কৈশোর গর্ভাবস্থা সমস্যা

Posted By: Tulika Ghoshal
Subscribe to Boldsky

জীবনের সবকিছু নিজস্ব সময়ে হয়ে থাকে|যেহেতু মানুষ, বিধাতার শ্রেষ্ঠ সৃষ্টি, প্রকৃতি মাতা সবকিছুর জন্য তাকে তৈরী করে দেয়|যা কিছু প্রকৃতির নিয়মের আগে ঘটে বা পরে, তা সমস্যা সৃষ্টি করে|কৈশোর গর্ভাবস্থা এমনই এক ধরণের সময়ের আগে ঘটা সমস্যা|

গর্ভাবস্থা এমন একটি অধ্যায় যা প্রত্যেক নারীর স্বপ্ন|সন্তান ধারণ এবং তারপর তার জন্ম দেওয়া আপনাকে এক স্রষ্টার অনুভূতি দিয়ে থাকে|কিন্তু যখন গর্ভাবস্থা অপ্রত্যাশিতভাবে আসে, এই আনন্দ ও উত্তেজনা অনেকটাই কমে যায়|

আপনার ঘরের কিশোর কিশোরী যা জানতে চায়

আসলে কৈশোর গর্ভাবস্থার প্রচুর সমস্যা হয়ে থাকে|একদিকে মা ও শিশুকে বিশাল শারীরিক সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়, এবং অন্যদিকে সামাজিক ও অর্থনৈতিক সমস্যাও কম হয় না| কম বয়সে বিবাহ কৈশোর গর্ভাবস্থা একটি বড় কারণ|যে বয়সে মেয়েটির হেসে খেলে বেড়াবার কথা, সেই বয়সে জোর করে বিবাহ সূত্রে বেঁধে তাকে বিয়ের অঙ্গীকার বজায় রাখার জন্য বাধ্য করা হয়|সময়ের আগে মিলন তাকে ছোট বয়সে গর্ভবতী করে যার ফলে তার এবং শিশুর স্বাস্থ্য ব্যাহত হতে পারে|

তবে কখনও কখনও কিশোরীরা তাদের অসতর্কতার কারণে গর্ভবতী হয়ে থাকে এবং কৈশোর গর্ভাবস্থার সমস্যা তাদেরকে ভাবিয়ে তোলে|হ্যাঁ, কৈশোর গর্ভাবস্থার কিছু সমস্যা আছে যা আপনাকে মোকাবেলা করতে হবে|

কৈশোর গর্ভাবস্থা সমস্যা কি ভাবে মোকাবেলা করবেন

এই অবস্থার আরও অনেক কিছু সমস্যা আছে তা জেনে নিন|

উচ্চ রক্তচাপ

উচ্চ রক্তচাপ

কৈশোর অবস্থায় গর্ভবতী হলে তাকে পরিবার এবং সমাজের থেকে প্রচুর চাপের মুখোমুখি হতে হয়| এর থেকে উদ্বেগ সৃষ্টি হয় যার ফলাফল হাইপারটেনশন এবং উচ্চ রক্তচাপ | এটা প্রমাণিত যে, কিশোরী মায়েরা কুড়ি বা তিরিশ বছরের মায়েদের থেকে বেশি উচ্চ রক্তচাপে ভোগেন|

প্রি-ম্যাচুওর ডেলিভারি

প্রি-ম্যাচুওর ডেলিভারি

এটি আরেকটি কৈশোর গর্ভাবস্থার স্বাস্থ্য সমস্যা|কিশোরী অবস্থায় একটি মেয়ের শরীর ভবিষৎ মাতৃত্বের জন্য প্রস্তুত হতে থাকে| যদি সেই পরিস্থিতি আসে আপনার শরীর প্রস্তুত হওয়ার আগে, তা প্রি-ম্যাচুওর ডেলিভারির দিকে অগ্রসর হতে পারে যা মা ও শিশুর জন্য জীবনের ঝুঁকি কারণ হতে পারে |

অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা

অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা

কৈশোরে মায়েরা গর্ভাবস্থার আরও অনেক সমস্যার মুখোমুখি হয়|তারা ওজন হ্রাস, রক্তশূন্যতা, যৌনবাহিত রোগ, স্থূলতা এবং আরো অনেক সমস্যা থেকে ভুগতে পারে| এমনকি মা প্রসবকালীন প্রচুর রক্ত হারাতে পারেন|

বাচ্চার অসুবিধে

বাচ্চার অসুবিধে

শুধু মা নয় বাচ্চা ও এই অকাল গর্ভাবস্থার শিকার হয়| জন্মের সময় কম ওজন একটি সাধারণ সমস্যা| প্রায়ই তারা জন্ডিসের ম্যালেরিয়া ইত্যাদির মত রোগের সঙ্গে জন্ম নেয়| তাছাড়া, মাও তখন যথেষ্ট দক্ষ নয় শিশুর যত্ন নিতে|

মানসিক সমস্যা

মানসিক সমস্যা

হ্যাঁ, ওই সময় মেয়েরা অপরিমেয় সামাজিক চাপের সম্মুখীন হয়ে থাকে এবং প্রায়ই তারা তাদের বাবা মাকে পাশে পায় না| এমনকি অনেক সময় সে তার সন্তানের পিতা সমর্থনেও পায় না| এমন মানসিক চাপ অনেকেই মানিয়ে নিতে পারে না|

স্কুল ছুট

স্কুল ছুট

স্কুল ছুটের হার খুবই বেশী এবং এটি একটি কৈশোর গর্ভাবস্থার গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা|মেয়েরা এই সময় বিব্রত থাকে আর তাই স্কুলে যেতে রাজি হয় না|এছাড়াও তাকে বাচ্চার দেখভালের জন্য বাড়িতে থাকতে হয়|সুতরাং, কৈশোর গর্ভাবস্থা বিকাশের আগেই তার কর্মজীবনের দাঁড়ি টেনে দেয়|

অর্থকষ্ট

অর্থকষ্ট

প্রায়শই কৈশোর গর্ভাবস্থা একক মাতৃত্বের দিকে এগিয়ে দেয় এবং এটা তার আর্থিকভাবে স্থিতিশীল হওয়ার জন্য কঠিন হয়ে যায়|তার শিক্ষা সম্পন্ন হয় না, তাই তার পক্ষে উপযুক্ত কাজ পাওয়া কঠিন হয়ে দাঁড়ায়|সুতরাং, দারিদ্র্য কৈশোর গর্ভাবস্থা সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি ভাবে যুক্ত| এই কৈশোর গর্ভাবস্থার থেকে যেকেউ গর্ভপাতের মাধ্যমে পরিত্রাণ পেতে পারেন| কিন্তু তাতেও মেয়েদের শরীরের উপর প্রভাব পড়ে|সুতরাং, কিছু সতর্কতা নেওয়া প্রয়োজন|শুধুমাত্র মেয়েদের নয়, ছেলেদেরও অনিরাপদ যৌন প্রভাব সম্পর্কে সচেতন হতে হবে|আপনি এই পৃথিবীতে যদি কেউ কে আনতে চান তাহলে আনন্দের সাথে আনুন অন্যথায় সেই নবাগতকে আঘাত করবেন না যে এই

For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    English summary

    কৈশোর গর্ভাবস্থা সমস্যা | কৈশোর গর্ভাবস্থায় স্বাস্থ্যের সমস্যা | কৈশোর গর্ভাবস্থায় বাচ্চার স্বাস্থ্যের ঝুঁকি | কৈশোর গর্ভাবস্থার ঝুঁকি

    Everything in life has its own time. As human being is the most fabulous creation of the almighty, the Mother Nature prepares them for everything. Anything before time or against the rule of nature creates problem. Teenage pregnancy is one of such kind of pre-timing matter.
    Story first published: Tuesday, November 15, 2016, 15:00 [IST]
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Boldsky sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Boldsky website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more