(ছবি) বিকিনি ওয়াক্স করার আগে যে বিষয়গুলি মাথায় রাখা প্রয়োজন!

By: Oneindia Bengali Digital Desk
Subscribe to Boldsky

শরীরের অবাঞ্ছিত লোম তুলতে মহিলারা হেয়ার রিমুভাল ক্রিম, মহিলাদের জন্য ব্যবহৃত বিশেষ রেজার কিংবা ওয়াক্স এর ব্যবহার করে থাকেন। ওয়াক্স হল শরীরের অবাঞ্ছিত লোম দূর করার সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর উপায়। যদিও এই পদ্ধতি যথেষ্ট যন্ত্রণাদায়ক। [(ছবি) বলিউডের ২০ জন অভিনেত্রীদের বিকিনি অবতার!]

শরীরের অন্যান্য অংশের মতো গোপনাঙ্গের বা বলা ভাল পেলভিক এরিয়ার বিকিনি লাইনের অবাঞ্ছিত লোম দুর করতেও সবচেয়ে নিরাপদ উপায় হল ওয়াক্সিং। বিকিনি ওয়াক্সিং বা ব্রাজিলিয়ন ওয়াক্সিং নামেই পরিচিত এই পদ্ধতি। [(ছবি) আলিয়া-সানি-লিজা, 'পিঙ্ক বিকিনি লুক'-এ যে ১২ অভিনেত্রী সুপারহিট]

অনেকেই শখ করে বিকিনি ওয়াক্স করার অভিজ্ঞতা নিতে পার্লারে ছোটেন। কিন্তু মেয়েদের শরীরের বিকিনি লাইন অত্যন্ত স্পর্ষকাতর জায়গা। তাই আচমকা বিকিনি ওয়াক্স করানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে কিছু প্রস্তুতির প্রয়োজন রয়েছে, কয়েকটি জিনিস মাথায় রাখাটাও অত্যন্ত প্রয়োজন। সেগুলি কি কি আসুন তা একঝলকে দেখে নেওয়া যাক। [(ছবি) হরেক বিকিনিতে সুপারহট অভিনেত্রী অ্যামি জ্যাকসন]

লোম ভালভাবে বাড়তে দিন

লোম ভালভাবে বাড়তে দিন

লোম যত ভালভাবে বাড়বে তত সহজ ও মসৃণ হবে আপনার ওয়াক্সিং। আর প্যান্টি লাইন বা বিকিনি লাইনের ত্বক অত্যন্ত সংবেদনশীল হয়। তাই যন্ত্রণা হওয়া স্বাভাবিক। আর লোম ছোট হলে তা সহজে ওয়াক্সিংয়ে বেরতে চায় না। তাই যতটা সম্ভব লোম বাড়তে দিন। তারপরই বিকিনি ওয়াক্সের প্রস্তুতি নিন।

ঢিলে ঢালা জামাকাপড়

ঢিলে ঢালা জামাকাপড়

বিকিনি ওয়াক্স করাতে যাওয়ার সময় কখনও স্কিন ফিট জিনস বা টাইট কাপড় পড়বেন না। সবসময় ঢিলে ঢালা কাপড় পড়ে বিকিনি ওয়াক্স করাতে যান। কারণ স্পর্ষকাতর হওয়ার ওয়াক্সের পর আপনার শরীরের ওই অংশ হাল্কা ফুলে যেতে পারে, অস্বস্তিতে হতে পারে। তার উপর যদি আপনি বডি হাগিং পোশাক পরেন তাতে অস্বস্তি বাড়বে এমনকী ইনফেকশনও হয়ে যেতে পারে।

গরম জলে চান

গরম জলে চান

অপরিচিত কোনও ব্যক্তি আপনার গোপনাঙ্গে ওয়াক্স করবেন বিষয়টি বেশ অস্বস্তিকর। তারপর শরীরের এই ঢাকা অংশে যদি ময়লা হয় বা দুর্গন্ধ হয় তাহলে তো বিড়ম্বনার শেষ নেই। তাই পারলে হাল্কা গরম জলে চান করে জায়গাটি ভাল করে ধুয়ে পরিস্কার করে তারপর বিকিনি ওয়াক্সের জন্য যান। এতে দুর্গন্ধ দুর হওয়ার পাশাপাশি লোমগুলি ভিজে নরম হয়ে থাকে। ফলে সহজেই ওয়াক্সিংয়ের সময়ে বেরিয়ে আসে। আর এতে যন্ত্রণা খানিকটা কম হয়।

ভাল করে স্ক্রাব করে নিন

ভাল করে স্ক্রাব করে নিন

বিকিনি ওয়াক্স করাতে যাওয়ার কয়েক ঘন্টা আগে কিংবা আগের দিন রাতে নির্দিষ্ট অংশ ভাল করে স্ক্রাব করে এক্সফলিয়েট করুন। ওই অংশের সমস্ত মৃতকোষগুলি বেরিয়ে যায়। মৃত কোষ ত্বকে থাকলে লোমগুলি গোড়া থেকে বেরিয়ে আসতে বাধা পায়। তাই জায়গাটি এক্সফলিয়েট হলে বিকিনি কিছুটা কম যন্ত্রণাদায়ক হয়।

ব্যথা কমানোর ওষুধ

ব্যথা কমানোর ওষুধ

মিথ্যে বলে লাভ নেই হাতে পায়ে হোক বা বিকিনি লাইনে ওয়াক্সিং যন্ত্রণাদায়ক। ওয়াক্সিংয়ের সময়টা উপভোগ করার কিছুই নেই। কারো কারো সংবেদনশীল ত্বক হলে ওয়াক্সির পরও কয়েক ঘন্টা ব্যথা থাকতে পারে। কিন্তু আপনি যদি ওয়াক্সিংয়ের সময় ব্যথা লাগা বা যন্ত্রণা নিয়ে ভীত থাকেন বা আপনার ত্বক যদি অত্যন্ত স্পর্ষকাতর হয় তাহলে বিকিনি ওয়াক্সিংয়ের আধ ঘন্টা আগে হাল্কা ডোজের কোনও পেনকিলার খেয়ে নিতে পারেন। এতে কিছুটা তফাৎ তো হয়ই।

ময়শ্চারাইজার এড়িয়ে চলুন

ময়শ্চারাইজার এড়িয়ে চলুন

ওয়াক্স করার আগে কখনও সেই জায়গায় ময়শ্চারাইজার বা বডি লোশন কিংবা কোনও ক্রিম লাগানো উচিত নয়। ময়শ্চারাইজার সবসময়ে লোম ও ওয়াক্সের মধ্যে একটা বাধা তৈরি করে। তাই যেদিন ওয়াক্সিং করাবেন তার একদিন আগে থেকে যে কোনও ধরনের ক্রিম বা ময়শ্চারাইজার লাগানো বন্ধ রাখুন।

ট্রিম করে নিন কাঁচি দিয়ে

ট্রিম করে নিন কাঁচি দিয়ে

আপনি যদি বিকিনি ওয়াক্স করাতে যাওয়ার আগে বর্ধিত লোমগুচ্ছর আগা একটি ছোট কাঁচির সাহায্য ট্রিম করে নেন তাহলে তা ওয়াক্সের ক্ষেত্রে সুবিধাজনক হবে। এবং ওয়াক্সিংও মসৃণ ও চটজলদি হয়। তবে কখনও ট্রিম করার জন্য রেজার, বা ক্ষুরের ব্যবহার করবেন না।

বিকিনি ওয়াক্সের দিন ডেট নাইট নয়

বিকিনি ওয়াক্সের দিন ডেট নাইট নয়

বিকিনি ওয়াক্স করেই কী আপনি আপনার বয়পফ্রেন্ড বা স্বামীকে একটা সেক্সি ডেটনাইট উপহার দিতে চান? তার আগে ভেবে দেখুন। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ, বিকিনি বা ব্রাজিলিয়ন ওয়াক্সের ২৪ ঘন্টার মধ্যে সেক্স না করতে। এই অংশটি অত্যন্ত সংবেদনশীল হয়, এবং এই সময় অত্যন্ত সংক্রমণপ্রবণ হয়। ওয়াক্সের ২৪ ঘন্টার মধ্যে যৌনমিলন যন্ত্রণাদায়ক হতে পারে।

ওয়ার্ক আউটে না

ওয়ার্ক আউটে না

সেক্সের মতোই ওয়াক্সের পর একদিন ওয়ার্ক আউট বা এক্সারসাইজ থেকেও ছুটি নিন। কারণ ওয়ার্কআউটের ফলে ঘাম হবে। ঘামে উপস্থিত ব্যাকটেরিয়ার ফলে যৌনাঙ্গে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটাই বেড়ে যায়।

দেখে শুনে, গবেষণা করে পার্লার বাছাই করুন

দেখে শুনে, গবেষণা করে পার্লার বাছাই করুন

টাকা বা সময় বাঁচাতে হাতের কাছে যে কোনও বিউটি পার্লার বা স্যালোঁ-য় বিকিনি ওয়াক্স করাতে যাবেন না। বিকিনি ওয়াক্স করাতে যাওয়ার আগে ভাল করে যাচাই করে নিন, এবং যে সব বিউটি পার্লার বা স্যালোঁর বিকিনি ওয়াক্স বা ব্রাজিলিয়ন ওয়াক্সে স্পেশালাইজেশন আছে, সেখানেই যান। এছাড়াও নির্দিষ্ট ওই পার্লারের হাইজিন কতটা যাচাই করে নেবেন, নয়তো সংক্রমণ এমনকী যৌনরোগের শিকারও হতে পারেন আপনি।

English summary
10 Things You Need To Know Before Your First Brazilian or Bikini Wax
Please Wait while comments are loading...