের পুষ্টিগুণ মেটায়। অনেক ধরনের প্যাক আছে যার মধ্যে মধু, লেবু, কলা, টমেটো, দই খুবই উপকারী। সঠিক মাত্রায় এবং সঠিক পরিমাণে মিশিয়ে এই প্যাক গুলো আপনার ত্বককে বয়সের ছাপ থেকে বাঁচাতে যথেষ্ট সাহায্য করবে।

English summary

Anti-Aging Skin Care Tips

We don't know how to stop the clock, but we can help you fool the cameras and mirrors into thinking you’re a younger you. Here’s some essential tips to get the skin care routine you need.
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more